টেকনো ইনফোঃ আসসালামু আলাইকুম৷ বন্ধুরা কেমন আছেন৷ আশা করি ভলো৷ আজ আপনাদের জন্য নিয়ে এলাম ২০১৭ সালের সেরা কয়েকটি ইউটিউব টিপস৷ আশা করি আপনাদের ভলো লাগবে৷

ভিডিও দেখার জন্য সব চেয়ে জনপ্রিয় মাধ্যম হল ইউটিউব। প্রতিদিন বিলিয়ন বিলিয়ন মানুষ সর্বশেষ খবর জানার জন্য ইউটিউবে অনেক সময় ব্যয় করে থাকে। খুব জনপ্রিয় এবং শক্তিশালী হওয়া সত্ত্বেও ইউটিউবের কিছু কৌশল এবং বৈশিষ্ট্য যা বেশিরভাগ ব্যবহারকারীদের পরিচিত নয়। আজ আপনাদের ইউটিউবের এমন কিছু টিপস জানাবো যা ব্যবহারকারীদের অভিজ্ঞতা পরিবর্তন করতে পারে এবং ইউটিউব ভিডিও স্ট্রিমিং করার সময় টিপসগুলো খুবই সহায়ক ও ইউটিউব ব্যবহারে নতুন মাত্রা যোগ করবে ইনশা আল্লাহ্‌।

২০১৭ সালের সেরা ১১টি ইউটিউব টিপস

১। অফলাইন ভিডিও ডাউনলোডঃ

সব ভিডিও ডাউনলোড করে দেখা সম্ভব হয় না। আপনি সহজে আপনার ইউটিউব ভিডিও আপনার ডিভাইসে সংরক্ষণ করে পরে এটি দেখতে পারেন। কৌশলটি শুধুমাত্র স্মার্টফোনে কাজ করবে।

কিভাবে করবেন

  • প্রথমে গুগল প্লে স্টোর থেকে ইউটিউব অ্যাপসটি আপডেট করে নিন।
  • আপডেট করার পরে ইউটিউব সাইডবারে অফলাইন অপশন পাবেন।
  • প্রতিটি ভিডিওর সাথে ডাউনলোড বাটন দেখতে পাবেন৷ যে ভিডিওটি ডাউনলোড করে রাখতে চান শুধু ডাউনলোড বাটনে ক্লিক করুন। ব্যাস ডাউনলোড শুরু হয়ে যাবে৷ এখন যখন খুশি তখন আপনার পছন্দের ভিডিও দেখুন ইন্টারনেট খরচ ছাড়া।

২। ভিডিওর অংশ বিশেষ শেয়ারঃ

যখন আমরা আমাদের বন্ধু বা চ্যানেল ব্যবহারকারীর সাথে বিশেষ কোন ভিডিওর একটি অংশ শেয়ার করতে চাই। কাজটি কিভাবে করবেন তা এখানে দেখাবো। আপনি খুব সহজেই শুরুর বিন্দু থেকে একটি ভিডিওর যে কোন অংশ শেয়ার করতে পারবেন।কিভাবে করবেন

  • ইউটিউবে যে কোন একটি ভিডিও চালু করুন এবং যেখান থেকে ভিডিও শেয়ার করতে চান সেই সময়টি লিখে রাখুন। ভিডিওটি কিছু সময় চালু রাখুন। ধরুন এটি ১মিনিট ১০ সেকেন্ড।
  • ভিডিওটি যতটুকু শেয়ার করতে চান তার শেষ অংশের URL-এ #t=01m10s যুক্ত করে লিঙ্কটি কপি করুন।
  • এখন আপনি আপনার বন্ধু বা চ্যানেল ব্যবহারকারীদের সাথে লিঙ্কটি শেয়ার করলে তারা আপনার নির্ধারিত ১মিনিট ১০ সেকেন্ডের ভিডিওটি দেখতে পারবে।

৩। অটো রিপ্লে চালু করুনঃ

অনেক সময় আমরা কিছু প্রিয় গান বা মজার ভিডিও বারবার শুনতে বা দেখতে চাই কিন্তু এর জন্য সেই গান বা ভিডিওতে বার বার ক্লিক করতে হয়। আজ আপনাদের দেখাবো কিভাবে ক্লিক করা ছাড়া আপানার চাহিদা অনুযায়ী অসংখ্যা বার শুনবেন বা দেখবেন সেই পছন্দের গান বা ভিডিও।

  • আপনার পছন্দের গান বা ইউটিউব ভিডিও চালু করুন এবং ইউটিউব URL-এ Youtube এর পরিবর্তে infinite looper ব্যবহার করুন।
  • Enter চাপুন এখন যখনই এটি শেষ হবে তখন পুনরায় চালু হবে।

৪। স্লো মোশনে ইউটিউব ভিডিও দেখুনঃ

এই কৌশলের মাধ্যমে আপনি অতি সহজেই স্লো মোশনে ইউটিউব ভিডিও দেখতে পারেন। এর জন্য শুধু “স্পেসবার” চাপুন এবং ধরে রাখুন তাহলেই আপনি আপনার কাঙ্খিত ইউটিউব ভিডিও স্লো মোশনে দেখতে পাবেন।

৫। ইউটিউব ভিডিও থেকে GIF তৈরি করুনঃ

আপনি চাইলে ইউটিউব ভিডিও থেকে অ্যানিমেটেড জিআইএফ তৈরি করতে পারেন। এটি অত্যন্ত সহজ কাজ। আপনার প্রিয় ভিডিও থেকে GIF তৈরি করার জন্য আপনাকে ২ টি পদক্ষেপ অনুসরণ করতে হবে।

  • আপনার পছন্দের ইউটিউব ভিডিওটি সন্ধান করুন এবং URL এর শুরুতে “জিআইএফ” যোগ করুন এবং Enter চাপুন।
  • নতুন একটি উইন্ডোতে পূর্বনির্দেশিত কাজ করতে হবে এবং সেখানেই আপনি “GIF” তৈরি করতে পারেন।

৬। কীবোর্ডের মাধ্যমে Youtube চালানঃ

আপনি ইচ্ছা করলে খুব সহজেই শুধু মাত্র কীবোর্ডের মাধ্যমে ইউটিউব ব্যবহার করতে পারেন। এর জন্য নিচের পদ্ধতিটি অনুসরণ করতে হবে।

  • প্রথমে ইউটিউবে গিয়ে https://www.youtube.com এর পরে “/leanback” টাইপ করুন এবং Enter চাপুন।
  • এখন আপনি আপনার সম্পূর্ণ ইউটিউব ডিজাইন কীবোর্ডের সাহায্যে ব্যবহার করতে পারবেন।

৭। বিরক্তিকর মন্তব্য বা টীকা বন্ধ করুনঃ

আপনি খুব সহজেই ইউটিউবের বিরক্তিকর মন্তব্য বা টীকাগুলো বন্ধ করতে পারেন। এর জন্য যা করতে হবে৷

  • প্রথমে ইউটিউবে গিয়ে শুধু www.youtube.com এর পরে “/ account_playback” যোগ করুন।
  • এখন আপনাকে “Show annotations and in-video notifications” disable করে এবং সেভ করুন।

৮। ‘কে’, ‘জে’ এবং ‘এল’ চালানোর চেষ্টা করুনঃ

এই শর্টকাটগুলি অনেক ইউটিউব ব্যবহারকারীদের কাছে অজানা। এই শর্টকাটগুলি তাদের জন্য খুবই সহায়ক হতে পারে যারা তাদের ভিডিওগুলি ১০ সেকেন্ডের জন্য দ্রুত এগিয়ে বা পুনর্বিন্যস্ত করতে চান।

  • সর্বপ্রথম যে ভিডিওটি আপনি দেখতে চান তা চালু করুন।
  • এখন আপনার কীবোর্ডে “K” বোতামটি চাপুন ভিডিওটি থামবে।
  • একইভাবে আপনি যদি “জে” এবং “এল” চাপেন তাহলে ভিডিওটি ১০ সেকেন্ডের জন্য দ্রুত এগিয়ে নিয়ে যাবে।

৯। ভিডিও চালানোর সময় সংখ্যাসূচক ব্যবহারঃ

আচ্ছা আপনি কি নোটপ্যাডে ইউটিউব ভিডিও নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন? ওয়েল, আপনি যে কোন ইউটিউব ভিডিও চালু করে ১-৯ চেপে ইউটিউব ভিডিও নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন।যদি আপনি ০ চাপেন তাহলে ভিডিওটি প্রথম থেকে শুরু হবে। আর যদি আপনি ১ থেকে ৯ চাপেন তাহলে ভিডিওটির ১০% থেকে ৯০% পর্যন্ত এগিয়ে নিতে পারবেন। আপনি “M” বোতামটি চাপেন ভিডিওটিকে নিঃশব্দ করতে পারবেন। আর ক্যাপশন ফন্টটি বড় করতে চাইলে ‘+’ চাপুন এবং এটি ছোট করতে চাইলে ‘-‘ চাপুন।

১০। ডার্ক মোড সক্রিয় করুনঃ

বছরের প্রথম দিকে ইউটিউব তার ইন্টারফেসে একটি নতুন ডার্ক মোড পরীক্ষা করে। কিন্তু শুরুতে ডার্ক মোড সক্রিয় করা ঝামেলাপূর্ণ ছিল। যাইহোক, ডার্ক মোড এখন যে কেউ ব্যবহার করতে পারেন।

ডার্ক মোড সক্রিয় করার জন্য YouTube এর হোমপেজে যান এবং তারপর Avatar ক্লিক করলে “ডার্ক মোড” নামের একটি অপশন পাবেন ক্লিক করলে ডার্ক মোড সক্রিয় হবে।

১১। ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করুনঃ

সরাসরি ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করার কোন অপশন নাই। কিন্তু তাই বলে ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করা যাবে না তা নয়। দেখে নিন কিভাবে সহজ এবং নিরাপদ উপায়ে আপনার মনের মতো কোয়ালিটি ও ভাইরাস মুক্ত ভিডিও ডাউনলোড করবেন।

কিভাবে করবেন

  • প্রথমে ইউটিউবে যান এবং আপনার পছন্দের ভিডিওটিতে ক্লিক করুন।
  • উপরের URL বারে আপনার ওপেন করা ভিডিওর একটি লিংক পাবেন। আপনাকে যেটা করতে হবে youtube এর শুরুতে ss টাইপ করতে হবে এবং তারপর Enter চাপুন। উদাহরণস্বরূপ, আপনার ভিডিও লিংকটি যদি হয় http://www.youtube.com/watch?v=….., তাহলে পরিবর্তিত URL হবে http://www.ssyoutube.com/watch?v=….
  • এটি আপনার ব্রাউজারকে SaveFrom.netসাইটে রিডিরেক্ট করবে।
  • ডানদিকের ডাউনলোড লিংক হতে আপনার পছন্দের ফরম্যাটটি নির্বাচন করুন এবং লিংকটিতে ক্লিক করুন। ব্যস ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড শুরু হয়ে যাবে।

শেষকথা

উপরে ২০১৭ সালের সেরা ইউটিউব টিপস দেয়া হল যা আপনার ভিডিও স্ট্রিমিং এর সময় ইউটিউবের উপর ব্যতিক্রমধর্মী অভিজ্ঞতা হবে। পোস্টটি ভাল লাগলে লাইক ও কমেন্ট করুন এবং বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

Leave a Reply