কেন অ্যাপেল ডিভাইসের দাম সব সময় আকাশ ছোঁয়াই হবে?

0
129

টিআইবিঃ iPhone X-এর আউটলুক গত বছর রীতিমত সাড়া ফেলে দিয়েছিল প্রযুক্তি বিশ্বে। যার ট্রেন্ড আজও তরতাজা। সমস্ত স্মার্টফোন কোম্পানি হুবহু নকল করে ব্যবসায় গতি নিয়ে এসেছে, বলা বাহুল্য। কিন্তু কেন তুলনামুলক ভাবে দাম বেশি হয় আইফোনের?

বিশেষজ্ঞদের মতে,
১। ফোনটি দীর্ঘজীবি,
২। কাজের মাঝে থমকে যায় না,
৩। দুর্ঘটনার কবলে না পড়লে কেনার দিন থেকে দীর্ঘ বহুদিন ক্যামেরা থেকে ব্যাটারি ব্যাকআপ, সমস্তটাই একইরকম থাকে, ভিডিও রেকর্ডিং হোক বা ফোন কল, নিজের থেকেই নয়েজ সরিয়ে দিতে সক্ষম আইফোন। কোয়ালিটিতে আপোষ করে না অ্যাপেল।
৪। অবশ্যই বিশ্ব জুড়ে ব্র্যান্ডভ্যালু রয়েছে এই সংস্থার।

সাধারণত দেখা যায় যে আপডেটেড ফোন সাধ্যের মধ্যে না হলে পুরোনো অ্যাপেলের মডেল কিনে থাকেন গ্রাহকরা। অন্য কোনো ফোনের ক্ষেত্রে এমন হদিশ পাওয়া যায় না। সে স্যামসাং হলেও নয়। ট্রিলিয়ান ডলার ব্যবসা করেছে কুপারটিনোর টেক জায়েন্ট অ্যাপেল। সুতরাং, দাম কমবে, এইরকম গুজবের ইতি লঞ্চের আগেই ঘটতে পারে। অ্যাপেলের স্ট্র্যাটেজি অনুযায়ী দাম বাড়বে বই কমবে না। সুতরাং কাল থেকেই মিমের ঝড় উঠল বলে, ‘কিডনি বেঁচে সাধ পূরণ করব আইফোন কেনার’।

ফরেস্টার রিসার্চ এর টমাস হুসন মতামত দিয়েছেন, যে বিজ্ঞানকে আয়ত্ত করে অ্যাপেল নিজের প্রোডাক্ট বানিয়ে তাকে জীবনের অঙ্গ করে তুলেছে। তিনি ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে মেলের মাধ্যমে জানিয়েছেন, “সম্ভবত আইফোন এক্স ডিজাইনটিকে আরও প্রসারিত করবে এবং স্ক্রিন এবং ডিসপ্লে বা ক্যামেরায় বৈপরীত্য দেখা দিতে পারে।” তিনি আরও বলেন, “তবে এই মাত্র আশা না করাই ভালো যে অনেক কিছু নতুন ফিচার থাকবে ফোনটিতে, ৬.১ ইঞ্চির ফোনটিতেও কি থাকতে পারে তা নিয়েও যথেষ্ট সন্দেহ আছে।”

এর মানে এই নয় যে অ্যাপলের কোনও বাজেট ফোন থাকবে না। পুরানো মডেল হলেও বাজারে আর পাঁচটা ফোনের তুলনায় তরতাজা অ্যাপেলের সেটগুলি এখন বাজেট ফ্রেন্ডলি। বিশ্ব জুড়ে যা আজও সাড়া জাগিয়ে চলেছে। তথাকথিত গ্যাজেট দুনিয়ায় অ্যাপেল ফোনগুলির একটা ‘হিরো প্রভাব’ রয়েছে। যার ফলে ক্রেতাদের মধ্যে আইফোন নিয়ে একটা উচ্চকাঙ্ক্ষা থাকে। এবারের ইউনিক ঘটনা, এই প্রথমবার গোদা ৫ ইঞ্চির ডিসপ্লে থেকে বেরিয়েছে অ্যাপেল।

Leave a Reply