মাইক্রোসফট ওয়ার্ড: প্রাথমিক ধারণা ও ইনস্টলেশন পদ্ধতি

1
192

টিআইবিঃ প্রতিদিন কম্পিউটারে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত সফটওয়্যারটির নাম মাইক্রোসফট ওয়ার্ড। সফটওয়্যার জায়ান্ট মাইক্রোসফটের এ অ্যাপ্লিকেশনের সঙ্গে পরিচয় নেই এমন কম্পিউটার ব্যবহারকারী সম্ভবত খুঁজে পাওয়া যাবে না।

মাইক্রোসফট ওয়ার্ড মূলত একটি ওয়ার্ড প্রসেসিং সফটওয়্যার। এটির সাহায্যে লেখা থেকে শুরু করে প্রিন্ট দেওয়া, ডিজাইন করা, বই তৈরি করা ছাড়াও অনেক কাজ করা হয়ে থাকে। খুব সহজে মাইক্রোসফট ওয়ার্ড অ্যাপ্লিকশনটি ব্যবহার করা যায়। ফলে কম্পিউটার সর্ম্পকে সামান্য ধারণা থাকলে যে কেউ এটি ব্যবহার করতে পারবেন।

এমএস ওয়ার্ড বা মাইক্রোসফট ওয়ার্ডঃ

মাইক্রোসফট ওয়ার্ড হল একটি অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যারের নাম। আমেরিকার বিখ্যাত মাইক্রোসফট কর্পোরেশন কর্তৃক বাজারজাতকৃত Microsoft Word -কে সংক্ষেপে MS-Word বলে। এমএস ওয়ার্ড, উইন্ডোজ এর অধীনে একটি ওয়ার্ড প্রসেসিং প্যাকেজ প্রোগ্রাম। মাইক্রোসফট এর যে সফটওয়্যারের মাধ্যমে কম্পিটারে লেখা লেখির কাজ করা হয় তাকেই মাইক্রোসফট ওয়ার্ড বলে।

আজকে আমরা মাইক্রোসফটের এ যুগান্তকারী উদ্ভাবনের খুটিনাটি থেকে শুরু করে ব্যবহারবিধি তুলে ধরা হলো। মাইক্রোসফট ওয়ার্ড দিয়ে যে  কাজগুলো করা যায়?

১. প্রয়োজনীয় যে কোনো তথ্য টেক্সট আকারে সেইভ করে রাখা যায়।
২. লেখালেখি করা, চিঠিপত্র টাইপ করা ও প্রিন্ট করা।
৩. বিভিন্ন ডিজাইন করা।
৪. টেবিল তৈরি করা।
৫. ব্যক্তিগত নোট তৈরি কিংবা ডায়াগ্রামের সাহায্যে কোনো তথ্যকে তুলে ধরা।

মাইক্রোসফট অফিস ইনস্টল করার পদ্ধতিঃ

মাইক্রোসফট অফিস সফটওয়্যারটি ব্যবহারের আগে এটি ইনস্টল করতে হবে। কিভাবে ইনস্টল করাতে হবে নিচে তা তুলে ধরা হলো। এখানে মাইক্রোসফট অফিস ২০১০ ইনস্টল পদ্ধতি দেখানো হল। এটি ইন্সটল করার পদ্ধতি অন্যান্য সংস্করণগুলোর মতো প্রায় একই।

  • ইনস্টলের জন্য প্রথমে মাইক্রোসফট অফিস সফটওয়্যারটির ফোল্ডারে যেতে হবে।
  • এরপর সেখানে থেকে “Setup” ফাইলটিতে ক্লিক করতে হবে।
  • এরপর নতুন একটি উইন্ডো ওপেন হবে। এতে সফটওয়্যারটির অন্যান্য ফিচারগুলো দেখা যাবে।
  • সেখান থেকে সবার নিচে ‘মাইক্রোসফট অফিস-২০১০’ সিলেক্ট করে ‘Continue’-তে ক্লিক করতে হবে।
  • এরপর নতুন একটি উইন্ডোতে ইনস্টলের শর্তের অপসনে I agree সিলেক্ট করে ‘Continue’-তে ক্লিক করতে হবে।
  • তারপর ‘Install now’ এ ক্লিক করতে হবে।
  • তখন ইনস্টল শুরু হবে।
  • সর্ম্পূন ইনস্টল শেষ হতে পুরো কিছুটা সময় লাগবে।
  • ইনস্টল শেষ হলে কাজ করার জন্য প্রস্তুত হয়ে যাবে মাইক্রোসফট ওয়ার্ড।
  • কম্পিউটার রিস্টার্ট দিয়ে Start এ গিয়ে All Programs থেকে Microsoft Office এবং সেখান থেকে Microsoft Office Word 2010-তে গিয়ে তা ওপেন করতে হবে।
  • এরপর ওয়ার্সের একটি ফাইল খুললে সেখানে লেখালেখি শুরু করা যাবে।

পরের পোস্টগুলোতে মাইক্রোসফটের বেসিক কিছু ধারণা তুলে ধরা হবে।

১টি মন্তব্য

  1. […] এ পোস্ট। গত পর্বে আলোচনা করা হয়েছিল মাইক্রোসফট ওয়ার্ড এর প্রাথমিক ধারণা… সর্ম্পকে। এ পর্বে থাকছে মাইক্রোসফট […]

Leave a Reply