টিআইবি: আসসালামু আলাইকুম। প্রতি বছর জুলাই থেকে ৩০ নভেম্বরের মধ্যে ব্যক্তি শ্রেণীর করদাতাদের আয়-ব্যয়ের বার্ষিক প্রতিবেদন জমা দিতে হয় রাজস্ব বোর্ডের কাছে। নিদিষ্ট সার্কেলে নিদিষ্ট ফরমে দিতে হয় আয়কর রিটার্ন।

এর ধারাবাহিকতায় এ বছরও আয়কর রিটার্নের প্রায় শেষ প্রান্তে আমরা উপস্থিত হয়েছি। আমার মত অনেকেই মেলায় গিয়ে বা দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে আয়কর রিটার্ন জমা দিতে অস্বস্তি বা বিরক্তি অনুভব করেন। আর তাদের জন্যই আজকে আমাদের পোস্ট কিভাবে অনলাইনে আয়কর রিটার্ন জমা দিবেন? আশা করি এ বছর না হলেও ভবিষ্যতে পোস্টটি আপনাদের কাজে লাগবে।

আয়কর কি?

আয়কর হচ্ছে ব্যক্তি বা সত্ত্বার আয় বা লভ্যাংশরে উপর প্রদেয় কর । আয়কর অধ্যাদেশ ১৯৮৪ এর আওতায় কর বলতে অধ্যাদেশ অনুযায়ী প্রদেয় আয়কর, অতিরিক্ত কর, বাড়তি লাভের কর, এতদ সংক্রান্ত জরিমানা, সুদ বা আদায় যোগ্য অর্থকে বুঝায়।

অন্যভাবে বলা যায় যে, কর হচ্ছে রাষ্ট্রের সকল জনসাধারনের স্বার্থে রাষ্ট্রের ব্যয় নির্বাহের জন্য সরকারকে প্রদত্ত বাধ্যতামূলক অর্থ। আর সাধারণ অর্থে যাদের উপর কর আরোপ করা হয় তাদেরকে বলা হয় করদাতা।

আয়কর বিশেষ অর্থে আয় থেকে কর। সরকারি, বেসরকারি, নিবন্ধিত প্রতিষ্ঠান এর কর্মচারী এবং কর্মকর্তাদের উপর সাধারণত আয়কর আরোপ করা হয় বিধিসম্মত নিয়মে। আয়কর হচ্ছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উৎস সরকারি অর্থায়ন এর ক্ষেত্রে।

আয়কর রিটার্ন হল আপনার আয়-ব্যয় এর একটি বার্ষিক প্রতিবেদন যা আপনাকে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড এর নির্দিষ্ট একটি ছকে পূরণ করে জমা দিতে হয়। আয়কর জমা দেয়ার প্রথম ধাপ হল আপনার একটা আয়কর রিটার্ন জমা দিতে হবে।

কোন ব্যক্তি আয়কর প্রদানের জন্য উপযুক্ত?

অর্থ আইন ২০১৫ এর আওতায় প্রত্যেক ব্যক্তি করদাতা (অনিবাসী বাংলাদেশী সহ), হিন্দু যৌথ পরিবার, অংশীদারী ফার্ম, ব্যক্তি সংঘ এবং আইনের দ্বারা সৃষ্ট কৃত্রিম ব্যক্তির আয়ের সীমা ২,৫০,০০০/= টাকার উপরে হলে আয়কর প্রদানের জন্য উপযুক্ত বলে বিবেচিত হবেন। তবে-

(১) মহিলা এবং ৬৫ বৎসর বা তদুর্ধ বয়সের ব্যক্তি করদাতা আয় ৩,০০,০০০/= টাকা এর উপরে হলে তিনি আয়কর প্রদানের উপযুক্ত হবেন।

(২) প্রতিবন্ধি করদাতা আয় ৩,৭৫,০০০/= টাকা এর উপরে হলে তিনি আয়কর প্রদানের উপযুক্ত হবেন।

(৩) গেজেট ভুক্ত যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা করদাতার আয় সীমা ৪,২৫,০০০/= টাকা এর উপরে হলে তিনি আয়কর প্রদানের উপযুক্ত হবেন।

ন্যূনতম কর কত?

অর্থ আইন ২০১৫ মোতাবেক সাধারণভাবে করমুক্ত আয়ের সীমা ১,৫০,০০০/= টাকা। করমুক্ত আয়ের সীমা অতিক্রম করলে করদাতাকে এলাকা ভেদে ন্যূনতম যে কর পরিশোধ করতে হয়  তাকে ন্যূনতম কর বলে। ন্যূনতম করের পরিমান যথাক্রমে

  • ঢাকা ও চট্রগ্রাম সিটি কর্পোরেশন এরিয়ার জন্য ৫০০০/= টাকা,
  • অন্য সিটি কর্পোরেশন এরিয়ার জন্য ৪০০০/= টাকা,
  • সিটি কর্পোরেশন এর বাইরে অন্য যেকোনো এরিয়ার জন্য ৩০০০/= টাকা।

কিভাবে অনলাইনে আয়কর রিটার্ন জমা দিবেন?

আয়কর, ভ্যাট এবং অন্যান্য শুল্ক অনলাইনে পরিশোধের জন্য জাতীয় রাজস্ব বোর্ড বা এনবিআর অনলাইন পেমেন্ট সার্ভিস চালু করেছে। এর মাধ্যমে যে কেউ ক্রেডিট কার্ড, ডেবিট কার্ড, ক্যাশ কার্ড বা অনলাইন ব্যাংকিং এর মাধ্যমে শুল্ক পরিশোধ করতে পারবেন। অন্য ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকেও কর দেয়া যাবে।

ভিডিওটি দেখুন কিভাবে অনলাইনে আয়কর রিটার্ন জমা দিবেন?

আশা করি পোস্টটি আপনাদের ভাল লেগেছে। নিজে অনলাইনে আয়কর রিটার্ন জমা দিন এবং অন্যকে দিতে সাহায্য করার জন্য পোস্টটি শেয়ার করুন। সবাই ভালো থাকবেন। আল্লাহ হাফেজ।

Leave a Reply