টিআইবি: আসসালামু আলাইকুম। ডট বাংলা (.বাংলা) ডোমেইন বাংলাদেশের দ্বিতীয় কান্ট্রি কোড টপ-লেভেল ডোমেইন (সিসিটিএলডি) ccTLD। দেশের প্রথম সিসিটিএলডি হচ্ছে .bd (ডট বিডি)। বাংলা ভাষায় ওয়েব ঠিকানা বুঝাতে এই এক্সটেনশন বা সংযোজিত অংশ ব্যবহৃত হবে। বাংলাদেশ ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয় এই ডোমেইন পরিচালনা করে এবং বিটিসিএল .বাংলা ডোমেইন বিক্রি করে থাকে।

ডট বাংলা (.বাংলা) ডোমেইন কি?

ডট বাংলা ডোমেইন কি জানার আগে আমাদেরকে ডোমেইন কি তা জানতে হবে? তাহলে আমরা সহজে .বাংলা ডোমেইন কি সেটা বুঝতে পারবো। ইন্টারনেট ব্রাউজের সময় আমরা কি করি? আমরা ওয়েব ব্রাউজারের অ্যাড্রেস বারে ইউআরএল (URL) বা web address ইংরেজি অক্ষরে লিখি অথবা চীনারা ম্যান্ডারিন অক্ষরে লিখে, যেমন- facebook.com, google.com, .公司 (“.com” in Chinese) এবং .网络 (“.net” in Chinese)। .বাংলা বিষয়টা হচ্ছে ঠিক এটার মতই। যেখানে ইংরেজরা লিখে .com এবং চাইনিজরা লিখে .公司 এবার থেকে আমরা ওয়েব ব্রাউজারের অ্যাড্রেস বারে ইউআরএল বাংলায় লিখবো .বাংলা। বেপারটা সত্যিই অনেক গর্বের এবং সহজবোধ্য।

আমরা এই .বাংলা লিখবো ইউনিকোড ব্যবহার করে। আমরা আমাদের মাতৃভাষায় ডোমেইন লিখে এন্টার বাটনে ক্লিক করলেই চলে আসবে ওয়েবসাইট। ইন্টারনেটে একটি রাষ্ট্রের জাতীয় পরিচয়ের স্বীকৃতি হিসেবে কাজ করে এই ডোমেইন। যেমন .us (ডট ইউএস) ডোমেইন নামের কোনো ওয়েবসাইট দেখলে বুঝা যায় সেটি যুক্তরাষ্ট্রের ওয়েবসাইট। তেমনি .বাংলা (ডট বাংলা) লেখা কোন ওয়েব সাইট দেখলে সবাই বুঝবে এটা বাংলাদেশের সাইট। ডট বাংলা ডোমেইন দ্বারা তৈরি একটি ওয়েবসাইট উত্তরাধিকারী .বাংলা দেখলে বিষয়টি আরো পরিষ্কার হবে।

ডট বাংলা ডোমেইনের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস:

অনেক নাটকীয়তার পরে আমরা আমাদের কাক্ষিত .বাংলা ডোমেইনটি পেয়েছি। ভারত সরকার ২০১২ সালে এই ডোমেইনটির ব্যবহারের অধিকার পেতে বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের পক্ষে আইসিএএনএনের (ICANN) কাছে আবেদন করে। একই বছর বাংলাদেশ সরকার এর বাংলাদেশ ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয় ডোমেইনটির জন্য আবেদন করেন। বিভিন্ন দিক বিচার বিশ্লেষন করে আইসিএএনএন .বাংলা ডোমেইনটি বাংলাদেশকে বরাদ্দ দেয়।

২০১২ সালে ডোমেইনটি বরাদ্দ পাওয়ার পরেও ২০১৫ সাল পর্যন্ত এর কার্যক্রম শুরু করতে পারেনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। যার ফলস্বরুপ ২০১৫ সালের জুন মাসে বাংলাদেশ ডোমেইনটি ব্যবহারের অধিকার হারায়। ডোমেইনটি “নট অ্যাসাইনড” হওয়ার পরে সরকারের সব মহলে টনক নড়ে। বিভিন্ন গণমাধ্যম এবং তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ মহল ক্ষোভ এবং বিস্ময় প্রকাশ করেন।

ভারতের পাশাপাশি সিয়েরা লিওনও .বাংলা ডোমেইন এর জন্য আবেদন করে। তারপর আবার ডোমেইন পুনরুদ্ধারের যুদ্ধে নামে বাংলাদেশের ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ। আমরা বাঙ্গালি, দেশের নাম বাংলাদেশ, বাংলা রাষ্ট্র ভাষা। সেই বাংলা ডোমেইন নেম পেয়েও হারাতে হচ্ছে সেটা সত্যি দুঃখজনক বেপার ছিল। বলে রাখা ভালো বাংলা বিশ্বের সর্বাধিক প্রচলিত ভাষাগুলির মধ্যে চতুর্থ স্থান অধিকার করে আছে। বর্তমানে ৩২ কোটি লোকের মুখের ভাষা বাংলা। বাংলাদেশ ও সিয়েরা লিওন এই দুইটি দেশের রাষ্ট্রীয় ভাষা বাংলা। যদি ইংরেজি ও ম্যান্ডারিন তাদের নিজের ভূমিকা ইন্টারনেট জগতে বিস্তার করতে পারে তাহলে বাংলা পিছিয়ে থাকবে কেনো?

বিশ্বে বাংলা ভাষার ভৌগোলিক বিস্তারে ২০১৬ সালের জুন মাসে আইএএনএ তাঁদের ওয়েবসাইটে .বাংলা ডোমেইনটি বাংলাদেশের ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগকে বরাদ্দ দেওয়ার কথা উল্লেখ করে। একই বছরের ১৬ ডিসেম্বর ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় এটি জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়ার কথা বলেন। পরবর্তীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এক অনুষ্ঠানে আনুষ্ঠানিকভাবে .বাংলা ডোমেইনের উদ্বোধন করেন ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ সালে।

কিভাবে ডট বাংলা ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করবেন?

রেজিস্ট্রেশনের জন্য যা যা প্রয়োজন-

  • ইন্টারনেট সংযুক্ত একটি কম্পিউটার
  • National ID কার্ড
  • TIN সার্টিফিকেট
  • Valid ই-মেইল
  • একটি মোবাইল

ডট বাংলা ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করার জন্য নিচের ধাপগুলো  অনুসরণ করতে হবে;

  • প্রথমে ওয়েব ব্রাউজারের অ্যাড্রেস বারে bdia.btcl.com.bd লিখে Enter বাটনে ক্লিক করুন।
  • এরপর Domain Search Button ক্লিক।
  • আপনার ডোমেইন নেম Search for domain বার এ লিখুন এবং .বাংলা সিলেক্ট করে SEARCH বাটনে ক্লিক করুন।
  • Congratulation! আপনার ডোমেইন নেম .বাংলা domain is available লেখাটা আসলে নিচে ২টা বাটনে দেখতে পাবেন।
  • পূর্বে BTCL এর একাউন্ট থাকলে Please Login to continue বাটনে ক্লিক করুন।
  • নতুন ইউজার হলে Please Sign up to continue বাটনে ক্লিক করুন।
  • Service Type এ Domain বাটনে ক্লিক করুন।
  • Registrant Type এ ব্যক্তিগত ডোমেইন হলে Individual এবং কোম্পানি/ সংস্থা/ প্রতিষ্ঠানের হলে Organization/ Institution/ Company বাটনে ক্লিক করুন।
  • Privacy Policy চেক বক্সে ক্লিক করুন।
  • Personal Info গুলো যথাযথভাবে পূরণ করুন এবং প্রয়োজনীয় ফাইল গুলো Upload করুন।
  • সব কিছু ঠিকভাবে পূরণ করে Register বাটনে ক্লিক করলেই আপনার কাঙ্খিত ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন সম্পূর্ণ হবে।

ডট বাংলা (.বাংলা) ডোমেইনের দাম:

নতুন ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন ফি ধরা হয়েছে প্রথম বছরের জন্য ৫০০ টাকা। বার্ষিক নবায়ন ফি ৫০০ টাকা। মালিকানা পরিবর্তন ফি ১,৫০০ টাকা। আমরা যেহেতু অলস জাতি সেই কথা মাথায় রেখে কিছু জরিমানার ব্যবস্থাও রাখা হয়েছে। মেয়াদ শেষ হওয়ার পর ৩০ দিনের মধ্যে নবায়নের জন্য জরিমানা ৫০০ টাকা। মেয়াদ শেষ হওয়ার পর ৯০  দিনের মধ্যে নবায়নের জন্য জরিমানা ১০০০ টাকা।

প্রথম রেজিস্ট্রেশন ২ (দুই) বছরের জন্য বাধ্যতামূলক করা আছে। তার মানে প্রথম বার রেজিস্ট্রেশন করতে গেলে দুই বছরের টাকা এক সাথে পেমেন্ট করে ডোমেইন কিনতে হবে। অর্থাৎ ডোমেইন বাবদ প্রথম দুই বছরের জন্য দিতে হবে (৫০০+৫০০)= ১০০০ টাকা। তাহলে আপনি যদি আজকে ডোমেইন ক্রয় করেন তাহলে পরের বছর আপনাকে আর কোন পেমেন্ট করতে হবে না। তৃতীয় বছর থেকে ডোমেইন রিনিউ করবেন।

ডট বাংলা ডোমেইন এর মূল্য তালিকা:

  • ২ বছরের জন্য ডোমেইন ফি ১০০০ টাকা
  • ৩ বছরের জন্য ডোমেইন ফি ১৫০০ টাকা
  • ৪ বছরের জন্য ডোমেইন ফি ২০০০ টাকা
  • ৫ বছরের জন্য ডোমেইন ফি ২০০০ টাকা
  • ৬ বছরের জন্য ডোমেইন ফি ২৪০০ টাকা
  • ৭ বছরের জন্য ডোমেইন ফি ২৮০০ টাকা
  • ৮ বছরের জন্য ডোমেইন ফি ৩২০০ টাকা
  • ৯ বছরের জন্য ডোমেইন ফি ৩৬০০ টাকা
  • ১০ বছরের জন্য ডোমেইন ফি ৩৫০০ টাকা

শর্ত প্রযোজ্যঃ প্রতিটি ডোমেইন ফি এর সাথে ১৫% ভ্যাট এবং ১০% টেলিটক সার্ভিস চার্জ যোগ হবে। [টেলিটক প্রিপেইড সিম এর মাধ্যমে পে করলে ]

কিভাবে মূল্য পরিশোধ করবেন?

ডট বাংলা ডোমেইন এর মূল্য পরিশোধের জন্য আপনার প্রয়োজন হবে টেলিটক প্রিপেইড সিম। প্রথমে সিমে পর্যাপ্ত পরিমান টাকা রিচার্জ করুন। রিচার্জ করার পরে আপনার মোবাইল মেসেজ অপশনে গিয়ে BTCL<space>INVOICE ID লিখুন এবং পাঠিয়ে দিন 16222 এই নম্বরে। ফিরতি মেসেজে আপনাকে ৮ (আট) সংখ্যার কোড দেয়া হবে।

পুনরায় আবার আপনার মোবাইল এর মেসেজ অপশনে গিয়ে BTCL<space>YES<space>PIN NUMBER ( NUMBER বলতে ৮ সংখ্যার কোড ) লিখুন এবং পাঠিয়ে দিন 16222 এই নম্বরে।

কারা ডট বাংলা ডোমেইন কিনবে পারবেন?

  • ব্যক্তি, ব্লগ, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম।
  • হাসপাতাল, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান (মসজিদ, মন্দির, গির্জা), অলাভজনক বা সেবামূলক সংস্থা।
  • যে কোন ধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান যেমন, স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা, বিশ্ববিদ্যালয় ইত্যাদি।
  • বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, বাণিজ্যিক সংস্থা ও ব্যাংক।
  • সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান।

পরিশেষে বলা যায় চলুন বাংলাকে লালন করতে শিখি।  ডট বাংলা ডোমেইনে নিজের পরিচয় তুলে ধরি বিশ্বের দরবারে আরেকবার। ডট বাংলা ডোমেইন হোক বাংলাদেশের প্রতীক, বাঙালি জাতীয়তার প্রতীক। সবাই ভালো থাকবেন এই কামনায় আল্লাহ হাফেজ।

কার্টেসি: এন হোস্ট বিডি

Leave a Reply