টিআইবিঃ আসসালামু আলাইকুম। তৃণমূল পর্যায়ের মোবাইল ব্যবহারকারী গ্রাহকদের মধ্যে ব্যাংকিং সেবা প্রসারের লক্ষ্যেই পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস চালু হয়েছে। বাংলাদেশও এক্ষেত্রে পিছিয়ে নেই‌। বাংলাদেশের বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি ব্যাংক এখন মোবাইল ব্যাংকিং সেবা চালু করেছে। বাংলাদেশের জনপ্রিয় মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস গুলোর মধ্যে ব্র্যাক ব্যাংকের বিকাশ অন্যতম। আজ আমরা বিকাশ কি এবং বিকাশের মাধ্যমে বিদ্যুৎ পরিশোধে নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত জানব।

বিকাশ বা bKash কি?

বিকাশ ইংরেজি bKash বাংলাদেশে মোবাইল ফোন ভিত্তিক অর্থ আদান প্রদানের একটি সার্ভিস। মোবাইল ফোনে বিকাশ একাউন্ট খুলে একজন গ্রাহক বাংলাদেশের যেকোনো স্থান থেকে তার মোবাইলে অর্থ জমা, উত্তোলন এবং নিজের মোবাইল থেকেই বিভিন্ন ক্ষেত্রে অর্থ স্থানান্তর করতে পারেন।

বাংলাদেশে বিপুল সংখ্যক মোবাইল ফোন ব্যবহারকারী রয়েছে। ব্যাংকিং সেবা দেশের বেশিরভাগ মানুষের কাছে পৌঁছানোর জন্যে দেশব্যাপী বিস্তৃত মোবাইল নেটওয়ার্ক একটি দ্রুত ও দক্ষ মাধ্যম হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে। এমন ধারণা থেকেই ২০০৭ সালে বাংলাদেশে বিকাশ সার্ভিসের উৎপত্তি। বর্তমানে ব্যাপক জনপ্রিয়তার কারণে মোবাইল ব্যাংকিং বলতে সাধারণ জনগণ বিকাশ মনে করে থাকে।

বিকাশ এর বর্তমান সেবা সমূহ:

একজন বিকাশ একাউন্ট হোল্ডার তার বিকাশ একাউন্টে পর্যাপ্ত টাকা থাকলে যেকোন সময় যেকোন জায়গা থেকেই নিচের সেবা সমূহ উপভোগ করতে পারেন।

  • বিকাশ একাউন্ট খোলা
  • একাউন্টে টাকা জমা করা
  • একটি বিকাশ একাউন্ট থেকে আরেকটি বিকাশ একাউন্টে টাকা পাঠানো
  • একাউন্ট থেকে এজেন্ট অথবা ব্র্যাক ব্যাংক এটিএম থেকে টাকা তোলা
  • মোবাইলের এয়ারটাইম কেনা
  • পণ্য কেনাকাটা বা সেবার বিনিময়ে মূল্য পরিশোধ করা
  • বিদেশ থেকে রেমিটেন্স গ্রহণ করা।

কিভাবে বিকাশের মাধ্যমে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করবেন?

বিকাশের বিভিন্ন ধরনের সেবার মধ্যে বিকাশের মাধ্যমে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ একটি নতুন সেবা। আপনার একটি বিকাশ একাউন্ট থাকলে বিদ্যুৎ বিল দেওয়ার জন্য আপনাকে ব্যাংকে গিয়ে লাইন দিতে হবে না বা কোনো এজেন্টের দোকানে গিয়েও ভিড় জমাতে হবে না। ঘরে বসেই এখন বিকাশের মাধ্যমে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করতে পারবেন। আসুন জেনে নেই কিভাবে ঘরে বসে বিকাশের মাধ্যমে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করবেন?

আপনি যে মাসের বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করবেন সেই বিলের সম পরিমাণ টাকা আপনার বিকাশ একাউন্টে থাকতে হবে। এরপর আপনি নিচের ধাপ গুলো অনুসরণ করে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করতে পারবেন।

👉 প্রথমে আপনার মোবাইলে *২৪৭# ডায়াল করুন।

👉 মেনুতে ৫ নাম্বারে পে বিল (Pay Bill) লেখা আসবে। ৫ প্রেস করে Send বাটনে ক্লিক করুন।

👉 এরপর যে মেনু আসবে তার ১ নাম্বারে ইলেকট্রিসিটি (Electricity) লেখা পাবেন। তাই ইলেকট্রিসিটি বিল পরিশোধে জন্য ১ প্রেস করে Send বাটনে ক্লিক করুন।

👉 এবার ১ নাম্বারে পল্লী বিদ্যুৎ (Palli Bidyut) লেখা আসবে। পল্লী বিদ্যুৎ গ্রাহকগণ ১ প্রেস করে Send বাটনে ক্লিক করুন।

👉 এখন যে অপশন আসবে সেখানে ২ নাম্বারে পে বিল (Pay Bill) লেখা আসবে। পে বিল এর জন্য ২ প্রেস করে Send বাটনে ক্লিক করুন।

👉 এখানে ১ নাম্বারে ইনপুট বিল একাউন্ট নাম্বার (Input Bill A/C Number) এর স্থানে ১ প্রেস করে Send বাটনে ক্লিক করুন।

👉 এবার আপনার বিদ্যুৎ বিল এর একাউন্ট নাম্বারটি টাইপ করে Send বাটনে ক্লিক করুন।

👉 এরপর Enter Bill Month and Year এই লেখাটি আসলে সেখানে যে মাসের বিল দেবেন সেই মাসের সংখ্যা এবং বছরের সংখ্যা টাইপ করে Send বাটনে ক্লিক করুন। (যেমন অক্টোবর ২০১৮ এর বিলের জন্য 102018 টাইপ করুন অথবা নভেম্বর ২০১৮ মাসের বিলের জন্য 112018 টাইপ করুন। এখানে বাম দিক থেকে প্রথম ২টা সংখ্যা মাসের এবং পরবর্তী ৪টা সংখ্যা বছরকে প্রকাশ করেছে)

👉 এবার Enter Amount এই লেখাটি আসলে সেখানে বিলের টাকার পরিমাণ টাইপ করে Send বাটনে ক্লিক করুন।

👉 এরপর ডিসপ্লেতে Bill Payment to Palli Bidyut ও বিলের একাউন্ট নাম্বার, মাসের নাম এবং বিলের টাকার পরিমাণ আসবে সেটা ভালো করে মিলিয়ে নিন। সবকিছু ঠিক থাকলে আপনার বিকাশ এর গোপন পিন নম্বর টাইপ করে Send বাটনে ক্লিক করুন।

👉 এখন আপনার মোবাইল ফোনে দুইটা এসএমএস আসবে।
– প্রথমটি আপনার রিকুয়েষ্ট গ্রহণ করা হয়েছে তা জানাবে।
– দ্বিতীয়টিতে আপনার বিল পরিশোধ সম্পন্ন হয়েছে জানিয়ে একটি TRX ID লেখা থাকবে। এখন আপনি সেই TRX ID নাম্বারটি আপনার সেই মাসের বিলের উপর বিল পরিশোধের তারিখ সহ লিখে রাখুন। পরবর্তীতে কোনো সমস্যা হলে এই নাম্বারটি কাজে লাগতে পারে।

Leave a Reply