স্মার্টফোনে ২০১৮ সালের সেরা ১০টি ট্রেন্ড

টিআইবিঃ ২০১৮ সালে স্মার্টফোনে জনপ্রিয় হয়েছে ডিসপ্লের উপরে নচ ও ফেস আনলক ফিচার। এ বছর প্রতি মাসেই লঞ্চ হয়েছে একের পর এক স্মার্টফোন। বাজারে এসেছে Poco F1, ZenFone 5Z এর মতো ফ্ল্যাগশিপ কিলার। বাজেট স্মার্টফোনের বাজারে বাজিমাত করেছে Asus ZenFone Max Pro M1 আর Nokia 6.1 Plus। আগে প্রিমিয়াম স্মার্টফোনে এই ফিচার ব্যবহার হলেও ২০১৮ সালে বাজেট স্মার্টফোনে হাজির হয়েছে এই ফিচারগুলি। প্রিমিয়াম স্মার্টফোনে এসেছে ডিসপ্লের নীচে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সার।

এক নজরে ২০১৮ সালের স্মার্টফোনের সেরা ট্রেন্ডগুলো দেখে নেওয়া যাক।

১। ডিসপ্লের উপরে নচ

প্রথম স্মার্টফোনে অল বডি ডিসপ্লে নিয়ে হাজির হয়েছিল Mi Mix আর Samsung Galaxy S8। এই দুটি ফোন ভবিষ্যতে স্মার্টফোন ডিসপ্লের সংজ্ঞা বদলে দিয়েছে। এর পরে প্রথম ডিসপ্লের উপরে নচ সহ ফুল স্ক্রিন ডিসপ্লে নিজে হাজির হয়েছিল iPhone X। Vivo ও Oppo পপ আপ ও স্লাইডিং ক্যামেরা ডিজাইন বাজারে এনেছে এই বছরেই। কিন্তু প্রায় সব ফোনের ডিসপ্লের উপরেই এই বচ্র একটি নচ দেখা গিয়েছে। এই নচের মধ্যেই ছিল ইয়ারপিস, ফ্রন্ট ক্যামেরা আর প্রয়োজনীয় সব সেন্সার।

২। বাজেট ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন

আগে ফ্ল্যাগশিপ ফোন কিনতে ৫০,০০০ টাকার বেশি খরচ হত। কয়েক বছর আগেও ৩৫,০০০ টাকা থেকে ৪০,০০০ টাকা সেগমেন্টে ফ্ল্যাগশিপ বিক্রি করে বাজিমাত করেছিল OnePlus। সম্প্রতি OnePlus ফোনের দাম ৫০,০০০ টাকা ছাড়িয়ে যাওয়ার কারনেই ৩৫,০০০ টাকা থেকে ৪০,০০০ টাকা সেগমেন্টে এক শূণ্যতার সৃষ্টি হয়েছিল। সেই শূণ্যতা পূরণ করেছে Asus ZenFone 5Z, Xiaomi Poco F1 আর Honor Play এর মতো স্মার্টফোনগুলি। তুলনামুলক কম দামে ফ্ল্যাগশিপ কনফিগারেশান দিয়ে এই ফোনগুলিও এই সেগমেন্টে বাজারের দখজন নিয়েছে। ZenFone 5Z ও Poco F1 ফোনে রয়েছে Snapdragon 845 চিপসেট আর 8GB পর্যন্ত RAM।

৩। আর্টিফিশিয়াল ইন্টিলিজেন্স

লেটেস্ট হার্ডওয়্যারের সাথেই ২০১৮ সালে স্মার্টফোনের হট টপিক ছিল আর্টিফিশিয়াল ইন্টিলিজেন্স। এই বছর লঞ্চ হওয়া প্রায় সব চিপসেটেই আর্টিফিশিয়াল ইন্টিলিজেন্স প্রসেসিং এর জন্য আলাদা নিউরাল প্রসেসিং ইঞ্জিন (NPU) ব্যবহার হতে দেখা গিয়েছে। লেটেস্ট Kirin 980, Snapdragon 855 চিপসেটে এই মডিউল ব্যবহার হয়েছে।

৪। ব্যাক গ্লাস

iPhone X, Samsung Galaxy S সিরিজের স্মার্টফোনের জনপ্রিয়তার পরে মেটাল থেকে ফোনের পিছনে গ্লাসের ব্যবহার শুরু হয়েছে। হাই এন্ড স্মার্টফোনের সাথেই Nokia 5.1 Plus, Honor 8X আর Realme C1 এর মতো বাজেট স্মার্টফোনে গ্লাস ব্যাক দেখা গিয়েছে।

ওয়্যারলেস চার্জিং ও ভালো অ্যান্টেনা রিসেপশানের জন্য ফোনের পিছনে গ্লাসের ব্যবহার বেড়েছে। এছাড়াও এই ডিজাইন প্রিমিয়াম ফিল দিয়েছে স্মার্টফোনকে।

৫। Android One / স্টক অ্যানড্রয়েডের জনপ্রিয়তা

এতদিন Motorola, Nexus ও Pixel স্মার্টফোনে স্টক অ্যানড্রয়েড দেখা যেত। বেশ কয়েক বছর হল Google এর Android One প্রোগ্রাম সামনে এসেছে। এই প্রোগ্রামের অধীনে স্মার্টফোনের হার্ডওয়্যারের দায়িত্বে থাকে বিভিন্ন স্মার্টফোন প্রস্তুতকারী কোম্পানি কিন্তু সফটওয়্যার ডেভেলপ করে Google নিজে।

২০১৮ সালে হঠাৎ জনপ্রিয়তার শিখরে পৌঁছায় Google এর Android One প্রোগ্রাম। ২০১৭ সালে Mi A1 ফোনের হাত ধরে Xiaomi প্রথম Android One স্মার্টফোন বাজারে এনেছিল। এরপরে ২০১৮ সালে Xiaomi, Nokia, Motorola সহ একের পর এক জনপ্রিয় স্মার্টফোন প্রস্তুতকারী সংস্থা একের পর এক Android One স্মার্টফোন বাজারে এনেছে। এই সব ফোনেই স্টক অ্যানড্রয়েড প্রিলোডেড থাকে।

৬। ডিসপ্লের নীচে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সার

বেজেল লেস ডিসপ্লের স্মার্টফোন তৈরীর জন্য ২০১৮ সালে একাধিক স্মার্টফোনে ডিসপ্লে নীচে পৌঁছেছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সার। ২০১৮ সালে সব স্মার্টফোনে অপ্টিকাল ইন ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সার দেখা গিয়েছে। প্রধানত প্রিমিয়াম স্মার্টফোনে এখনও এই ফিচার দেখা গিয়েছে।

৭। USB Type-C পোর্টের জনপ্রিয়তা

২০১৪ সাল থেকে স্মার্টফোনে USB Type-C পোর্ট ব্যবহার শুরু হলেও ২০১৮ সালে তা জনপ্রিয়তার শীর্ষে পৌঁছেছে। আগে হাতে গোনা কিছু ফ্ল্যাগশিপ ফোনে এই পোর্ট ব্যবহার হলেও এই বছরেই একের পর এক বাজেট ও মিডরেঞ্জ স্মার্টফোন USB Type-C পোর্ট ব্যবহার শুরু হয়।

৮। ফাস্ট চার্জিং এর জনপ্রিয়তা

USB Type-C পোর্টের জনপ্রিয়তার সাথেই এই বছর একাধিক বাজেট ও মিডরেঞ্জ ফোনে ফাস্ট চার্জিং পৌঁছাতে শুরু করে। আগে শুধুমাত্র প্রিমিয়াম স্মার্টফোনেই এই ফিচার দেখা যেত। Qualcomm Quick Charge প্রযুক্তি ছাড়াও ২০১৮ সালে সামনে এসেছে VOOC সুপার ফাস্ট চার্জিং টেকনোলজি। এই টেকনোলজিতে মাত্র ৩০ মিনিটে Oppo স্মার্টফোন ০ থেকে ৭৫ শতাংশ চার্জ হয়।

এছাড়াও সম্প্রতি OnePlus সামনে এনেছে Wrap চার্জিং টেকনোলজি। এই টেকনোলজিতে OnePlus 6T McLaren Edition স্মার্টফোন ০ থেকে ৫০ শতাংশ চার্জ হতে সময় লাগে মাত্র ২০ মিনিট।

৯। একাধিক ক্যামেরার ব্যবহার

২০১৮ সালে লঞ্চ হওয়া প্রায় সব স্মার্টফোনে অন্তত দুটি রিয়ার ক্যামেরা দেখা গিয়েছে। বছরের শুরুতে লঞ্চ হওয়া Huawei P20 Pro ফোনে প্রথম তিনটি ক্যামেরা দেখা যায়। পরে Huawei Mate 20 Pro, Samsung Galaxy A7 (2018), Oppo R17 Pro ফোনের পিছনেও তিনটি করে ক্যামেরা দেখা গিয়েছে। যদিও এই সব ফোনকে ছাপিয়ে ২০১৮ সালে চারটি রিয়ার ক্যামেরা সহ লঞ্চ হয়েছে Samsung Galaxy A9 (2018)।

১০। ভারতীয় স্মার্টফোন কোম্পানিগুলির হারিয়ে যাওয়া

২০১৭ সালের শেষ থেকে ভারতে জনপ্রিয় হতে শুরু করেছিল চীনের স্মার্টফোন ব্র্যান্ডগুলি। ভারতের Micromax, iBall আর Intex এর মতো ব্র্যান্ডগুলিকে সরিয়ে ২০১৮ সালে ভারত ও বাংলাদেশের স্মার্টফোন বাজারের দখল নিয়েছে Xiaomi, Realme, Oppo আর Vivo –র মতো চীনের স্মার্টফোন কোম্পানিগুলি।

Leave a Reply