সুদ আদায় না করেই ব্যাংকের আয় খাতে দেখানো যাবে না

পুনঃতফসিল করা ঋণ আদায় না করেই আরোপিত সুদ আয় খাতে দেখাচ্ছে ব্যাংকগুলো। এতে ব্যাংকের আয় বেশি দেখানো হচ্ছে এবং ব্যাংকের মূলধন ভিত্তি দুর্বল হচ্ছে। এখন আর পুনঃতফসিল করা ঋণের বিপরীতে আরোপিত সুদ আদায় না করে ব্যাংকের আয় খাতে দেখানো যাবে না।

বৃহস্পতিবার (৭ এপ্রিল) বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ থেকে এমন নির্দেশনা জারি করা হয়েছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনায় বলা হয়েছে, নিয়ম অনুযায়ী পুনঃতফসিলকৃত ঋণের বিপরীতে প্রকৃত আদায় ব্যতিরেকে আরােপিত সুদ ব্যাংকের আয় খাতে স্থানান্তর করা যাবে না।

টেকনো ইনফো বিডি‘র প্রিয় পাঠক: প্রযুক্তি, ব্যাংকিং ও চাকরির গুরুত্বপূর্ণ খবরের আপডেট পেতে আমাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ টেকনো ইনফো বিডি তে লাইক দিয়ে আমাদের সাথেই থাকুন।

সম্প্রতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে, কতিপয় ব্যাংক প্রকৃত আদায় ব্যতিরেকে পুনঃতফসিলকৃত ঋণের আরােপিত সুদ আয় খাতে স্থানান্তর করছে। ফলে প্রকৃত অবস্থা অপেক্ষা ব্যাংকের আয় স্থিতভাবে প্রদর্শিত হচ্ছে এবং ব্যাংকের মূলধন ভিত্তি দুর্বল হচ্ছে। এ ধরনের কার্যক্রম সার্কুলারে বর্ণিত নির্দেশনার লঙ্ঘন এবং ব্যাংকিং খাতে সার্বিক ঋণ শৃঙ্খলার পরিপন্থী।

👉 ঈদে নতুন টাকা পাওয়া যাবে যেসব ব্যাংকে

নির্দেশনায় আরও বলা হয়, ব্যাংকসমূহের আর্থিক অবস্থার প্রকৃত চিত্রের প্রতিফলন নিশ্চিতকরণ, মূলধন সুসংহতকরণ এবং ব্যাংকিং খাতে সার্বিক ঋণ শৃঙ্খলার স্বার্থে এ মর্মে নির্দেশনা প্রদান করা যাচ্ছে যে, পুনঃতফসিলকৃত ঋণের বিপরীতে আরােপিত সুদ প্রকৃত আদায় ব্যতিরেকে কোনোভাবেই ব্যাংকের আয় খাতে স্থানান্তর করা যাবে না। ব্যাংক কোম্পানি আইন-১৯৯১ এর ৪৫ ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে এ নির্দেশনা জারি করা হলাে।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button