সোনালী ব্যাংকের রাজশাহী বিভাগীয় ব্যবসা উন্নয়ন সম্মলন ২০২১ অনুষ্ঠিত

0

সোনালী ব্যাংক লিমিটেড, জেনারেল ম্যানেজার’স অফিস, রাজশাহী এর আওতাধীন প্রিন্সিপাল অফিস, রাজশাহী, বগুড়া, নওগাঁ,পাবনা, সিরাজগঞ্জ, নাটোর,আঞ্চলিক কার্যালয় চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও জয়পুরহাটের অঞ্চল প্রধান এবং রাজশাহী কর্পোরেট ও বগুড়া কর্পোরেট শাখা প্রধানসহ সকল শাখা প্রধানগণের অংশগ্রহণে ব্যবসায়িক মতবিনিময় সভা-২০২১, ২৩ জানুয়ারি-২০২১ তারিখে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যলয় সিনেট ভবন, রাজশাহীতে অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত ব্যবসায়িক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালি উপস্থিত ছিলেন সোনালী ব্যাংক লিমিটেড এর সিইও এন্ড ম্যানেজিং ডিরেক্টর মোঃ আতাউর রহমান প্রধান, বিশেষ অতিথি হিসেবে সরেজমিনে উপস্থিত ছিলেন ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর জনাব মোঃ মুরশেদুল কবীর, কোম্পানি সেক্রেটারি জনাব তাওহিদুল ইসলাম । উক্ত সভায় সভাপতিত্ব করেন রাজশাহী বিভাগীয় জেনারেল ম্যানেজার(ইনচার্জ) জনাব মীর হাসান মোহাঃ জাহিদ।

অতঃপর মতবিনিময় সভায় (ভার্চুয়ালি সংযুক্ত) প্রধান অতিথি রাজশাহী বিভাগের বিভিন্ন ব্যাবসায়িক সূচকে সোনালী ব্যাংককে দেশের বৃহওম বাণিজ্যিক ব্যাংক হিসেবে উলে‘খ করে সরকারের উন্নয়নের অংশীদার হিসেবে সোনালী ব্যাংকের বিশেষ অবদানের বিষয়ে আলোকপাত করেন এবং বলেন সোনালী ব্যাংকের বর্তমান অবস্থা বেশ মজবুত যা ধরে রেখে সরকারের ভিশন ২০২১ ও ২০৪১ এর রূপকল্পের আলোকে দেশকে অর্থনৈতিক উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডে এবং কর্মসংস্থান ও দারিদ্র বিমোচন কর্মকান্ডে আরো গুনগত ঋণ প্রবাহ বৃদ্ধির মাধ্যমে দেশের উন্নয়নে সোনালী ব্যাংকের ভুমিকা আরো প্রসারিত করার বিষয়ে অবদান রাখতে সকল কর্মকর্তাকে নির্দেশনা দেন। বিশেষকরে সরকারের করোনা প্রনোদনা মূলক সিএমএসএমই ঋণ বিতরনের লক্ষ্যমাত্রা শতভাগের অধিক অর্জন সংশ্লিষ্ট অঞ্চল প্রধান ও কর্মকর্তাবৃন্দকে বিশেষভাবে ধন্যবাদ দেন।

অত:পর ব্যবসায়িক মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি রাজশাহী বিভাগের আটটি অঞ্চলের সকল শাখার ডিসেম্বর/২০২০ পর্যন্ত অর্জিত ব্যবসায়িক অবস্থা পর্যালোচনাপূর্বক তা আশাব্যঞ্জক হওয়ায় বর্তমান বছরেও তা অব্যাহত রেখে বিনিয়োগ বৃদ্ধিসহ অন্যান্য লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সবাইকে তৎপর হওয়ার জন্য পরামর্শ প্রদান করেন। তিনি ব্যাংকের স্থানীয় শক্তি, সুযোগ, দূর্বলতা ও হুমকি বিশ্লেষণ করে রাজশাহী বিভাগের ব্যবসায়িক লক্ষ্য ও কৌশল নির্ধারণসহ কর্মপরিকল্পনা গ্রহণের উপর গুরুত্বারোপ করেন। শাখাসমূহকে গুণগত ঋণ প্রবাহ বাড়ানোর তাগিদ প্রদান করেন। খেলাপী ঋণ কমিয়ে যত দ্রুত সম্ভব ব্যাংকটি গ্রাহকসেবারমান নিশ্চিতকরনসহ বিনিয়োগবান্ধব করার নির্দেশ প্রদান করেন। শহরের পাশাপাশি গ্রামেও গুণগত ঋণ বিতরণ, গ্রামের সাধারণ গ্রাহকদের মাঝে ব্যাংকের সেবাসমূহ পৌঁছে দেয়া, আমানত সংগ্রহ, সম্ভাবনাময় স্থানে নতুন শাখা খোলা, বিনিয়োগ, ঋণপ্রদান সহ ব্যাংকিং খাতে বিভিন্ন সূচকে গত বছর সোনালী ব্যাংক শীর্ষে অবস্থান করেছে মর্মে উল্লেখ করে এই বছরেও সূচকগুলোকে আরোও উন্নত ও স্থায়ী করার তাগিদ প্রদান করেন। দেশের অর্থনৈতিক কর্মকান্ড বৃদ্ধির লক্ষ্যে নতুন সম্ভাবনাময় উদ্যোক্তা নির্বাচন করে সিএমএসএমই ঋণ প্রদান, এসএমই খাতসহ সকল খাতে বিনিয়োগ বৃদ্ধি, প্রতি শাখায় প্রতি মাসে ০১টি করে এসএমই ঋণ বিতরণ, ব্যক্তি পর্যায়ে এবং সরকারী কর্মচারীদের জন্যও আবাসিক গৃহ নির্মাণ ঋণ এর আওতায় শহর ও পল্লী এলাকায় গৃহ নির্মাণ ঋণ বিতরণের উপর গুরুত্বারোপ করেন। কৃষি ও মাইক্রোক্রেডিট ঋণ প্রবাহ বৃদ্ধির উপর দেশের খাদ্য নিরাপত্তা নির্ভর করে হেতু কৃষি ঋণের বহুমুখিতার উপর গুরুত্বারোপ করেন। সকল শাখায় Internal Control & Compliance জোরদারকরণ ও মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ বিষয়ে কার্যকর পদক্ষেপ অব্যাহত রাখার জন্য পরামর্শ প্রদান করেন এবং গত বছরের অর্জনের ধারাবাহিকতা বজায় রেখে ২০২১ সালে ব্যবসায়িক অর্জন আরও সুসংহত করার জনা নির্দেশ দেন। অতঃপর, সভাপতি তাঁর সমাপনী বক্তব্যে বিগত বছরের সাফল্যের ধারাবাহিকতায় বর্তমান বছরেও রাজশাহী বিভাগের উন্নয়নে কাংখিত ভূমিকা রেখে দেশের রাষ্ট্র মালিকানাধীন বৃহত্তম বাণিজ্যিক ব্যাংক হিসেবে সোনালী ব্যাংকের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করার বিষয়ে সকল কর্মকর্তাকে উদাত্ত আহবান জানান এবং প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিদের দিক নির্দেশনাগুলো মাঠ পর্যায়ে যথাযথভাবে বাস্তবায়নের প্রতিশ্রুতি ব্যাক্ত করে উপস্থিত সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপনপূর্বক ব্যবসায়িক পর্যালোচনা সভার সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

Leave a Reply