দেশের সর্বপ্রথম শরীয়াহ ভিত্তিক ইসলামী বন্ডে সর্বোচ্চ বিনিয়োগকারী সোনালী ব্যাংক

0

২৮ ডিসেম্বর ২০২০ বাংলাদেশের সরকারি আর্থিক ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে একটি ঐতিহাসিক দিন ছিল। কেননা এ দিনেই চালু করা দেশের প্রথম শরীয়াহ ভিত্তিক ইসলামি বন্ড (সুকুক) বাংলাদেশের অর্থনীতিতে এক নতুন মাত্রা যোগ করলো। সরকারের ঋণ ব্যবস্থাপনায় বাংলাদেশ ব্যাংক সম্পূর্ণ নতুন একটি ইন্সট্রুমেন্ট সংযোজন করে দেশের আর্থিক খাতে বৈপ্লবিক পরিবর্তনের সূচনা করলো। সুকুক বন্ডরে এই বনিয়িোগ অত্যন্ত নরিাপদ ও ঝুঁকবিহিীন যা ব্যাংক প্রয়োজনীয় বধিবিদ্ধ জমা বা এসএলআর সংরক্ষণওে ব্যবহার করতে পারবে।

উক্ত নিলামের মাধ্যমে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের ‘সারা দেশে নিরাপদ পানি সরবরাহ প্রকল্প’- এর সম্পদের বিপরীতে চার হাজার কোটি টাকা সংগ্রহ করেছে সরকার যাতে রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন সর্ববৃহৎ বাণিজ্যিক ব্যাংক সোনালী ব্যাংক এককভাবে সর্বোচ্চ বিনিয়োগকারী (প্রায় ৫২৮.০০ কোটি টাকা)। বাংলাদেশ ব্যাংক সরকারের পক্ষে এই বন্ড ইস্যুকারী।

নিলামে মোট ৩৯টি (৩৭ টি ব্যাংক ও র্আথকি প্রতষ্ঠিান এবং ২ জন ব্যক্তি র্পযায়রে গ্রাহক) আবেদনের বিপরীতে সবাই আনুপাতিক হারে বন্ড পায় যাতে সোনালী ব্যাংক সর্বোচ্চ বিনিয়োগে সমর্থ হয়। এই বন্ডের বিপরীতে ৪ দশমিক ৬৯ শতাংশ হারে ষান্মাষিক ভিত্তিতে মুনাফা দেবে সরকার যা সোনালী ব্যাংকের আয় বৃদ্ধিতে গুরুত্বর্পূণ ভূমিকা রাখবে। ইসলামি বন্ডের এ হার নির্দিষ্ট। কারণ, এটি ইজারা (ভাড়া) সুকুক। সরকার এই প্রকল্প ভাড়া নেবে এবং এই ভাড়ার টাকা থেকে মুনাফা পাবে বিনিয়োগকারীরা। মেয়াদ শেষে পুরো প্রকল্প কিনে বিনিয়োগকারীদের মূল টাকা ফেরত দেবে সরকার। পাঁচ বছর মেয়াদী সুদবিহীন এই বন্ড বাংলাদেশে প্রথম। ‘সারা দেশে নিরাপদ পানি সরবরাহ প্রকল্প’- সংশ্লিষ্ট সুকুক বন্ডে সোনালী ব্যাংকের এই বিনিয়োগ জাতীয় উন্নয়নে গুরুত্বর্পূণ অবদান রাখবে।

Leave a Reply