টিআইবিঃ সম্প্রতি ভারতে বিক্রি শুরু হয়েছে অপ্পো আর ১৭ প্রো। ওয়ানপ্লাস ৬টি এর সাথে এই ফোনের ডিজাইনে অনেক সামঞ্জস্ব রয়েছে। তবে দুটি ফোনে রয়েছে আলাদা হার্ডওয়্যার। ওয়ানপ্লাস ৬টি ফোনে ফ্ল্যাগশিপ স্নাপড্রাগন ৮৪৫ চিপসেট থাকলেও অপ্পো আর ১৭ প্রো তে মিডরেঞ্জ স্নাপড্রাগন ৭১০ চিপসেট ব্যবহার করেছে কোম্পানি। এছাড়াও SuperVOOC ফ্ল্যাশ চার্জারে 50W চার্জিং এ অবিশ্বাস্য স্পিডে চার্জ হয় এই ফোন।

স্মার্টফোনে একাধিক কালারের ব্যক ব্যবহার শুরু করেছিল অপ্পো। একই ধরনের ফিনিশ থাকছে অপ্পো আর ১৭ প্রো ফোনে। ফোনের সামনে রয়েছে ৬.৪ ইঞ্চি ডিসপ্লে, ডিসপ্লের উপরে থাকছে ছোট্ট ওয়াটারড্রপ নচ। ওয়ানপ্লাস ৬টি ফোনেও একই ডিজাইন ব্যবহার হয়েছে। এছাড়াও অপ্পো আর ১৭ প্রো ফোনের ডিসপ্লের নীচে থাকছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সার। ফোনের ডান দিকে রয়েছে পাওয়ার বাটন আর ডান দিকে ভলিউম রকার।

ফোনের নীচে রয়েছে ইউএসবি টাইপ-সি পোর্ট, স্পিকার গ্রিল আর প্রাইমারি মাইক্রোফোন। ওয়ানপ্লাস ৬টি ফোনের মতো অপ্পো আর ১৭ প্রো ফোনেও কোন ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সার থাকছে না।

ফোনের পিছনে রয়েছে ডুয়াল ক্যামেরা সেট আপ। সাথে রয়েছে ডুয়াল LED ফ্ল্যাশ। সাথে থাকছে ৩৭০০ mAh ব্যাটারি।  এই ফোনে SuperVOOC ফ্ল্যাশ চার্জে চোখের নিমেষে চার্জ হবে অপ্পো আর ১৭ প্রো।

অপ্পো আর ১৭ প্রো ফোনে চলবে অ্যান্ড্রয়েড ৮.১ অরিও অপারেটিং সিস্টেম। অপ্পো আর ১৭ প্রো তে থাকবে একটি ৬.৪ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস ডিসপ্লে। ফোনের ভিতরে থাকবে একটি স্নাপড্রাগন ৭১০ চিপসেট, ৮জিবি RAM আর ১২৮জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। অপ্পো আর ১৭ প্রো এর বাংলাদেশী দাম প্রায় ৬০,০০০ টাকা।

কানেক্টিভিটির জন্য অপ্পো আর ১৭ প্রো তে থাকবে ৪জি VoLTE, ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ ৫.০, GPS/ A-GPS, ইউএসবি টাইপ-সি আর NFC।

অপ্পো আর ১৭ প্রো এর ফুল স্পেসিফিকেশন:

GENERAL
Operating System Android OS, v8.1 (Oreo)
Custom UI ColorOS 5.2
Device type Phablet
Sim Dual SIM
Colours Radiant Mist, Emerald Green
BODY
Dimensions 157.6 x 74.6 x 7.9 mm
Weight 183 g
DISPLAY
Screen size 6.4 inches
Form Factor Touch
Screen resolution 1080 x 2340 pixels
Touchscreen Capacitive Touchscreen
Technology (Display Type) IPS LCD (Corning Gorilla Glass 6)
PROCESSOR
Chipset Qualcomm Snapdragon 710
CPU Octa Core (Dual 2.2 GHz Kryo 360 & Hexa 1.7 GHz Kryo 360)
GPU Adreno 616
STORAGE
Internal Storage 128 GB Storage
RAM 8 GB RAM
External Storage up to 256 GB
Card Slot microSD Card
Phonebook Unlimited
Messaging SMS, MMS, Email, Push Mail
Call Records Unlimited
CAMERA
Primary camera 12 MP (f/2.4) + 20 MP (f/2.6) + TOF 3D Triple Camera with Dual LED Flash
Front Camera 25 MP (f/2.0) Camera with AI
Video Recording Yes
Camera Features HDR, Panorama, Beauty Mode, OIS, 3D Portrait
MULTIMEDIA
Audio Player MP3, WAV, eAAC+, FLAC
Video Player MP4, DivX, XviD, WMV, H.264, H.263
Games Yes
Speakers Yes
Audio Jack 3.5mm Audio Jack
BATTERY
Type Non-removable Li-Ion 3700 mAh battery
CONNECTIVITY
GPRS Yes
Edge Yes
WLAN Wi-Fi 802.11 a/b/g/n/ac, WiFi Direct, hotspot
Bluetooth v5.0, A2DP, LE, EDR
USB USB Type-C, USB OTG
GPS Facility with A-GPS, GLONASS
Browser HTML5
3G Speed HSPA, LTE
NETWORK SUPPORT
3G HSDPA 850 / 900 / 1900 / 2100 MHz
2G GSM 850 / 900 / 1800 / 1900 MHz
4G VoLTE
MORE FEATURES
Sensors In-Display Fingerprint Sensor, Accelerometer, Gyro, Proximity, Compass
Other Features Super VOOC Quick Charging, AI Camera, Face Unlock, NFC

অপ্পো আর ১৭ প্রো পারফর্মেন্স, ব্যাটারি লাইফ ও ক্যামেরাঃ

অপ্পো আর ১৭ প্রো ফোনে তুলনামুলক নতুন স্নাপড্রাগন ৭১০ চিপসেট ব্যবহার হয়েছে। নোকিয়া ৮.১ ফোনেও একই চিপসেট ব্যবহার হয়েছে। স্নাপড্রাগন ৬০০ সিরিজ ও স্নাপড্রাগন ৮০০ সিরিজের মাঝামাঝি পারফর্ম করে এই চিপসেট। তবে এই চিপসেটে গেমিং এর সময় GPU পারফর্মেন্সে ভালো তফাৎ বোঝা গিয়েছে। কোন ল্যাগ ছাড়াই অপ্পো আর ১৭ প্রো ফোনে পাবজি মোবাইল আর Asphalt 9: Legends খেলা গিয়েছে। হাই সেটিংস এ পাবজি খেলা গেলেও মিডিয়াম সেটিংসে খেলা গিয়েছে Asphalt 9: Legends।

রোজকার ব্যবহারে একবারও স্লো হয়নি এই ফোন। ফোনের ৮ জিবি RAM এই ফোনকে মসৃণভাবে চলতে সাহায্য করেছে।

অপ্পো আর ১৭ প্রো ফোনের ডিসপ্লের নীচের ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সার সাধারন ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সারের থেকে ধীরে কাজ করেছে। এই ফোনে রয়েছে ফেস আনলক ফিচার। ফোনের ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সার আর ফেস আনলক একই সাথে কাজ করে।

আর ১৭ প্রো ফোনের মধ্যে দুটি ১৮৫০ mAh ব্যাটারি ব্যবহার করেছে অপ্পো। অর্থাৎ অপ্পো আর ১৭ প্রো তে রয়েছে মোট ৩৭০০ mAh ব্যাটারি। ফোনের ব্যাটারি ব্যাকআপ নিয়ে কোন সন্দেহ নেই।

এই ফোনের অন্যতম প্রধান আকর্ষণ SuperVOOC ফ্ল্যাশ চার্জিং। নিজের ফোনে রোজ ৫০W চার্জার ব্যবহার করে চার্জ দেওয়ার সুযোগ হয়না। মাত্র ৩৫ মিনিটে ফোনের ব্যাটারি ০ থেকে ১০০ শতাংশ করতে পারে এই চার্জার। মাত্র ১৫ মিনিট চার্জ করে ৫৭ শতাংশ ব্যাটারি পেয়েছি আমরা। চার্জিং এর সময় এই চার্জার গরম হয়নি।

ছবি তোলার জন্য অপ্পো আর ১৭ প্রো ফোনের পিছনে তিনটি ক্যামেরা থাকবে। এই ক্যামেরায় একটি ১২ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সার, একটি ২০ মেগাপিক্সেল দ্বিতীয় সেন্সার ও তৃতীয় একটি থ্রিডি সেন্সার থাকবে। তবে এই তিন নম্বর সেন্সারটি ঠিক কী কাজ করবে তা জানায়নি অপ্পো।

অন্যান্য অপ্পো ফোনের মতোই একই ক্যামেরা ইউজার ইন্টারফেস রয়েছে এই ফোনে। ফটো ও ভিডিও মোড ছাড়াও এই ক্যামেরায় রয়েছে প্যানোরামা, পোট্রেট, নাইট, স্টিকার আর এক্সপার্ট মোড।

অপ্পো আর ১৭ প্রো ফোনের ক্যামেরায় তোলা ছবিতে ভালো ডিটেল পাওয়া গিয়েছে। ক্যামেরায় রয়েছে আর্টিফিশিয়াল ইন্টিলিজেন্স সেন্স রিকগনিশান। প্রয়োজনে ফোনের ক্যামেরাকে HDR মোডে নিয়ে যেতে পারে এই ফিচার।

কম আলোতে অপ্পো আর ১৭ প্রো ফোনের ক্যামেরা ভালো রেজাল্ট দিয়েছে। ছবিতে কম নয়েজ থাকার কারনে ভালো ডিটেল পাওয়া গিয়েছে।

এই ফোনের প্রাইমারি ক্যামেরায় 4K ও সেলফি ক্যামেরায় 1080p ভিডিও রেকর্ড করা যায়। সাথে থাকছে স্টেবিলাইজার।

মতামতঃ

স্নাপড্রাগন ৭১০ খারাপ চিপসেট না হলেও এটি কোন ভাবেই দ্রুততম চিপসেট নয়। এই দামে স্নাপড্রাগন ৮৪৫ চিপসেট সহ পাওয়া যাবে ওয়ানপ্লাস ৬টি। দ্রুত চার্জিং যদি আপনার প্রথম চাহিদা হয় তবে অপ্পো আর ১৭ প্রো ফোনের কোন প্রতিযোগী নেই বাজারে। তবে চাহিদা যদি হয় পারফর্মেন্স তবে দেখে নিতে পারেন ওয়ানপ্লাস ৬টি।

Leave a Reply