হোমসাম্প্রতিকব্যাংক বহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ঋণের সুদহার নির্ধারিত হচ্ছে

ব্যাংক বহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ঋণের সুদহার নির্ধারিত হচ্ছে

ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর (এনবিএফআই) জন্য ঋণের সুদহার বেঁধে দেবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। গতকাল রোববার বাংলাদেশ ব্যাংকের ৪২০তম বোর্ড সভায় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে আর্থিক খাতের নিয়ন্ত্রণ সংস্থার পর্ষদ।

আরও দেখুন:
ব্যাংক কেন মূলধন সংকটে পড়ে?
ডিজিটাল রূপান্তরে অগ্রণী ব্যাংক

বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো. সিরাজুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ব্যাংকগুলোর সর্বোচ্চ ঋণের সুদ হার ৯ হলেও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর ঋণের সুদহার বেঁধে দেয়া ছিল না। তারা তাদের ইচ্ছে মতো সুদহার নির্ধারণ করছে। আর্থিক প্রতিষ্ঠানের আমানত ও ঋণ, লিজ ও বিনিয়োগের সুদ বা মুনাফার হার যৌক্তিক পর্যায় আনার বিষয়ে একটি প্রস্তাব দেয়া হয়েছিল। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বোর্ড বিষয়টির সঙ্গে একমত হয়ে নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

টেকনো ইনফো বিডি‘র প্রিয় পাঠক: প্রযুক্তি, ব্যাংকিং ও চাকরির গুরুত্বপূর্ণ খবরের আপডেট পেতে আমাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ টেকনো ইনফো বিডি তে লাইক দিয়ে আমাদের সাথেই থাকুন।

এর আগে ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে ঋণের সুদ হার ৯ শতাংশ বেঁধে দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে বাংলাদেশ ব্যাংক। যা ওই বছরের এপ্রিল থেকে কার্যকর হয়। এর ফলে নতুন ও পুরোনো সব ধরনের ঋণে সুদ হার হয় ৯ শতাংশে নেমে আসে। ব্যাংক কোম্কানি আইনের ৪৫ ধারা অনুযায়ী ‘জনস্বার্থে’ এ নির্দেশনা দেয় কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

একই বছর ২৪ সেপ্টেম্বর ক্রেডিট কার্ডের সর্বোচ্চ সুদহার বেঁধে দেয়া হয়। দেশের কোনো ব্যাংকই ক্রেডিট কার্ডে ২০ শতাংশের বেশি সুদ আদায় করতে পারবে না। যা ওই বছর ১ অক্টোবর থেকে কার্যকর হয়।

এ সম্পর্কিত আরও দেখুন

Leave a Reply

এ সপ্তাহের জনপ্রিয় পোস্ট

সর্বশেষ পোস্ট