সামাজিক মাধ্যমে যা খুশি প্রচারের দিন শেষ হচ্ছে!

0
187

সামাজিক মাধ্যম ব্যবহার করে অপপ্রচারসহ যা খুুশি তাই করার সময় শেষ হয়ে এসেছে। চলতি বছর থেকেই সরকার ফেইসবুক-ইউটিউবের ওপর হস্তক্ষেপ করতে পারবে বলে জানান ডাক, টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

তিনি জানান, চলতি বছরের সেপ্টেম্বর থেকেই সামাজিক মাধ্যমে গুজবসহ অন্যান্য তথ্য নিয়ন্ত্রণ সক্ষমতা অর্জন করতে যাচ্ছে সরকার।

শনিবার রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমিতে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা কমিটি আয়োজিত ‘গৌরবের অভিযাত্রায় ৭০ বছর, তারুণ্যের ভাবনায় আওয়ামী লীগ’ শীর্ষক মতবিনিময় সভায় এমন কথা জানান মন্ত্রী।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, সরকার এতোদিন বিভিন্ন ওয়েবসাইট নিয়ন্ত্রণের সক্ষমতা অর্জন করলেও ফেইসবুক-ইউটিউবে সুনির্দিষ্ট তথ্য নিয়ন্ত্রণের সক্ষমতা ছিল না।

তিনি বলেন, ফেইসবুক-ইউটিউব হচ্ছে মার্কিন প্রতিষ্ঠান। তাই তাদের স্ট্যান্ডার্ড মেনে তারা কাজ করে। বাংলাদেশে কেউ ফেইসবুক কোন স্ট্যাটাস বা ইউটিউবে কোন ভিডিও দিলে তা তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেওয়া যেত না।

আমরা সেপ্টেম্বর মাস অতিক্রম করার পরেই সরাসরি হস্তক্ষেপ করার ক্ষমতা অর্জন করবো। তখন যে কেউ ইচ্ছে করলেই এসব মাধ্যমে যা খুশি তা ব্যবহার বা প্রচার করতে পারবেন না।

এর আগে ফেইসবুকের নিয়ন্ত্রণ চাইলে তা পুরোটাই বন্ধ করে দিতে হতো। কোন নির্দিষ্ট কনটেন্ট নিয়ে অভিযোগ থাকলে ফেইসবুক কর্তৃপক্ষকে জানালে তারা ব্যবস্থা নিত। তবে এর জন্য অনেক সময় প্রয়োজন হতো। যা সেপ্টেম্বর থেকে আর আগের মতো করতে হবে না বলে জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে মোস্তাফা জব্বার ইন্টারনেটের নিরাপত্তায় দেশে ২০ হাজারের বেশি পর্নো সাইট বন্ধ করার কথাও জানান। এছাড়া অনলাইনে সংবাদ মাধ্যমের তালিকা এবং নিবন্ধন হয়ে গেছে বৈধ ছাড়া অন্যান্য ভুইফোঁড় অনলাইন বন্ধ করার কথাও বলেন তিনি।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক হাছান মাহমুদ, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য এইচ টি ইমাম, উপ প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য মেরিনা জাহানসহ আরও অনেকেই।