জনতা ব্যাংক থেকে কম খরচে টাকা পাঠাই জেবি পিন ক্যাশে

দেশে এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে বা শহর থেকে গ্রামে টাকা পাঠানো এখন আর কোনো কঠিন বিষয় নয়। বরং টাকা পাঠানোর খরচ কোথায় কম, কোথায় বেশি—এটাই এখন মুখ্য। আবার ব্যাংক বা মুঠোফোনে আর্থিক সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানে হিসাব আছে কি না, এটাও একটা বড় বিষয়। এ কারণে ব্যাংক হিসাব নেই এমন ব্যক্তির কাছে কম খরচে অর্থ পৌঁছে দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে রাষ্ট্রমালিকানাধীন জনতা ব্যাংক। ব্যাংকিং চ্যানেলের মাধ্যমেই এ অর্থ পৌঁছে দিচ্ছে ব্যাংকটি। ব্যাংকটির এ সেবার নাম জেবি পিন ক্যাশ।

টেকনো ইনফো বিডি‘র প্রিয় পাঠক: প্রযুক্তি, ব্যাংকিং ও চাকরির গুরুত্বপূর্ণ খবরের আপডেট পেতে আমাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ টেকনো ইনফো বিডি তে লাইক দিয়ে আমাদের সাথেই থাকুন।

জনতা ব্যাংকের নতুন এ সেবা পেতে হলে যিনি টাকা পাঠাবেন, তাঁর ব্যাংক হিসাব থাকতে হবে জনতা ব্যাংকে। ব্যাংক হিসাব থাকলে যেকোনো শাখা থেকে গ্রাহক দেশের যেকোনো প্রান্তে তাঁর পরিবার বা প্রিয়জনের কাছে টাকা পাঠাতে পারবেন। এ জন্য যিনি এ টাকা গ্রহণ করবেন, তাঁর ব্যাংক হিসাব না থাকলেও চলবে। টাকাগ্রহীতা জনতা ব্যাংকের যেকোনো শাখা থেকে টাকা উত্তোলন করতে পারবেন। মোবাইল, জাতীয় পরিচয়পত্র ও মোবাইলে যাওয়া খুদে বার্তা নিয়ে জনতা ব্যাংকের যেকোনো শাখায় গেলেই গ্রহীতা পেয়ে যাবেন তাঁর জন্য পাঠানো টাকা। জাতীয় পরিচয়পত্র সঙ্গে না থাকলে কর শনাক্তকরণ নম্বর, ড্রাইভিং লাইসেন্স থাকলেও চলবে।

এই সেবার মাধ্যমে এক লাখ টাকা পর্যন্ত পাঠাতে খরচ পড়বে মাত্র ৮০ টাকা। আর মোবাইল ব্যাংকিং সেবার মাধ্যমে সমপরিমাণ অর্থ পাঠাতে খরচ পড়বে ১ হাজার ৪৯০ টাকা থেকে ১ হাজার ৮৫০ টাকা। ফলে টাকা পাঠানোর সেবা মাশুলের যে চাপ রয়েছে, জনতা ব্যাংকের নতুন সেবার মাধ্যমে তা থেকে মুক্তি মিলবে। তবে সেবাটি চালু থাকলেও জনতা ব্যাংকের কর্মকর্তারাও বিষয়টি নিয়ে তেমন ওয়াকিবহাল নন। ফলে নতুন এ সেবা নিতে পারছেন না অনেক গ্রাহক।

জনতা ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক নূরুল ইসলাম মজুমদার বলেন, জনতা ব্যাংক প্রায় দুই বছর আগে সেবাটি চালু করে। তবে করোনার কারণে সেভাবে আলোচনায় আসেনি। এখন গ্রাহকেরা জানতে পারছেন, সেবাটি গ্রহণ করছেন। ব্যাংক শাখার পাশাপাশি এখন মোবাইল অ্যাপসেও সেবাটি যুক্ত করা হচ্ছে। ফলে টাকা পাঠাতে শাখায় যাওয়ারও প্রয়োজন হবে না।

জনতা ব্যাংক জানায়, এ সেবার মাধ্যমে প্রতিদিন একজন গ্রাহক একবারে এক লাখ টাকা পর্যন্ত পাঠাতে পারবেন। দিনে সর্বোচ্চ পাঁচবার পাঁচ লাখ টাকা পর্যন্ত পাঠানো ও উত্তোলন করা যাবে। ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত পাঠাতে খরচ হয় ২০ টাকা, এরপর ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত পাঠাতে খরচ হয় ৩০ টাকা। ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত পাঠাতে খরচ হয় ৬০ টাকা। আর ১ লাখ টাকা পর্যন্ত পাঠাতে খরচ মাত্র ৮০ টাকা। যিনি টাকা পাঠাবেন, তাঁর কাছ থেকেই এ মাশুল নেওয়া হয়। যিনি টাকা উত্তোলন করবেন, তাঁর থেকে কোনো মাশুল রাখা হয় না। ফলে পুরো টাকাই পাচ্ছেন সুবিধাভোগীরা।

বর্তমানে মোবাইল ব্যাংকিং সেবায় প্রতি হাজার টাকা পাঠাতে খরচ হয় ১৪ থেকে ১৮ টাকা ৫০ পয়সা পর্যন্ত। সে হিসাবে জেবি পিন ক্যাশে প্রতি হাজারে খরচ পড়বে ২ টাকার কম।

জেবি পিন ক্যাশ (JB PIN Cash) প্রশ্ন ও উত্তর:

০১। JB PIN Cash কি?

উত্তরঃ JB PIN Cash জনতা ব্যাংকের একটি নতুন সার্ভিস যার মাধ্যমে হিসাবধারী এবং হিসাববিহীন সুবিধাভোগকারীর নিকট সহজেই টাকা পাঠানো যায়।

০২। JB PIN Cash এর সুবিধা কোথায় পাওয়া যায়?

উত্তরঃ JB PIN Cash এর সুবিধা জনতা ব্যাংকের সকল শাখায় পাওয়া যায়।

০৩। JB PIN Cash এর মাধ্যমে কারা টাকা পাঠাতে পারবেন?

উত্তরঃ JB PIN Cash এর মাধ্যমে জনতা ব্যাংকের গ্রাহকগণ টাকা পাঠাতে পারবেন।

০৪। JB PIN Cash এর মাধ্যমে প্রেরিত টাকা কে উঠাতে পারবেন?

উত্তরঃ JB PIN Cash এর মাধ্যমে প্রেরিত টাকা প্রেরক কর্তৃক নির্বাচিত নির্দিষ্ট ব্যাক্তি জনতা ব্যাংকের যে কোন শাখা থেকে উঠাতে পারবেন।

০৫। JB PIN Cash এর মাধ্যমে প্রেরিত টাকা উত্তোলনের জন্য কি কি প্রয়োজন হবে?

উত্তরঃ JB PIN Cash এর মাধ্যমে প্রেরিত টাকা উঠাতে প্রাপকের মোবাইল নম্বর, মোবাইলে প্রাপ্ত পিন কোড এবং ফটো আইডি (জাতীয় পরিচয় পত্র/পাসপোর্ট/টিন) প্রয়োজন হবে।

০৬। JB PIN Cash এর মাধ্যমে প্রেরিত টাকা উত্তোলনের জন্য প্রাপকের কি কোন ব্যাংক হিসাবের প্রয়োজন আছে?

উত্তরঃ JB PIN Cash এর মাধ্যমে প্রেরিত টাকা উত্তোলনের জন্য প্রাপেকর ব্যাংক হিসাবের প্রয়োজন নাই। জনতা ব্যাংকে যাদের হিসাব আছে তারাও এই সুবিধা পাবেন।

০৭। JB PIN Cash এর মাধ্যমে প্রতিদিন কত টাকা পাঠানো/উত্তোলন করা যায়?

উত্তরঃ প্রতিদিন প্রতিবারে ১.০০ (এক) লক্ষ করে সর্বোচ্চ ৫.০০ (পাঁচ) লক্ষ টাকা পর্যন্ত পাঠানো/উত্তোলন করা যায়।

০৮। JB PIN Cash এর মাধ্যমে টাকা পাঠানোর কমিশন কত?

ক্রমিক বিবরণ হার
০১। ১/- হতে ১০,০০০/- ২০/
০২। ১০,০০১/- হতে ২৫,০০০/- ৩০/-
০৩। ২৫,০০১/- হতে ৫০,০০০/- ৬০/-
০৪। ৫০,০০১/- হতে ১.০০ লক্ষ ৮০/-

০৯। প্রাপকের টাকা থেকে কোন কর্তন করা হয় কি না?

উত্তরঃ প্রাপকের টাকা  থেকে কোন চার্জ বা কমিশন কর্তন করা হয় না।

সোর্স: জনতা ব্যাংক ও ইন্টারনেট।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button