Monday, January 17, 2022

ডিজিটাল সেবায় নেতৃত্ব দিচ্ছে ইসলামী ব্যাংক

জনপ্রিয় পোস্ট

ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে সহায়ক ভূমিকা পালন করছে ব্যাংকিং খাতের ডিজিটাল পণ্য ও সেবা। দেশের বেসরকারি খাতের সর্ববৃহৎ ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড এখানেও নেতৃত্ব দিচ্ছে। ঘরে বসেই ইসলামী ব্যাংকের হিসাব খােলা যায়।

হিসাবে লেনদেন করা যায় বিশ্বের যে কোনাে স্থান থেকে। এ ব্যাংকের কার্ড ব্যবহার করা যায় বিশ্বের যে কোনাে দেশে। নগদ টাকা জমা দিতেও এখন আর যেতে হয় না ব্যাংকে। যে কোনাে ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট, কার্ড ও এমক্যাশ নম্বরে সরাসরি টাকা পাঠানাে যায় সেলফিন থেকে। টাকা নেয়া যায় বিকাশ, নগদ ও রকেটেও।

সেলফিন অ্যাপ:

ইসলামী ব্যাংকের সেলফিন একটি স্মার্ট ডিজিটাল ব্যাংকিং অ্যাপ। যে কোনাে ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট, কার্ড ও এমক্যাশ নম্বরে সরাসরি টাকা পাঠানাে যায় সেলফিন থেকে। টাকা নেয়া যায় বিকাশ, নগদ ও রকেটেও।

আর যে কোনাে ব্যাংকের ভিসা বা মাস্টারকার্ড, ইসলামী ব্যাংকের সেভিংস অ্যাকাউন্ট ও এমক্যাশ থেকে টাকা আনা যায় সেলফিনে। এতে রয়েছে ভিসা সুবিধা সংযুক্ত একটি ভার্চুয়াল ডেবিট কার্ড। এর মাধ্যমে দেশি-বিদেশি যে কোনাে সাইটে ই-কমার্সের পেমেন্ট দেয়া যায়।

এছাড়া সেলফিনের মাধ্যমে মােবাইল রিচার্জ করা, যে কোনাে ব্যাংকের ভিসা/মাস্টারকার্ডের বিল দেয়া এবং চুক্তিবদ্ধ স্কুল-কলেজের ফি প্রদান করা যায়। পরিচিত সেলফিন ব্যবহারকারীর কাছে টাকা চেয়ে রিকোয়েস্ট মানি করা যায়। তাৎক্ষণিক আর্থিক প্রয়ােজন পূরণে এ যেন এক ম্যাজিক। ইসলামী ব্যাংকের এটিএম ও এজেন্ট আউটলেট থেকে ক্যাশ আউট করা যায় কার্ড ছাড়াই। যে
কেউ বাংলাদেশ থেকে জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে স্মার্টফোনে খুলতে পারেন সেলফিন অ্যাকাউন্ট।

আই-ব্যাংকিং বা ইন্টারনেট ব্যাংকিং:

ইসলামী ব্যাংকের আরেকটি জনপ্রিয় ডিজিটাল সেবা হচ্ছে আই-ব্যাংকিং বা ইন্টারনেট ব্যাংকিং। এর মাধ্যমে গ্রাহক বিশ্বের যে কোনাে স্থান থেকে নিজের অ্যাকাউন্ট পরিচালনা করতে পারেন।

এছাড়া আই-ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে ই-কমার্সের পেমেন্ট প্রদান, মােবাইল রিচার্ড, অনলাইনে ইউটিলিটি বিল পরিশােধ করা যায়। সহজে আই ব্যাংকিং পরিচালনার জন্য রয়েছে আইস্মার্ট নামে মােবাইল অ্যাপ।

ডুয়েল কারেন্সি ডেবিট কার্ড:

ইসলামী ব্যাংকের রয়েছে ডুয়েল কারেন্সি ডেবিট কার্ড। এর মাধ্যমে দেশ-বিদেশের যে কোনাে এটিএম থেকে টাকা বা বিদেশি মুদ্রা উত্তোলন করা যায়। দেশ/বিদেশে পিওএস মেশিনের মাধ্যমে কেনাকাটা ও ই-কমার্স ট্রানজেকশন করা যায়।

ক্যাশ-বাই-কোড:

ইসলামী ব্যাংকের আরেকটি অনন্য সার্ভিস হচ্ছে ক্যাশ-বাই-কোড, যার মাধ্যমে প্রাপকের ব্যাংক হিসাব ছাড়াই উত্তোলনযােগ্য নগদ টাকা পাঠানাে যায়। আই-ব্যাংকিং, সেলফিন বা এটিএম মেশিন থেকে ক্যাশ-বাই-কোড ইস্যু করা যায়।

এমক্যাশ:

ইসলামী ব্যাংকের মােবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিস হচ্ছে এমক্যাশ। মােবাইল রিচার্জ, ইসলামী ব্যাংক অ্যাকাউন্টের সঙ্গে লেনদেন, পার্সন টু পার্সন এবং পার্সন টু গভর্নমেন্ট ফান্ড ট্রান্সফার, করপােরেট স্যালারি প্রদান, মার্চেন্ট পেমেন্ট, চুক্তিবদ্ধ স্কুল-কলেজের ফি দেয়া যায় এমক্যাশে। এমক্যাশ এজেন্ট, ইসলামী ব্যাংকের এটিএম/সিআরএম, এজেন্ট আউটলেট ও শাখা থেকে ক্যাশ-ইন ও ক্যাশ-আউট করা যায়।

এটিএম/সিআরএম:

সারাদেশে রয়েছে ইসলামী ব্যাংকের দেড় হাজার এটিএম ও ৪০০-এর বেশি সিআরএমের শক্তিশালী নেটওয়ার্ক। সিআরএম মেশিনে উত্তোলনের পাশাপাশি তাৎক্ষণিক নগদ টাকা জমা করা যায়। এছাড়া ইসলামী ব্যাংকের এটিএম/সিআরএম মেশিন থেকে যে কোনাে ব্যাংকের অ্যাকাউন্টে তাৎক্ষণিক ফান্ড ট্রান্সফার, কার্ড ছাড়াই নগদ গ্রহণ ও খিদমাহ কার্ডের বিল পরিশােধ করা যায়।

হােয়াটসঅ্যাপ সেবা:

ইসলামী ব্যাংকের সর্বশেষ সংযােজন হােয়াটস অ্যাপ সেবা পাওয়া যায় +৮৮০১৩১৩০১৬২৫৯ নম্বরে বিশ্বের যে কোনাে স্থান থেকে। এছাড়া ইসলামী ব্যাংকের ফেসবুক মেসেঞ্জার সাইটেও চ্যাটবটের মাধ্যমে সেবা পাওয়া যাবে।

শরিয়াসম্মত ক্রেডিট কার্ড:

আধুনিক জীবনযাত্রার ধারণা নিয়ে ইসলামী ব্যাংকের আছে ‘খিদমাহ নামে শরিয়াসম্মত ক্রেডিট কার্ড। দেশ-বিদেশে পিওএস মেশিনে বিল পরিশােধযােগ্য কেনাকাটা, হােটেল ও হসপিটালের বিল পরিশােধ, বাস/ট্রেন/প্লেনের টিকেট কাটায় খিদমাহ কার্ড ব্যবহারযােগ্য। খিদমাহ কার্ডে কেনাকাটায় রয়েছে ইএমআই সুবিধা।

পিওএস টার্মিনাল:

প্রত্যেক শাখা, এজেন্ট আউটলেট এবং প্রায় ৩ হাজার ৩০০ মার্চেন্ট পয়েন্টে রয়েছে ইসলামী ব্যাংকের পিওএস টার্মিনাল। ভিসা/মাস্টারকার্ড সংযুক্ত যে কোনাে ব্যাংকের কার্ড এতে লেনদেনযােগ্য। এছাড়া ব্রাঞ্চ পিওএস থেকে ৫ লাখ টাকা পর্যন্ত নগদ উত্তোলন করা যায়।

ট্রাভেল কার্ড:

ভ্রমণে বিদেশি মুদ্রার ঝক্কি এড়াতে রয়েছে ইসলামী ব্যাংকের ট্রাভেল কার্ড। এতে রয়েছে ১২ হাজার ডলার পর্যন্ত লেনদেন সুবিধা। ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ছাড়াই ট্রাভেল কার্ড সেবা নেয়া যায়। ব্যাংকের যে কোনাে শাখা বা অনুমােদিত ডিলারের মাধ্যমে কার্ডে ব্যালেন্স লােড করা যায়।

হজ প্রিপেইড কার্ড:

স্বাচ্ছন্দ্যে হজ পালনের সুবিধা নিয়ে এসেছে ইসলামী ব্যাংকের হজ প্রিপেইড কার্ড। এতে রয়েছে সৌদি আরবে এটিএম থেকে রিয়াল উত্তোলন ও লেনদেনে বিল পরিশােধের সুবিধা।

এসএমএস সার্ভিস:

ইসলামী ব্যাংকের রেজিস্টার্ড হিসাব গ্রাহকদের জন্য রয়েছে এসএমএস সার্ভিস। গ্রামীণফোন গ্রাহকরা ২৬৯৬৯ এবং অন্য অপারেটরের গ্রাহকরা ৬৯৬৯ নম্বরে নির্ধারিত ফরম্যাটে এসএমএস পাঠিয়ে ব্যালেন্স, মিনি স্টেটমেন্ট, ট্রানজেকশন নােটিফিকেশন ও ব্যাংকিং তথ্যসহ বিভিন্ন পুশ-পুল এসএমএস পেতে পারেন।

এছাড়া গ্রাহকদের জন্য ২৪ ঘণ্টা তথ্য ও সরাসরি সহায়তা নিয়ে আছে ইসলামী ব্যাংকের কন্ট্যাক্ট সেন্টার। ১৬২৫৯ এবং +৮৮০২৮৩৩১০৯০ এই দুটি নম্বরে রয়েছে কন্ট্যাক্ট সেন্টারের সেবা। ব্যালান্স অনুসন্ধান, বিভিন্ন ব্যাংকিং তথ্য, কার্ড বন্ধ ও পুনরায় সচল করা, সেলফিন অ্যাকাউন্ট সচল করা, ইন্টারনেট ব্যাংকিং ও কার্ডের গ্রিন পিন সেটকরণে সহায়তা, স্টপ পেমেন্ট, চেক বইয়ের চাহিদা প্রদান, স্ট্যান্ডিং ইন্সট্রাকশন, ই-কমার্স লেনদেনসহ যাবতীয় সহায়তা পাওয়া যায় কন্ট্যাক্ট সেন্টারে। ইসলামী ব্যাংকের এ রকম অনেক সেবার ফলে জীবন এখন আরাে সহজ ও স্বাচ্ছন্দ্য হয়েছে। গতি পেয়েছে আর্থিক অন্তর্ভুক্তি। এগিয়ে চলেছে দেশের অর্থনীতি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ পোস্ট

ম্যানেজমেন্ট ট্রেইনি অফিসার নিয়োগ দেবে ডাচ্-বাংলা ব্যাংক, বেতন ৫০ হাজার

ডাচ্-বাংলা ব্যাংক লিমিটেড (Dutch Bangla Bank Limited) একটি স্বনামধন্য এবং শীর্ষস্থানীয় বেসরকারী বাণিজ্যিক ব্যাংক। ব্যাংকটিতে “ম্যানেজমেন্ট ট্রেইনি অফিসার” পদে...

এ সম্পর্কিত আরও