ইসলামী ব্যাংক এজেন্ট ব্যাংকিং (A to Z)

কোন ব্যাংক কর্তৃক নিয়ােগকৃত এজেন্ট- এর মাধ্যমে প্রত্যন্ত এলাকার জনগােষ্ঠীর মাঝে সীমিত আকারে ব্যাংকিং ও আর্থিক সেবা প্রদানই এজেন্ট ব্যাংকিং। এজেন্ট হচ্ছেন একটি আউটলেট বা কেন্দ্রের মালিক যিনি চুক্তির আওতায় কোন ব্যাংকের পক্ষে উক্ত আউটলেটে ব্যাংকিং সেবা প্রদান করে থাকেন।

ইসলামী ব্যাংকের এজেন্ট ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে গ্রাহকরা বিভিন্ন ধরনের হিসাব খোলা, ক্ষুদ্র ও কৃষিঋণ নিতে ও কিস্তি সংগ্রহ, নগদ জমা ও উত্তোলন করতে পারবেন। এ ছাড়া বিদেশ থেকে আসা রেমিট্যান্সের অর্থ প্রদান, ইউটিলিটি বিল পরিশোধ, ইসলামী ব্যাংকের যে কোনো অ্যাকাউন্টে তহবিল স্থানান্তর, ইএফটিএনের মাধ্যমে অন্য ব্যাংকের অ্যাকাউন্টে তহবিল স্থানান্তর, অ্যাকাউন্ট ব্যালান্স জানা, ইন্টারনেট ব্যাংকিংসহ যে কোনো ধরনের ব্যাংকিং সেবা নেওয়া যাবে।

এজেন্ট ব্যাংকিং- এর উদ্দেশ্য:

১। দেশের প্রত্যন্ত এলাকার বিপুল জনগােষ্ঠীকে ব্যাংকিং সেবার আওতায় এনে তাদেরকে অর্থনীতির মূলধারায় সংযুক্তকরণ।
২। ক্ষুদ্র সঞ্চয় সৃষ্টির মাধ্যমে প্রান্তিক ও সীমিত আয়ের জনগােষ্ঠীর পুঁজি গঠনে সহায়তা করা।
৩। ফরেন ব্লেমিটেলের অর্থ দ্রুত ও সহজে প্রাপকের নিকট পৌছানাে।
৪। প্রত্যন্ত এলাকার জনগােষ্ঠীর দেশব্যাপী লেনদেন প্রবাহকে সহজতর করা।
৫ । সুবিধা ও পুঁজি বঞ্চিতদের অর্থায়নের মাধ্যমে তাদের আয় ও কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে ভূমিকা রাখা।
৬। পল্লীর অবহেলিত কৃষি ও অকৃষি খাতে অর্থায়নের মাধ্যমে গ্রামীণ অর্থনীতিতে গতি সঞ্চার করা।

টেকনো ইনফো বিডি‘র প্রিয় পাঠক: প্রযুক্তি, ব্যাংকিং ও চাকরির গুরুত্বপূর্ণ খবরের আপডেট পেতে আমাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ টেকনো ইনফো বিডি তে লাইক দিয়ে আমাদের সাথেই থাকুন।
এজেন্ট ব্যাংকিং- এ গ্রাহক সেবা:

১। সব ধরণের ব্যাংক হিসাব খোলা।
২। নগদ জমা, উত্তোলন ও ফান্ড ট্রান্সফার।
৩। বৈদেশিক রেমিট্যান্স- এর অর্থ প্রদান।
৪। হিসাবের ব্যালান্স অনুসন্ধান ও হিসাব বিবরণী প্রদান।
৫। অ্যাকাউন্ট- এর বিপরীতে চেকবই ও ডেবিট কার্ড প্রদান।
৬। ক্লিয়ারিং চেক গ্রহণ
৭। POS এর মাধ্যমে টাকা উত্তোলন।
৮। বিনিয়ােগ বিতরণ ও বিতরণকৃত বিনিয়ােগের কিস্তি আদায়।
৯। ইউটিলিটি (গ্যাস, পানি ও বিদ্যুৎ) বিল গ্রহণ
১০। এছাড়া বাংলাদেশ ব্যাংক অনুমােদিত যেকোন গ্রাহকসেবা।

এজেন্ট হতে পারবেন যারা?

১. সমাজ কল্যাণ অধিদপ্তরে নিবন্ধিত এনজিও;
২. মাইক্রো-ক্রেডিট রেগুলেটরী অথরিটির আওতায় নিবন্ধিত ক্ষুদ্র বিনিয়ােগ প্রতিষ্ঠান;
৩. সােসাইটিজ রেজিষ্ট্রেশন অ্যাক্ট, ১৮৬০ এর অধীনে নিবন্ধিত সমিতি;
৪. সমবায় সমিতি এ্যাক্ট ২০০১ এর আওতায় গঠিত সমবায় সমিতি;
৫. কোম্পানিজ এ্যাক্ট ১৯৯৪ এর অধীনে গঠিত এ নিবন্ধিত কোম্পানি;
৬. উপযুক্ত কর্তৃপক্ষ কর্তৃক ইস্যুকৃত ট্রেড লাইসেন্সধারী ব্যবসা প্রতিষ্ঠান;
৭. শাখা/ইউনিট আছে এমন সরকারি দপ্তর/কার্যালয়;
৮. স্থানীয় সরকারের শহর ও পল্লী অঞ্চলের কার্যালয় এবং ইউনিয়ন তথ্য ও সেবা কেন্দ্র;
৯. এছাড়া বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক সুপারিশকৃত বা অনুমােদিত যে কোন প্রতিষ্ঠান।

এজেন্ট হওয়ার অনুপযুক্ত যারা:

১. ফৌজদারী অপরাধের অভিযােগে মামলায় তদন্তাধীন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান;
২. মানি লন্ডারিং ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে অর্থায়ণের দায়ে অভিযুক্ত বা তদন্তাধীন কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান;
৩. আদালত কর্তৃক দন্ডপ্রাপ্ত কোন ব্যক্তি, সাজা সমাপ্তির পর থেকে ০৩ ( তিন ) বছর পর্যন্ত;
৪. যে কোন ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ঋণ খেলাপি;
৫. আদালত কর্তৃক দেউলিয়া ঘােষিত কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান;
৬. ব্যাংক কোম্পানি আইন ১৯৯১- এর ২৬ (গ) ধারা অনুযায়ী ব্যাংক সংশ্লিষ্ট কোন ব্যক্তি;
৭. ব্যাংক কর্মকর্তাগণ অবসরগ্রহণ বা পদত্যাগের পরবর্তী এক বছর একই ব্যাংকের জন্য;
৮. অন্য ব্যাংকের বিদ্যমান এজেন্ট।

এজেন্ট যা করতে পারবেন না:

১. একই সাথে একাধিক ব্যাংকের এজেন্ট ব্যাংকিং কার্যক্রম পরিচালনা;
২. এজেন্ট ব্যাংকিং কেন্দ্রে অনুমােদিত ব্যাংকিং কার্যক্রমের পাশাপাশি অন্য কোন ব্যবসা কার্যক্রম পরিচালনা;
৩. গ্রাহকদের হিসাব খোলার অথবা বিনিয়োগের অনুমােদন দেয়া;
৪. ব্যাংকের যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া কোন তৃতীয় পক্ষের কাছে ব্যাংকের প্রতিনিধিত্ব করা;
৫. সিস্টেম অকার্যকর থাকা অবস্থায় অথবা স্বয়ংক্রিয় রশিদ প্রদান ব্যতিরেকে কোন ধরণের লেনদেন;
৬. ব্যাংকিং সিস্টেমের বাহিরে/সমান্তরালে গ্রাহদের সাথে আলাদাভাবে লেনদেন;
৭. চেকের মাধ্যমে লেনদেন!
৮. বিদেশী মূদ্রার লেনদেন/কেনাবেচা;
৯. গ্রাহকের পক্ষে ব্যাংক গ্যারান্টি ইস্যু;
১০. কর্তৃপক্ষের অনুমােদন ছাড়া কেন্দ্রের বাহিরে অন্যত্র অফিসবুথ সাইনবাের্ড স্থাপন করে ব্যাংকিং পরিচালনা বা সাব-এজেন্ট নিয়ােগ;
১১. কর্তৃপক্ষের অনুমােদন ছাড়া কেন্দ্রের স্থান পরিবর্তন;
১২. বিভিন্ন সেবার বিপরীতে ব্যাংক নির্ধারিত্ব চার্জের বেশী আদায়।

যে কারণে এজেন্ট চুক্তি বাতিল হবে:

১. এজেন্ট হিসেবে অনুপযুক্ততার কোন কারণ ঘটলে অথবা এজেন্ট হওয়ার অনুপযুক্ত কোন ব্যক্তির কাছে আংশিক মালিকানা হস্তান্তর করলে;
২. এজেন্টের ব্যবসায়িক কর্মকান্ড বন্ধ হওয়াঃ স্বেচ্ছায় অথবা আদালত বা নিয়ন্ত্রক সংস্থা কর্তৃক নিষেধাজ্ঞার কারণে;
৩. এজেন্ট বড় ধরনের ব্যবসায়িক ক্ষতির সম্মুখীন হলে এবং পরবর্তী ০৩ (তিন) মাসের মধ্যে ক্ষতি কাটিয়ে এজেন্সি কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে চালাতে অপারগ হলে;
৪. ব্যাংকের পূর্বানুমতি ব্যতিত এজেন্ট মালিকানা হস্তান্তর বা কেন্দ্রের ঠিকানা পরিবর্তন করলে কিংবা কেন্দ্র বন্ধ রাখলে;
৫. এজেন্ট তার বৈধ ব্যবসায়িক অনুমতিপত্র বা ট্রেড লাইসেন্স নবায়ন করতে ব্যর্থ হলে;
৬. বাংলাদেশ ব্যাংকের গাইডলাইনের কোন ধারা বা শর্ত অমান্য করলে;
৭. ব্যাংকের কাছে ইচ্ছাকৃতভাবে কোন মিথ্যা বা ভুল তথ্য সরবরাহ করলে।

এজেন্ট হওয়ার নিয়মাবলীঃ

১। নির্দিষ্ট আবেদনপত্র পূরণ করে নিকটস্থ শাখায় জমা দিতে হবে।
২। শাখা প্রধান আবেদনপত্র যাচাই করে জোনাল অফিসের মাধ্যমে প্রধান কার্যালয়ে পাঠাবেন।

এজেন্ট ব্যাংকিং এর আবেদনের জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র:

১. প্রতিষ্ঠানের ট্রেড লাইসেন্স/ রেজিস্ট্রেশন সার্টিফিকেট/ অনুমতিপত্র
২. প্রতিষ্ঠানের গঠনতন্ত্র/ মেমোরেন্ডাম অব আর্টিকেল এন্ড এ্যাসোসিয়েশন/ অংশিদারী চুক্তিনামা
৩. প্রতিষ্ঠানের সর্বশেষ অডিটকৃত আর্থিক প্রতিবেদন (প্রযোজ্য)
৪. ব্যক্তি মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান ব্যতিত অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে এজেন্ট ব্যাংকিং ব্যবসা পরিচালনা ও স্বাক্ষরকারী প্রতিনিধি নিয়োগ সংক্রান্ত সর্বোচ্চ কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তের রেজুলেশন
৫. TIN সার্টিফিকেট
৬. VAT রেজিস্ট্রেশন সার্টিফিকেট
৭. প্রতিষ্ঠানের হিসাব বিবরণীসহ Bank Solvency সার্টিফিকেট
৮. ইসলামী ব্যাংকে খোলা চলতি হিসাবের ১ পাতা স্টেটমেন্ট
৯. জাতীয় পরিচয়পত্র/ পাসপোর্ট
১০. পুলিশ ক্লিয়ারেন্স (না হলে আবেদনকারীর ঘোষণাপত্র)
১১. CIB রিপোর্ট
১২. স্থানীয় গণ্যমান্য ২ জন ব্যক্তির লিখিত সুপারিশ
১৩. আবেদনকারীর ২ কপি ছবি
১৪. আবেদনকারীর শেষ শিক্ষাসনদ।

প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট:

• এজেন্ট ব্যাংকিং আবেদন ফরম পেতে ক্লিক করুন এখানে
• এজেন্ট ব্যাংকিং এর কমিশন ডিস্ট্রিবিউশন সম্পর্কে জানতে ক্লিক করুন এখানে
• এজেন্ট ব্যাংকিং এর অপারেশন ম্যানুয়াল পেতে ক্লিক করুন এখানে

এজেন্ট ব্যাংকিং এর জন্য যোগাযোগের ঠিকানাঃ


ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড,
ডেভেলপমেন্ট উইং, এজেন্ট ব্যাংকিং ডিভিশন
প্রধান কার্যালয়, ৩৯, দিলকুশা (চতুর্থ তলা)
ঢাকা-১০০০।
মোবাইল: ০১৯৯৮ ৭০৭ ০৬৬

বিস্তারিত জানতে:
• ব্যাংকের যেকোন শাখায় যোগাযোগ করুন।
• অথবা ✆ কল সেন্টারঃ ১৬২৫৯
• অথবা ৮৩৩১০৯০ (দেশ)/০০৮৮-০২-৮৩৩১০৯০ (বিদেশ) এ কল করুন।
ইমেইল: abd@islamibankbd.com
ওয়েবসাইটঃ www.islamibankbd.com

সূত্রঃ ইসলামী ব্যাংক।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button