আর্থিক প্রতিষ্ঠানে আমানত সংগ্রহে ব্যয় কমানোর নির্দেশনা

কিছু আর্থিক প্রতিষ্ঠান আমানত সংগ্রহে অগ্রহণযোগ্য ব্যয় করছে। এর মাধ্যমে অযৌক্তিকভাবে তহবিল ব্যয় বাড়াচ্ছে যা প্রতিষ্ঠানগুলোর ঋণ, বিনিয়োগের সুদ বা মুনাফার হারকে করছে প্রভাবিত। ফলে প্রতিষ্ঠানগুলোর তহবিল ব্যয় অযৌক্তিকভাবে বাড়ছে। এতে ঊর্ধ্বমুখী হচ্ছে ঋণ, বিনিয়োগের সুদ ও মুনাফার হার। এসব কারণে আমানত সংগ্রহে ব্যয় কমানোর নির্দেশনা দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

আরও দেখুন:
কাগুজে মুনাফায় বড় ঝুঁকি দুর্নীতিতেই দুর্বল ব্যাংক
মার্চেই বাস্তবায়ন হচ্ছে ১০ ইসলামী ব্যাংকের নতুন বেতন কাঠামো, প্রস্তুত আরও ২২টি
বিকাশ থেকে লোন নেয়ার আগে যে বিষয়গুলো জানতে হবে

গতকাল রোববার (১৩ মার্চ, ২০২২) বাংলাদেশ ব্যাংকের আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও বাজার বিভাগ এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা দেশের সব আর্থিক প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহী বরাবর পাঠিয়েছে।

টেকনো ইনফো বিডি‘র প্রিয় পাঠক: প্রযুক্তি, ব্যাংকিং ও চাকরির গুরুত্বপূর্ণ খবরের আপডেট পেতে আমাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ টেকনো ইনফো বিডি তে লাইক দিয়ে আমাদের সাথেই থাকুন।

নির্দেশনায় বলা হয়, সম্প্রতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে কতিপয় আর্থিক প্রতিষ্ঠান আমানত সংগ্রহের লক্ষ্যে কমিশন, উন্নয়ন ব্যয়, ব্যবসা উন্নয়ন খরচ ইত্যাদি বিভিন্ন খাতে বা শিরোনামে অর্থ ব্যয় করছে, যা অনৈতিক ও অগ্রহণযোগ্য। বর্ণিত কার্যক্রমের মাধ্যমে আর্থিক প্রতিষ্ঠান অযৌক্তিকভাবে তহবিল ব্যয় বৃদ্ধি করছে, যা প্রতিষ্ঠানসমূহের ঋণ বা বিনিয়োগের সুদ বা মুনাফার হারকে ঊর্ধ্বমুখী হতে প্রভাবিত করছে।

এতে আরও বলা হয়, আর্থিক প্রতিষ্ঠানসমূহ আমানত আহরণে তাদের ঘোষিত সুদ বা মুনাফার হার ছাড়া কোনো প্রকার প্রচ্ছন্ন ব্যয় (কমিশন, ব্যবসা উন্নয়ন খরচ, উন্নয়ন ব্যয় বা যে নামেই অভিহিত করা হোক না কেন) নির্বাহ করবে না।

এছাড়া, আর্থিক প্রতিষ্ঠানসমূহ তাদের সুদ, মুনাফার হার সংক্রান্ত হালনাগাদ তথ্য নিয়মিতভাবে নিজস্ব ওয়েবসাইটে প্রকাশ করবে। আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইন, ১৯৯৩ এর ১৮(ছ) ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে এ নির্দেশনা জারি করা হলো, যা অবিলম্বে কার্যকর হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button