বাংলাদেশে যেভাবে স্পটিফাই ব্যবহার করবেন

1
156

টিআইবিঃ আসসালামু আলাইকুম। টেকনো ইনফো বিডিতে আপনাদের স্বাগতম। আশা করি সবাই ভালো আছেন। স্পটিফাই বিশ্বের জনপ্রিয় মিউজিক অ‍্যাপস গুলোর মধ্যে অন্যতম। স্পটিফাই এর নাম শুনেন নাই এমন মিউজিক প্রেমিক খুবই কম। বাংলাদেশ থেকে এই অ‍্যাপটি ব্যবহার করার অনুমতি নেই অর্থাৎ বাংলাদেশে স্পটিফাই তাদের সেবা প্রদান করছে না। কিন্তু তাই বলে কি স্পটিফাই থেকে গান শোনা বাদ থাকবে? অবশ্যই না! হ্যাঁ বন্ধুরা, আপনারা ঠিকই ধরেছেন আজকে আমাদের পোষ্টের বিষয়বস্তু স্পটিফাই এবং কিভাবে বাংলাদেশে স্পটিফাই ব্যবহার করবেন সে সম্পর্কে একটি বিস্তারিত পোস্ট।

যেহেতু স্পটিফাই বাংলাদেশে এখনো তাদের সার্ভিস আনুষ্ঠানিকভাবে চালু করেনি। তাই বাংলাদেশ থেকে স্পটিফাই ব্যবহার করতে হলে আপনাকে কিছুটা কাঠখড় পোড়াতে হবে। এর জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণ আমি আপনাদের সরবরাহ করবো ইনশা আল্লাহ্।

বাংলাদেশে যেভাবে স্পটিফাই ব্যবহার করবেন

সৌভাগ্যবশত এটি ইন্সটল করার প্রক্রিয়া খুব সহজ এবং এতে ঘাবড়াবার কিছু নেই। একের পর এক নিচের পদ্ধতিগুলো অনুসরণ করুন এবং গান শুনতে থাকুন!

এই টিউটোরিয়ালটি শুধুমাত্র অ‍্যান্ড্রয়েড ডিভাইসের জন্য প্রযোজ্য। আপনি যদি একবার Spotify-তে সফলভাবে সাইন আপ করতে পারেন তবে আপনি সহজেই আপনার পিসি বা অ্যাপল ম্যাক কম্পিউটার এই সার্ভিসটি ব্যবহার করতে পারবেন।

প্রথম ধাপ: VPN অ্যাপ ডাউনলোড করুন

বাংলাদেশ থেকে স্পটিফাই ব্যবহার করার জন্য সর্বপ্রথম আপনাকে VPN অ্যাপ ডাউনলোড করতে হবে ( যেহেতু স্পটিফাই বাংলাদেশে আনুষ্ঠানিকভাবে চালু নেই ) এরপর আপনাকে আপনার ফোনটি এমনভাবে সেটিং করতে হবে যাতে করে মনে হয় আপনি আমেরিকায় অবস্থান করছেন এবং এই কাজটি করার জন্যই আপনাকে ভিপিএন ব্যবহার করতে হবে। আমার অভিজ্ঞতা বলে এক্ষেত্রে সবচেয়ে আস্থাশীল হচ্ছে TunnelBear এবং Opera VPN ।

দ্বিতীয় ধাপ: স্পটিফাই ডাউনলোড করুন

আপনি ইচ্ছে করলেই গুগল প্লে স্টোর থেকে সরাসরি স্পটিফাই অ্যাপটি ডাউনলোড করতে পারবেন না। এক্ষেত্রে আপনাকে থার্ড পার্টি অ্যাপের সহায়তা নিতে হবে। গুগলে “spotify apk” লিখে সার্চ করলে আপনি কতগুলো লিঙ্ক পাবেন। apkmirror.com নামের ওয়েবসাইটটিতে প্রবেশ করুন। ওয়েবসাইটে Spotify apk-এর সবচেয়ে নতুন ভার্সনটিতে ক্লিক করুন। আপনি Android TV ও Beta-এর জন্য কতগুলো apk পাবেন, সেগুলো ডাউনলোড করবেন না।

তৃতীয় ধাপ: স্পটিফাই ইন্সটল করুন

আপনার ফোনের সেটিংসে প্রবেশ করুন, তারপর সিকিউরিটিতে প্রবেশ করুন। স্ক্রল ডাউন করে Unknown Sources না পাওয়া পর্যন্ত নামতে থাকুন এবং সেটির উপর ট্যাপ করুন এবং“Install” সিলেক্ট করুন। ইন্সটল করা শেষ হলে “done” সিলেক্ট করুন।

চতুর্থ ধাপ: স্পটিফাইতে সাইন আপ করুন

স্পটিফাই সাইন আপ করার সময় VPN এর প্রয়োজন পড়বে। VPN অ্যাপটি খুলুন এবং চালু করুন। অ্যাপে আপনার অবস্থান USA বা UK দিন। আপনার VPN চালু হলে আপনার ব্রাউজার থেকে www.spotify.com  ওয়েবসাইটটিতে প্রবেশ করুন। আপনি যদি VPN টি সঠিক উপায়ে চালু করতে পারেন তবে “Get Spotify Free” নামের একটি অপশন দেখতে পাবেন। সেটি ট্যাপ করুন এবং আপনার ই-মেইল অথবা ফেসবুক ডিটেইলস লিখে সাইন আপ করুন। সাইন আপ করা শেষ হলে সেটি আপনার ই-মেইল ইনবক্স থেকে ইন্সট্রাকশন অনুসরণ করে ভেরিফাই করে নিন।

যদি প্রথম পদ্ধতিটি ঠিকমত কাজ না করে, তবে সরাসরি Spotify app-টিতে (VPN চালু থাকা অবস্থায়) চলে যান এবং সেখান থেকে সাইন আপ করুন।

পঞ্চম ধাপ: লগ ইন করুন এবং উপভোগ করুন

আপনি যদি সবগুলো ধাপ সঠিকভাবে অনুসরণ করে থাকেন তবে আপনি স্পটিফাই অ্যাপটিতে অবশ্যই লগইন করতে সক্ষম হবেন এবং সার্ভিসটি উপভোগ করতে পারবেন। লগইন করার পর আপনি VPN বন্ধ করে দিতে পারেন।

কখনও কখনও এমন হতে পারে যে স্পটিফাই আপনাকে লগ আউট করে দিয়ে বলছে যে অ্যাপটি আপনার দেশে সাপোর্ট করে না। এক্ষেত্রে আপনাকে Spotify অ্যাপটি বন্ধ করে দিতে হবে এবং VPN চালু করে আবারও লগ ইন করতে হবে।

প্রথমবার সাইন আপ করার পর থেকে Spotify তাদের প্রিমিয়াম সার্ভিসের ক্ষেত্রে ৩০ দিনের একটি ফ্রী ট্রায়ালের সুযোগ দিয়ে থাকে। প্রিমিয়ামের কোন বিজ্ঞাপন নেই, আপনার ফোনে গান সংরক্ষণ করার সুযোগ দেয় এবং প্লে-লিস্টে শাফল করার পরিবর্তে আপনাকে আপনার পছন্দ মত গান নির্বাচন করার সুযোগ দেয়। ৩০ দিনের ট্রায়াল ব্যবহার করার পর আপনি বিজ্ঞাপন সহ স্পটিফাই ফ্রীতে ব্যবহার করতে পারবেন অথবা মাসিক ৯.৯৯ ডলার খরচ করে প্রিমিয়াম সার্ভিসটি চালিয়ে যেতে পারবেন। এটি আসলেই গান উপভোগ করার জন্য একটি যুগান্তকারী অ্যাপ, এখানে আপনি পাইরেসির অপরাধে না জড়িয়ে গান শুনতে পারবেন নিশ্চিন্তে।

১টি মন্তব্য

  1. […] বাংলাদেশের যেভাবে স্পটিফাই ব্যবহার ক… > কম্পিউটার থেকে ইন্সটাগ্রামে ছবি […]

Leave a Reply