গুগল অ্যাডসেন্স অ্যাপ্রুভ পাওয়ার পরে অ্যাড শো করাবেন যেভাবে

0

গুগল অ্যাডসেন্স সম্পর্কে গত পর্বে আমরা জেনেছি অ্যাডসেন্স কি এবং কিভাবে অ্যাডসেন্স এর জন্য আবেদন করবেন? আজকের পর্বে আমরা আলোচনা করবো গুগল অ্যাডসেন্স অ্যাপ্রুভ পাওয়ার পরে অ্যাড শো করাবেন কিভাবে বা গুগল অ্যাডসেন্স এর শুরুটা কিভাবে করবেন। তো আসুন আজকের মূল পোস্টে আসা যাক।

গুগল অ্যাডসেন্সের শুরুটা কিভাবে করবেন?

প্রথমে আপনাকে গুগল অ্যাডসেন্স অ্যাকাউন্টের জন্য এই লিঙ্কে গিয়ে সাইন আপ করতে হবে। যদি আগে থেকেই আপনার জিমেইল বা গুগল অ্যাকাউন্ট থাকে, তাহলে সেই অ্যাকাউন্টটি দিয়েও আপনি সাইন আপ করতে পারেন।

আবেদন করার ৬ – ৮ ঘন্টার মধ্যে রিভিউ প্রক্রিয়ার প্রথম ধাপে আপনি পাশ করেছেন কিনা সেটা জানাতে গুগল একটি ই-মেইল পাঠাবে। যদি আপনি প্রথম চেকেই পাস করেন, তাহলে আপনি আপনার অ্যাডসেন্স অ্যাকাউন্টে লগ ইন করতে পারবেন এবং অ্যাড বা বিজ্ঞাপনের কোড পাবেন।

১ম ধাপ:

প্রথমে My ads ট্যাবে ক্লিক করুন এবং তারপর New ad unit বাটনে ক্লিক করুন।

গুগল অ্যাডসেন্স অ্যাপ্রুভ পাওয়ার পরে অ্যাড শো করাবেন কিভাবে

এরপর একটি create new ad নামে একটি স্ক্রিন আসবে এবং এখান থেকে আপনাকে অ্যাড বা বিজ্ঞাপনের টাইপ সিলেক্ট করতে হবে। আপনি ‘text and display ads’, ‘In-feed ads’, এবং ‘In-article ads’ থেকে যেকোনো একটি সিলেক্ট করতে পারেন।

গুগল অ্যাডসেন্স অ্যাপ্রুভ পাওয়ার পরে অ্যাড শো করাবেন কিভাবে

কোনটা সিলেক্ট করবেন এটা নিয়ে যদি আপনি সংশয়ে থাকেন, তাহলে text and display ads সিলেক্ট করুন।

গুগল অ্যাডসেন্স অ্যাপ্রুভ পাওয়ার পরে অ্যাড শো করাবেন কিভাবে
 এবার নিচের পয়েন্টগুলো ঠিকভাবে অনুসরণ করুন।

১. আপনাকে এই ad unit এর একটা নাম দিতে হবে এবং অ্যাডের সাইজ, টাইপ, স্টাইল, কালার ইত্যাদি সিলেক্ট করতে হবে। যেহেতু অ্যাডের নামটি ইন্টারনাল কাজের জন্য ব্যবহৃত হয়ে থাকে, আপনি ইচ্ছেমত যেকোন একটি নাম দিতে পারেন।

২. পরবর্তী অপশনটি হচ্ছে অ্যাডের সাইজ নির্বাচন করা। অ্যাডের জন্য গুগল ডিফল্টভাবে বিভিন্ন সাইজের অপশন দিয়ে রাখলেও ‘recommended’ লিস্টে কিছু নির্দিষ্ট মাপ দেয়া আছে যেগুলো বিজ্ঞাপনদাতাদের মধ্যে বেশ জনপ্রিয়। এর মানে হচ্ছে এটা বিজ্ঞাপনগুলোর একটি সর্বাধিক গ্রহণযোগ্য লিস্ট, যাতে আয়ের সম্ভাবনা অনেকাংশে বেড়ে যায়।

৩. এরপরে আপনাকে বিজ্ঞাপন ধরন বা টাইপ নির্বাচন করতে হবে। এতে ডিফল্টভাবে ‘text & display ads’ দুটোই নির্বাচন করা থাকে। এটি নির্বাচন করাই সবচেয়ে যুক্তিযুক্ত।

৪. এরপর অ্যাড স্টাইলের মাধ্যমে আপনি আপনার বিজ্ঞাপনে ডিজাইন যুক্ত করতে পারবেন। তবে ভালো ফল পাওয়ার জন্য আপনার সাইটের কালার কম্বিনেশন এবং ডিজাইন অনুযায়ী কালার স্কিম ব্যবহার করা উচিত।

৫. ‘custom channels’ ফিচারটির মাধ্যমে আপনি আপনার সাইটের উপর ভিত্তি করে বিজ্ঞাপনগুলো দেখাতে পারবেন। তবে এটি যে ব্যবহার করতেই হবে এমন কোন কথা নেই। এই অপশনটি এড়িয়ে গেলেও কোন সমস্যা হবে না।

৬. ‘If no ads available’ অপশনটিতে আপনি আপনার নিজের যেকোন একটি বিজ্ঞাপন দিয়ে এটি পূরণ করতে পারেন। যখন গুগল আপনার সাইটের জন্য একটি উপযুক্ত বিজ্ঞাপন খুঁজে না পাবে তখন এটি দেখানো হবে (যা খুব কমই ঘটে)।

২য় ধাপ:

১. উপরের পয়েন্ট অনুযায়ী আপনার সেটআপ সম্পন্ন হয়ে গেলে, ‘Save and get code’ বাটনে ক্লিক করুন।

২. “Ad unit successfully created” মেসেজ দেখতে পাবেন। এখান থেকে আপনি আপনার বিজ্ঞাপনের কোডও পেয়ে যাবেন। কোড টুকু কপি করে নোটপ্যাড অথবা টেক্সট এডিটরে সেভ রাখুন।

৩. পরবর্তী ধাপে এই কোডটিই ওয়েবসাইটে ব্যবহার করতে হবে।

গুগল অ্যাডসেন্স অ্যাপ্রুভ পাওয়ার পরে অ্যাড শো করাবেন কিভাবে
৩য় ধাপ:
ওয়ার্ডপ্রেস সাইটে গুগল অ্যাডসেন্স অ্যাড করা এবার আপনি আপনার ওয়েবসাইটের কোথায় বিজ্ঞাপন দেখাতে চান সেটা নির্ধারণ করতে হবে। সাধারণত বেশিরভাগ ওয়েবসাইটে সাইডবারে বিজ্ঞাপন দেখানো হয়ে থাকে। আপনি ওয়ার্ডপ্রেস উইজেট ব্যবহার করে আপনার সাইডবারে গুগল অ্যাডসেন্স যোগ করতে পারেন।
গুগল অ্যাডসেন্স অ্যাপ্রুভ পাওয়ার পরে অ্যাড শো করাবেন কিভাবে

১. এজন্য ওয়ার্ডপ্রেস সাইটে লগইন করে অ্যাডমিন ড্যাশবোর্ডে গিয়ে Appearance থেকে Widgets এ ক্লিক করুন।

২. এখান থেকে Custom HTML উইজেটটি ড্রাগ এ্যান্ড ড্রপ করে আপনার কাঙ্ক্ষিত উইজেট এরিয়াতে নিয়ে আসুন।

৩. এরপর আপনার কপিকৃত গুগল অ্যাডসেন্স কোডটি এখানে পেস্ট করে সেভ করুন।

এবার আপনি আপনার ওয়েবসাইটটি ভিজিট করে CTRL+ F5 চাপুন, বিজ্ঞাপনটি দেখতে পাবেন।

Leave a Reply