টিআইবিঃ আসসালামু আলাইকুম। আইফোন বা আইপ্যাড বিক্রি করার সময় তার সব ডাটা ডিলিট করে দেওয়াই বুদ্ধিমানের কাজ। এছাড়াও অনেক সময় ফোন স্লো বা স্টোরেজ ফুল হলে অথবা ফোনে কোন সমস্যা দেখা দিলে তা ঠিক করার কোন উপায় খুঁজে না পেলেও আমরা আইফোন বা আইপ্যাড রিসেট করি। তবে এই উপায় ব্যবহার করার আগে জেনে রাখার অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ যে একবার রিসেট হলে সেই ডাটা আর কোন ভাবেই ফিরে পাওয়া সম্ভব না। তাই রিসেট করার আগে গুরুত্বপূর্ণ সব ডাটা কম্পিউটার বা আইটিউনসে ব্যাক আপ নিয়ে রাখা প্রয়োজন।

আইফোন বা আইপ্যাড ফ্যাকট্রি রিসেট করা খুবই সহজ কাজ। তবে এই কাজ করার আগে অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ ডাটার ব্যাক আপ নিয়ে রাখুন। একবার রিসেট করলে ডিভাইসের কোন ডাটা আর ফেরত পাওয়া যাবে না।

আইফোন রিসেট করবেন যেভাবে?

১. প্রথমে Settings > General > Reset এ যান।

২. এখানে ‘Erase All Content and Settings’ এ ট্যাপ করুন।

৩. এরপরে সব ডাটা ব্যাক আপ নেওয়ার কথা জিজ্ঞাসা করা হবে।‘Back Up Then Erase’ এ ট্যাপ করুন।

৪. ব্যাক আপ না নিতে চাইলে ‘Erase Now’ তে ট্যাপ করুন।

৫. এবার আপনার পাসকোড দিতে হবে। তা সঠিক ভাবে দিলেই আপনার আইফোন রিসেট হয়ে যাবে।

ছবিঃ আইফোন রিসেট করবেন যেভাবে।

আপনি যদি পুরো ফোন রিসেট না করে ডিভাইসের কিছুটা অংশ রিসেট করতে চান তাও করতে পারেন। এর জন্য Settings > General > Reset এ গিয়ে device settings, network settings, keyboard dictionary, home screen layout, and location & privacy ইত্যাদি রিসেট করার আলাদা অপশান পেয়ে যাবেন।

ছবিঃ আইফোন রিসেট।

iTunes ব্যবহার করে আইফোন ও আইপ্যাড রিসেটের পদ্ধতিঃ

আপনার ডিভাইস কেবল দিয়ে পিসি ব্যা ম্যাকে কানেক্ট করেও রিসেট করা সম্ভব।

১. আপনার ডিভাইসটি পিসি বা ম্যাকে কানেক্ট করে iTunes ওপেন করুন।

২. iTunes এ ডিভাইস আইকন আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। আইকন এসে গেলে আইকনে ক্লিক করুন।

৩. এবার ডিভাইসে পাসকোড চাইবে। পাসকোড দিয়ে দিন। এছাড়াও আপনি “Trust this computer” এ ট্যাপ করুন।

৪. এবার কম্পিউটারে iTunes এ Restore iPhone এ ক্লিক করুন।

৫. এরপরে ‘Restore’ বাটনে ক্লিক করে ফ্যাকট্রি রিসেট শুরু করুন।

ছবিঃ iTunes ব্যবহার করে আইফোন ও আইপ্যাড রিসেটের পদ্ধতি।

এটাই হল আইফোন ও আইপ্যাড রিসেট করার সবচেয়ে সহজ পদ্ধতি। আশাকরি পদ্ধতিটি ব্যবহার করে আপনি আপনার আইফোন ও আইপ্যাড খুব সহজেই রিসিভ করতে পারবেন।

Leave a Reply