টেকনো ইনফোঃ আপনি হয়তো ফেসবুকে একের পর এক প্রোফাইল পিকচার বদলে যাচ্ছে। কিন্তু কোনটাতেই লাইক সংখ্যা মনের মতো হচ্ছে না।

না না নিজের উপর থেকে বিশ্বাস হারাবেন না। লাইক পেতে গেলে চারটি জিনিস মাথায় রাখলেই আপনি হিট। শুধু ফেসবুক নয়, হোয়াটসঅ্যাপেও যদি এই টিপসগুলি ফলো করে প্রোফাইল পিকচার দেন, তাহলেও আপনার ভক্তের সংখ্যা চট করে বেড়ে যাবে। যেমন-

  • প্রোফাইল পিকচারে যেন আপনার মুখ স্পষ্ট বোঝা যায়। মাথা থেকে কাঁধ পর্যন্ত ফ্রেমের মধ্যে থাকা জরুরি। আর মাথায় রাখবেন আপনাকে বাস্তবে যেমন দেখতে, তেমনই যেন ছবিতে দেখতে লাগে। এমন কোন এডিটিং সফটওয়্যার ব্যবহার করবেন না, যাতে আপনার গায়ের রং এক্কেবারে বদলে যায়। তার থেকে নিজেকে যেমন দেখতে, সেটাই আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে মেলে ধরুন।

  • ছবির মান যেন ভাল হয়, অর্থাৎ ঝাপসা বা অন্ধকার যেন না হয়। একান্তই যদি সেই ছবি ডিপি করেন, তা হলে এডিট করে নিন।

  • প্রোফাইল পিকচার লাগানোর সঠিক সময় হল উইকেন্ডে অর্থাৎ শুক্রবার বা শনিবার রাতের দিকে। কারণ এই সময়ে অফিসের কাজ থেকে ছাড়া পেয়ে অনেকেই ফেসবুক নিয়ে ব্যস্ত থাকে। অফিস-টাইমে নতুন প্রোফাইল পিকচার লাগালে অনেকের চোখই তা এড়িয়ে যাবে।

  • ঘন ঘন প্রোফাইল পিকচার বদলাবেন না। তাতে আপনার ছবি দেখতে দেখতে মানুষের একঘেঁয়ে লাগবে।

  • একই ধরনের ভঙ্গিতে, বা একই পোশাক পরে ছবি দেবেন না। এতেও একঘেঁয়ে লাগে। বরং বিভিন্ন স্থানে, বিভিন্ন পোশাকে ছবি দিন।

  • অনেকেই আছেন যাঁরা বিভিন্ন পোশাক পরে এক নির্দিষ্ট জায়গায় সেলফি তুলে প্রোফাইল পিকচার করেন। চেষ্টা করুন সেলফির বদলে সাধারণ ছবি দিতে। সেই ছবি যদি ডিএসএলআর ক্যামেরায় তোলা হয়, তা হলে আরও ভাল হবে।

  • ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড যেন ভাল হয়।

  • ছবিটি কোথায় তুলেছেন তা উল্লেখ করুন।

  • ছবিতে প্রাসঙ্গিক ক্যাপশন দিন।

  • ছবিটি যে তুলেছেন তাঁকে সৌজন্য দিন। কিন্তু অযথা কাউকে ট্যাগ করবেন না। তবে এত কিছুর পরেও যদি লাইক না পড়ে, তাতে নিরাশ হবেন না। কারণ দিনের শেষে আপনি নিজের কাছে কেমন, সেটাই সবথেকে জরুরি।

Facebook Comments