টিআইবিঃ আসসালামু আলাইকুম। বন্ধুরা, কেমন আছেন? আশা করি আল্লাহর মেহেরবানীতে ভালো আছেন। আজ আপনাদের জন্য নিয়ে এলাম উইন্ডোজ কম্পিউটারের একটি গুরুত্বপূর্ণ টিপস্ কিভাবে কিবোর্ডের শর্টকাট কমান্ড তৈরি করবেন? তবে চলুন কথা না বাড়িয়ে মূল আলোচনায় যাওয়া যাক।

কম্পিউটারে কাজ করার সময় কিবোর্ডের শর্টকাট কমান্ড জানা থাকলে অনেক কাজ করতেই সুবিধা হয়। শর্টকাট জানা থাকলে যে কাজ এক মিনিটেই হয়ে যায়, সেই কাজটিই শার্টকাট না জেনে করতে গেলে হয়ত সময় লেগে যায় দুই মিনিট। কাজের গতির জন্যই কেবল নয়, শার্টকাট জানা থাকলে কাজ করেও স্বাচ্ছন্দ্য আসে। শুধু প্রফেশনাল কাজের জন্যই নয়, সব ধরনের পিসি ব্যবহারকারীর জন্যই তাই কিবোর্ড শার্টকাট জানা থাকা ভালো।

কিভাবে কিবোর্ডের শর্টকাট কমান্ড তৈরি করবেন

পিসি ব্যবহারকারীদের প্রতিদিনই নানান ধরনের কাজ করতে হয়। কাজ করতে প্রয়োজন হয় নানা ধরনের সফটওয়্যার। এসব কাজ করতে গিয়ে আমরা প্রতিনিয়তই কিবোর্ড থেকে নানা ধরনের শর্টকাট কমান্ড ব্যবহার করে থাকি। যেকোনো সফটওয়্যারেই ফাইল খুলতে ‘Ctrl+O’, ফাইল সেভ করতে ‘Ctrl+S’, প্রভৃতি শর্টকাট কমান্ডের সাথে আমরা সকলেই পরিচিত। তবে অপারেটিং সিস্টেমসহ সব ধরনের সফটওয়্যারেই ডিফল্ট কিবোর্ড শর্টকাটের বাইরেও নিজে থেকে শর্টকাট তৈরি করা যায় নিজের পছন্দমতো।

উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমের যেকোনো সফটওয়্যার চালু করা কিংবা যেকোনো ফোল্ডারের জন্যও একই রকম কিবোর্ড শর্টকাট তৈরি করার সুবিধা রয়েছে। এই লেখায় উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম এবং বহুল ব্যবহূত কিছু সফটওয়্যারের জন্য কীভাবে কাস্টমাইজ কিবোর্ড শর্টকাট তৈরি করা যায়, তা আলোচনা করা হলো।

# উইন্ডোজ প্রোগ্রামের শর্টকাটঃ

উইন্ডোজে বিভিন্ন ধরনের প্রোগ্রাম ইন্সটল করা থাকে। উইন্ডোজ ৭ পর্যন্ত All programms-এ গিয়ে এই প্রোগ্রামগুলো চালু করতে হয়। উইন্ডোজ ৮-এ অবশ্য মেট্রো ইন্টারফেস থেকে পোগ্রামগুলো চালু করতে হয়। আবার প্রোগ্রামগুলো যে ড্রাইভে ইন্সটল করা থাকে, সেখান থেকেও এগুলো চালু করা হয়। তবে সাধারণত All programms থেকেই প্রোগ্রামগুলো চালানো হয়।

অনেকেই আবার এসব প্রোগ্রামের জন্য ডেস্কটপে শর্টকাট রাখেন এবং সেখানে মাউসে ডাবল ক্লিক করে তা চালু করেন। তবে চাইলেই আপনি কিবোর্ড শর্টকারে মাধ্যমেও যেকোনো প্রোগ্রাম চালু করতে পরেন। সেক্ষেত্রে আপনাকে এই শর্টকাট তৈরি করে নিতে হবে। এ ক্ষেত্রে অবশ্য মনে রাখতে হবে, এই শর্টকাট হিসেবে আপনি কিবোর্ডের সব ‘কি’ ব্যবহার করতে পারবেন না।

উইন্ডোজ সাধারণতই এসব কিবোর্ড শর্টকাটের জন্য ডিফল্টভাবে থাকবে ‘Ctrl+Alt’ দুইটি ‘কি’। এর সাথে তৃতীয় একটি ‘কি’ যোগ করে শর্টকাট তৈরি করতে হবে। আর একটিমাত্র ‘কি’ ব্যবহার করতে চাইলে কিবোর্ডের F1 থেকে F12 এবং নম্বরপ্যাডের সংখ্যা ও ‘কি’গুলো ব্যবহার করতে পারবেন। আর ‘Ctrl+Alt’-এর সাথে তৃতীয় ‘কি’ হিসেবে Esc, Ins, Del,Tab, Enter, Spacebar, Prtscn, Shift এবং Backspace ব্যবহার করতে পারবেন না। তবে ‘Ctrl+Alt’-এর সাথে Shift-সহ চতুর্থ কোনো ‘কি’ ব্যবহার করেও শর্টকাট তৈরি করতে পারবেন।

ক। উইন্ডোজ ৭ ও এর নিচের অপারেটিং সিস্টেমের ক্ষেত্রেঃ

১. Start Menuতে যান।

২. All programs থেকে কাঙ্ক্ষিত প্রোগ্রামটি বের করুন।

৩. কাঙ্ক্ষিত প্রোগ্রামে মাউসের ডান বাটন ক্লিক করে সেখান থেকে Properties-এ যান।

৪. properties ডায়ালগ বক্স থেকে ‘Shortcut Key’ নামক বক্সে যান।

৫. এখানে কিবোর্ড থেকে যেকোনো বাটন চাপলেই তার সামনে ‘Ctrl+Alt’ সহ আপনাকে শর্টকাট প্রদর্শন করবে। আর F1 থেকে F12 বা নাম্বরপ্যাডের ‘কি’ চাপলে সরাসরি সেটিই প্রদর্শন করবে। শর্টকাট হিসেবে ‘Ctrl+Alt+Shift’সহ অন্য কোনো ‘কি’ ব্যবহার করতে চাইলে চারটি ‘কি’ একসাথে চাপুন। বক্সে কাঙ্ক্ষিত শর্টকাট দেখতে পাবেন।

৬. কাঙ্ক্ষিত শর্টকাটের জন্য প্রয়োজনীয় ‘কি’গুলো চেপে OK ক্লিক করুন। ব্যাস হয়ে গেল প্রোগ্রামের জন্য শর্টকাট।

খ। উইন্ডোজ ৮-এর ক্ষেত্রেঃ

উইন্ডোজ ৮-এ এসে ইন্টারফেসটি বদলে যাওয়ায় আগের পদ্ধতিতে একটু পরিবর্তন আসবে। উইন্ডোজ ৮-এ যেকোনো প্রোগ্রামের শর্টকাট তৈরি করতে প্রথমে স্টার্ট মেন্যু/ইন্টারফেস কিংবা All Apps থেকে যেকোনো প্রোগ্রামের উপর মাউসের ডান বাটন ক্লিক করুন। এবারে নিচের দিকে যে ডায়ালগ বক্স আসবে সেখান থেকে Open File Location নির্বাচন করুন। এটি আপনাকে এই প্রোগ্রামের শর্টকাটে নিয়ে যাবে। শর্টকাটটির উপর মাউসের ডান বাটন ক্লিক করে সেখান থেকে Properties-এ যান। এরপর আগের পদ্ধতির ৪ থেকে ৬ নম্বর ধাপ অনুসরণ করলেই তৈরি হয়ে যাবে কিবোর্ড শর্টকাট।

# পছন্দের ফোল্ডারের ও ফাইলের শর্টকাটঃ

উইন্ডোজে আপনি আপনার পছন্দের বা বহুল ব্যবহূত ফোল্ডারগুলোর কিংবা ফাইলেরও কিবোর্ড শর্টকাট কমান্ড তৈরি করে নিতে পারেন। তবে সরাসরি ফোল্ডার বা ফাইলের কিবোর্ড শর্টকাট কমান্ড তৈরি করা যাবে না।

শুরুতে আপনাকে ওই ফাইল বা ফোল্ডারের একটি শর্টকাট তৈরি করে নিতে হবে পিসির ডেস্কটপ বা যেকোনো ড্রাইভে। এর জন্য ফাইল বা ফোল্ডারে মাউসের ডান বাটন ক্লিক করে Send to-তে ক্লিক ড্রপডাউন মেন্যু থেকে নির্বাচন করতে পারেন Desktop (create shortcut)। এতে করে সরাসরি ডেস্কটপে শর্টকাট তৈরি হয়ে যাবে। পিসির অন্য যেকোনো লোকেশনে শর্টকাট তৈরি করতে হলে সেই লোকেশনে মাউসের ডান বাটনে ক্লিক করে New-এ ক্লিক করে ড্রপডাউন মেন্যু থেকে নির্বাচন করুন Shortcut। যে ডায়ালগ বক্সটি আসবে, সেখানে বক্সে ওই কাঙ্ক্ষিত ফাইল বা ফোল্ডারের নাম Path-সহ লিখতে হবে অথবা ডানপাশে থাকা Browse বাটনে ক্লিক করে ওই ফোল্ডার বা ফাইল নির্বাচন করে দিতে হবে। এরপর Next-এ ক্লিক করে পরের ডায়ালগ বক্স থেকে Finish-এ ক্লিক করলেই তৈরি হবে শর্টকাট। এরপর আপনি এর জন্য কিবোডের শর্টকাট কমান্ড তৈরি করতে পারবেন। এর জন্য ওই শর্টকাটে মাউসের ডান বাটন ক্লিক করে Properties-এ যান। এরপর ঠিক উইন্ডোজ ৭ পর্যন্ত শর্টকাট-এর ৪ থেকে ৬ নম্বর ধাপ অনুসরণ করে তৈরি করে নিতে পারবেন কিবোর্ড শর্টকাট কমান্ড।

# মাইক্রোসফট ওয়ার্ডের জন্য কিবোর্ড শর্টকাটঃ

সফটওয়্যার প্রোগ্রাম হিসেবে মাইক্রোসফটের ওয়ার্ডের জনপ্রিয়তা নিয়ে নতুন করে বলার কিছু নেই। সবচেয়ে বেশি ব্যবহূত সফটওয়্যারগুলোর মধ্যেই রয়েছে মাইক্রোসফট ওয়ার্ড। সাধারণভাবে ওয়ার্ডে আমরা অনেক কিবোর্ড শর্টকাট ব্যবহার করে থাকি, ফাইলের সব লেখা নির্বাচন করার জন্য ‘Ctrl+A’ ফাইল সংরক্ষণের জন্য ‘Ctrl+S’ প্রভৃতি কমান্ডের সাথে আমরা সকলেই পরিচিত। তবে আপনি চাইলে এরকম সব কাজের জন্যই আপনার পছন্দমতো কিবোর্ড কমান্ড ব্যবহার করতে পারেন। এর জন্য অবশ্য সংস্করণভেদে পদ্ধতি ভিন্ন হবে। এখানে ওয়ার্ড ২০০৭ এবং ওয়ার্ড ২০১০-এর জন্য কিবোর্ড শর্টকাট কমান্ড তৈরির পদ্ধতি দেওয়া হলো।

ক। ওয়ার্ড ২০০৭ এর ক্ষেত্রেঃ

ওয়ার্ড ২০০৭-এ কিবোর্ড শর্টকাট কাস্টমাইজ করতে চাইলে নিম্নোক্ত ধাপ অনুসরণ করুন।

১. অফিস বাটনে ক্লিক করুন।

২. ড্রপডাউন মেন্যু থেকে Word Option নির্বাচন করুন।

৩. এখান থেকে Customise-এ ক্লিক করুন।

৪. উইন্ডোর নিচের দিকে Keyboard Shortcuts লেখার ডানপাশে থাকা Customize বাটনে ক্লিক করুন।

৫. নতুন যে Customize keyboard Box আসবে, সেখানে ক্যাটাগরি ভিত্তিতে প্রতিটি কাজের জন্য কমান্ডগুলো আসবে ডানপাশের বক্সে।

৬. যেকোনো কাজের জন্য কোনো শর্টকাট কমান্ড থাকলে সেটি Current Key নামক বক্সে দেখাবে। এটি বদলে নতুন Shortcut Key চালু করতে চাইলে New Shortcut Key লেখা বক্সে যান।

৭. এখানে আপনার পছন্দমতো শর্টকাট কমান্ডের জন্য ‘কি’ চাপুন কিবোর্ড থেকে। এতে Ctrl, Atl, Shift প্রভৃতি একসাথে নিয়েও শর্টকাট তৈরি করতে পারবেন।

৮. এরপর Assign-এ ক্লিক করে Close করে বেরিয়ে আসুন।

খ। ওয়ার্ড ২০১০ এর ক্ষেত্রেঃ

ওয়ার্ড ২০১০-এ মেন্যুবারের বদলে রিবন ব্যবহার করা হয়েছে। এখানে প্রতিটি ক্যাটাগরির জন্যই রয়েছে কিবোর্ড শর্টকাট। এমনিতে যেকোনো ওয়ার্ড ডক্যুমেন্টে মাউসের ডান বাটন ক্লিক করলেই বেশকিছু কাজের শর্টকাট চলে আসে। এর বাইরে ওয়ার্ড ডক্যুমেন্ট খুলে Alt চাপলেই প্রতিটি ক্যাটাগরি এবং তার অন্তর্ভূক্ত সাব-ক্যাটাগরির জন্য কিবোর্ড শর্টকাট দেখাবে। সেখান থেকে প্রয়োজনীয় ‘কি’গুলো চেপেই কাজ করতে পারবেন। এর বাইরে সরাসরি নিজের মতো করে কিবোর্ড শর্টকাট দিতে চাইলে ওয়ার্ডের File থেকে Option-এ যান। এরপর Customize Ribbon ক্লিক করুন। এবারে ডানপাশের ডায়ালগ বক্সে বামপাশে নিচের দিকে থাকবে Keyboard Shortcut। এর ডানে Customize বাটনে ক্লিক করুন। নতুন ডায়ালগ বক্সে প্রতিটি ক্যাটাগরির অধীনে একেকটি কাজের জন্য Press New Shortcut Key-এর নিচে আপনার কাঙ্ক্ষিত শর্টকাট ‘কি’গুলো চাপুন। এরপর Close করে বেরিয়ে আসুন।

# ফটোশপের শর্টকাট কমান্ডঃ

কিবোর্ড শর্টকাটের মাধ্যমে ফটোশপের কাজ অনেক সহজ হয়ে যায়। বিশেষ করে প্রফেশনাল কাজের জন্য এর বিকল্প নেই। ফটোশপে চাইলেই আপনি পছন্দমতো কিবোর্ড শর্টকাট তৈরি করে নিতে পারেন। এর জন্য ফটোশপ চালু করে মেন্যুবারের Edit থেকে যেতে হবে Keyboard shortcuts-এ। কিবোর্ড থেকে ‘Alt+Shift+Ctrl+k চেপেও যেতে পারেন এখানে। এখানে File, Edit, Image, Layer, Select, Filter, View, Window এবং Help-এর অধীনে বিভিন্ন কাজের জন্য শর্টকাট নির্বাচন করতে পারবেন। প্রতিটি ক্যাটাগরির বামের চিহ্নতে ক্রিক করলেই অপশনগুলো আসবে। তাতে ডানপাশে ওই কাজের জন্য সংযুক্ত (যদি থাকে) কিবোর্ড শর্টকাট দেখাবে। সেখানে ক্লিক করে আপনার পছন্দের নতুন কিবোর্ড শর্টকাট কিবোর্ড থেকে চাপতে হবে। এটি অন্য কাজে ব্যবহূত হয়ে থাকলে তা জানানো হবে এবং আগের শর্টকাটটি দূর হয়ে যাবে। এরপর ডানপাশে Accept-এ ক্লিক করে Ok করতে হবে।

# শেষকথাঃ

আলাদা আলাদা করে সফটওয়্যার ধরে শর্টকাট কমান্ড ব্যবহার না করে বিশেষ সফটওয়্যার ব্যবহার করেও আপনার পছন্দের কিবোড শর্টকাট কমান্ড তৈরি করতে পারেন। এই ধরনের সফটওয়্যারের মধ্যে রয়েছে ‘কি রকেট’ এবং ‘অটোহটকি’। www.veodin.com/keyrocket এবং www. autohotkey.com সাইট থেকে এই সফটওয়্যার ডাউনলোড করে নিতে পারবেন। উভয় সফটওয়্যারই খুব সহজেই ইন্সটল করা যাবে এবং ইন্সটলের পরই আপনি তৈরি করে নিতে পারবেন যেকোনো কাজের কিবোর্ড শর্টকাট।

লিখেছেনঃ তরিকুর রহমান সজীব।

Leave a Reply