টিআইবিঃ আসসালামু আলাইকুম। বন্ধুরা সবাই কেমন আছেন? আশা করি ভাল। আজ আপনাদের জন্য নিয়ে এলাম আইফোনের ব্যাকআপ সম্পর্কে একটি পোস্ট। আইফোন ব্যবহারকারীর সংখ্যা বাড়ার সাথে সাথে আইফোন সম্পর্কে মানুষের জানার প্রযোজনীয়তাও বেড়েছে। যারা আইফোন ব্যবহার করেন কিন্তু ব্যাকআপ রাখতে পারেন না তাদের জন্য আজকের পোস্ট। কিভাবে আইফোন, আইপ্যাড ও আইপড টাচে্র ব্যাকআপ রাখবেন? যদি আপনি আইফোনে থাকা তথ্য হারিয়ে যাওয়া বা নষ্ট হওয়া থেকে বাঁচাতে চান বা নতুন ডিভাইসে ব্যবহার করতে চান তাহলে ব্যাকআপ রাখার কোন বিকল্প নাই। আসুন জেনে নেই কিভাবে আইফোন, আইপ্যাড ও আইপ্যাড টাচে্র ব্যাকআপ রাখবেন?

কিভাবে আইফোন, আইপ্যাড ও আইপ্যাড টাচে্র ব্যাকআপ রাখবেন

আইফোন ব্যাকআপের দুইটি পদ্ধতি আছে। iCloud ও iTunes। আপনি পছন্দ মত যে কোন একটির মাধ্যমে আপনার ব্যাকআপ রাখতে পারেন। নিচে আমরা দেখাবো কিভাবে iCloud ও iTunes এর মাধ্যমে আইফোন, আইপ্যাড ও আইপ্যাড টাচে্র ব্যাকআপ রাখবেন।

ক। কিভাবে iCloud এর মাধ্যমে আইফোনের ব্যাকআপ রাখবেন

১। প্রথমে আপনার ডিভাইসটি ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্ক এর সাথে যুক্ত করুন

২। এরপর সেটিংস-এ গিয়ে আপনার নাম (ছবিতে John Appleseed) ট্যাপ করে iCloud নির্বাচন করুন। যদি আপনি iOS 10.2 অথবা এর আগের ভার্সনের থেকে থাকেন তাহলে সেটিংস অপশনে গিয়ে নিচে নামুন এবং iCloud এ ট্যাপ করুন।৩। iCloud Backup-এ ট্যাপ করুন। যদি আপনি iOS 10.2 অথবা এর আগের ভার্সনের থেকে থাকেন তাহলে Backup ট্যাপ করুন। নিশ্চিত হন আপনার iCloud অন করা আছে।
৪। এরপর Back Up Now ট্যাপ করুন এবং কাজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্ক এ যুক্ত থাকুন।

আপনি কাজটির অগ্রগতি পরীক্ষা করতে পারেন এবং ব্যাকআপ সম্পূর্ণ হয়েছে কিনা তা দেখার জন্য Settings > [your name] > iCloud > iCloud Backup-এ যান গিয়ে শেষ ব্যাকআপের টাইম ও ডেট চেক করুন।

আরও পড়ুনঃ কিভাবে আইফোন থেকে কম্পিউটারে ছবি স্থানান্তর করবেন৷

খ। কিভাবে স্বয়ংক্রিয় iCloud ব্যাকআপ সেট করবেন

এবার জেনে নিন প্রতিদিন স্বয়ংক্রিয়ভাবে iCloud ব্যাকআপের জন্য যা করবেন

ক। নিশ্চিত হন আপনার iCloud অন করা আছে। লেটেস্ট ভার্সনের ক্ষেত্রে Settings > [your name] > iCloud > iCloud Backup এবং iOS 10.2 অথবা এর আগের ভার্সনের জন্য Settings > iCloud > Backup ।

খ। আপনার ডিভাইসটি একটি power source এর সাথে যুক্ত করুন।

ঘ। ডিভাইসটি ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্ক-এ যুক্ত করুন।

ঙ। নিশ্চিত করুন আপনার ডিভাইসের স্ক্রীন লক করা আছে।

চ। চেক করে নিন iCloud-এ ব্যাকআপ নেওয়ার মত পর্যাপ্ত স্টোরেজ আছে কিনা। প্রথমবার যখন iCloud-এ লগ ইন হবেন তখন আইক্লাউডে ৫ জিবি স্টোরেজ পাবেন। যদি আপনার আইক্লাউডে আরও স্টোরেজের দরকার হয় তবে আইফোন কর্তৃপক্ষ থেকে কিনতে পারেন। প্ল্যানের শুরু প্রতিমাসে ৫০জিবি $ 0.৯৯ (মার্কিন ডলার)।

গ। কিভাবে iTune এর মাধ্যমে আইফোনের ব্যাকআপ রাখবেন

১। iTunes ওপেন করে পিসির সাথে আপনার ডিভাইসটি যুক্ত করুন।

২। যদি পিসি আপনার পাসকোড জানতে চায় বা পিসিকে Trust করতে বলে তাহলে স্ক্রিনর ধাপগুলি অনুসরণ করুন।

৩। iTunes প্রদর্শিত হওয়ার সময় আপনার আইফোন বা আইপ্যাড নির্বাচন করুন।

৪। যদি আপনার iOS ডিভাইসে স্বাস্থ্য এবং ক্রিয়াকলাপের ডেটা সংরক্ষণ করতে চান, তাহলে ব্যাকআপ এনক্রিপ্ট করতে হবে।  এনক্রিপ্ট [ডিভাইস] ব্যাকআপ নামক বাক্স নির্বাচন করুন এবং একটি পাসওয়ার্ড তৈরি করুন। আপনার স্বাস্থ্য এবং কার্যকলাপ ডেটা সংরক্ষণের প্রয়োজন না হলে শুধু ব্যাকআপ অপশনে ক্লিক করুন।৫। কাজ শেষ, iTunes এর সংক্ষিপ্ত স্ক্রিনে ব্যাকআপ সফল হয়েছে দেখতে পাবেন। তারিখ এবং সময় দেখে সর্বশেষ ব্যাকআপ নির্বাচন করুন।

শেষকথা

কিভাবে আইফোনের ডাটা ব্যাকআপ রাখবেন সে প্রশ্নের উত্তর নিয়ে আজ আমরা আলোচনা করলাম। আশা করি এই পোস্ট পড়ার পরে সহজেই আপনার আইফোন, আইপ্যাড ও আইপ্যাড টাচে্র iCloud ও  iTunes ব্যাকআপ রাখতে পারবেন। পোস্টটি ভাল লাগলে লাইক, কমেন্ট ও সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করুন। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।

Leave a Reply