সুকুক বন্ডে ২৫ কোটি ডলার বিনিয়োগের আগ্রহ বিদেশী কোম্পানির

0

বাংলাদেশে সুকুক বন্ডে আড়াইশ মিলিয়ন বা ২৫ কোটি ডলার (স্থানীয় মুদ্রায় প্রায় দুই হাজার কোটি টাকা) বিনিয়োগ করতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে মধ্যপ্রাচ্যের একটি কোম্পানি।

গত বৃহস্পতিবার (১৮ জুন) তারা বিএসইসির চেয়ারম্যানের সঙ্গে যোগাযোগ করে এই আগ্রহের কথা জানিয়েছেন। তবে তারা এই বন্ডে বিনিয়োগের গ্যারান্টি চায়। বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) এই গ্যারান্টির বিষয় নিয়ে কাজ করছে।

বিএসইসির চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম শুক্রবার বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব পাবলিকলি লিস্টেড কোম্পানিজ (বিএপিএলসি) আয়োজিত এক ওয়েবিনারে (ওয়েব সেমিনার) প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

অন্যদিকে শনিবার সিটি ব্যাংক ক্যাপিটাল রিসোর্সেস আয়োজিত পুঁজিবাজারে বাজেটের প্রভাব বিসয়ক এক অনুষ্ঠানে তিনি জানান, বন্ড ইস্যুর বিষয়ে ইতোমধ্যে অনেকগুলো প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে কথা বলেছেন তিনি। এর মধ্যে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) অধীন গুলশান-২ সুপার মার্কেট ও মোহাম্মদপুরের টাউন হল মার্কেটের জন্য বন্ড ছেড়ে তহবিল উত্তোলন করার বিষয়ে আগ্রহ দেখিয়েছেন ডিএনসিসির মেয়র।

তিনি বলেন, বর্তমান কমিশন শুধু ইক্যুইটি মার্কেট নয়, বন্ড মার্কেট নিয়ে জোরেশোরে কাজ করছে।

বিএসইসি চেয়ারম্যান বলেন, ‘আমি কিছুদিন ধরে মিডলইস্ট ও ফারইস্টের ফান্ড মুভমেন্টের দিকে খেয়াল রাখছি, যেগুলো আমাদের ধরতে হবে। এখানে সুকুক বন্ড ও অন্যান্য বন্ডগুলো ভাল রোল প্লে করতে পারে। তারা (বিদেশীরা) তাদের ফান্ড বিনিয়োগের উপযুক্ত জায়গা খুঁজছে।

তিনি বলেন, এসব বন্ডের গ্যারান্টির জন্য সাধারণ বীমা করপোরেশনের সঙ্গে আলোচনা চলছে। সাধারণ বীমা বন্ডের ৮০ থেকে ৯০ শতাংশের গ্যারান্টি দেবে। তাবে উভয় পক্ষের জন্য উইন উইন সিচুয়েশন হবে। এর ফলে সরকারি ইন্স্যুরেন্স কোম্পানির আয় বাড়বে। অন্যদিকে বিদেশীরাও এসব বন্ডে বিনিয়োগ করতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করবে।

তিনি আরও বলেন, এসব বন্ড স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্ত হলে বৈচিত্র বাড়বে, লেনদেনের পরিমাণ বাড়বে। বাজারের আকারও বড় হবে।

শুক্রবার বিকালে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব পাবলিকলি লিস্টেড কোম্পানিজ (বিএপিএলসি) আয়োজিত ‘ভার্চুয়াল মিটিং ও পেপারলেস রিপোর্টিং’ বিষয়ক এক ওয়েবিনারে (ওয়েব সেমিনার) প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

সেমিনারে বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী ছানাউল হক এবং অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকার্স বাংলাদেশ (এবিবি) এর প্রেসিডেন্ট আলী রেজা ইফতেখার।

ওয়েবিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক (ছুটিতে) ও নিউজিল্যান্ডের ওয়েলিংটনের ভিক্টোরিয়া ইউনিভার্সিটির প্রভাষক ড. এটিএম তারিকুজ্জামান মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।

বিএপিএলসি’র ভাইস-প্রসিডেন্ট রিয়াদ মাহমুদ ওয়েবিনারে সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন, যাতে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক উদ্যোক্তা ও কোম্পানি সচিব অংশ নেন।

রিয়াদ মাহমুদ বন্ডের গ্যারান্টির ক্ষেত্রে বেসরকারি বীমা কোম্পানিগুলোকেও সুযোগ দেওয়ার অনুরোধ জানান।

Leave a Reply