পুঁজিবাজার চাঙ্গা করতে তালিকাভুক্ত হচ্ছে রাষ্ট্রায়ত্ত ৪ ব্যাংক

0

পুঁজিবাজারকে ‘চাঙ্গা করতে’ রাষ্ট্রায়ত্ত আরো চারটি ব্যাংককে সেপ্টেম্বরের মধ্যে তালিকাভুক্ত করা হচ্ছে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। তিনি বলেন, ‘শেয়ারবাজার চাঙ্গা করতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ দরকার। আমরা যেকোনো মূল্যে পুঁজিবাজার শক্তিশালী করতে চাই। আগামী অক্টোবরের মধ্যে আরও চারটি রাষ্ট্রীয় ব্যাংক পুঁজিবাজারে আসছে।’

আজ রোববার সচিবালয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন বাণিজ্যিক ব্যাংক ও অংশীজনদের সঙ্গে বৈঠক শেষে তিনি একথা জানান।

এসময় অর্থমন্ত্রী জানান, রাষ্ট্রায়ত্ত বিডিবিএল, অগ্রণী, জনতা ও সোনালী ব্যাংককে বাজারে নিয়ে আসা হবে। এ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে এরই মধ্যে একটি কমিটি করা হয়েছে। কমিটিতে চারটি ব্যাংকের প্রতিনিধিও থাকছেন। সমন্বয় করবে বাংলাদেশ বিনিয়োগ সংস্থা (আইসিবি)।

এই চার ব্যাংকের মধ্যে তিনটি ব্যাংক খুব শিগগিরই তালিকাভুক্ত করা হবে। তবে সোনালী ব্যাংক ‘ট্রেজারি পারফর্ম’ করায় তালিকাভুক্তিতে সময় লাগতে পারে বলে জানান অর্থমন্ত্রী। তবে সরকার সেপ্টেম্বরের মধ্যেই চারটি ব্যাংককে তালিকাভুক্ত করতে চায় বলেও জানান অর্থমন্ত্রী।

বৈঠক শেষে মুস্তফা কামাল বলেন, ‘ব্যাংকগুলোর ২৫ শতাংশ শেয়ার বাজারে ছাড়া হবে; একবারে না পারলে পর্যায়ক্রমে হবে। আগে থেকে তালিকাভুক্ত রূপালী ব্যাংকের শেয়ার ১০ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ২৫ শতাংশ করা হবে।’

এসব উদ্যোগের ফলে পুঁজিবাজারে কী ধরনের প্রভাব পড়বে- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘মার্কেটের উপর কী প্রভাব পড়বে, তা আমি বলতে পারবো না। আমাদের কাজ হচ্ছে সহায়ক ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়ে বাজারের সহায়ক জায়গাগুলোতে সাপোর্ট দেওয়া। বাজার কীভাবে উঠবে বা নামবে তা সরকারের হাতে নেই।’

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির, আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব আসাদুল ইসলাম, বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক এম খায়রুল হোসেন, অর্থ সচিব আবদুর রউফ তালুকদার, ইনভেস্টমেন্ট কর্পোরেশন অব বাংলাদেশের (আইসিবি) ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং ব্যাংকগুলোর চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। বনিক বার্তা।