Monday, January 17, 2022

ফেসবুক অ্যাকাউন্টে টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন চালু করবেন যেভাবে

টু-স্টেপ ভ্যারিফিকেশন সেট করে আপনার ফেসবুক আইডির ১০০% নিরাপত্তা নিশ্চিত করুন।

জনপ্রিয় পোস্ট

সেকেন্ড সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা চলাকালীণ সময় আমার এক বান্ধবীর ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়ে গেল। পরীক্ষার ব্যস্ততায় সে তখন ফেসবুকে ঢুকছিলো না। তাই, প্রথম কয় দিন জানতেও পারলো না যে তার আইডিতে কী হচ্ছে!

যখন জানলো, তখন লজ্জ্বায় সে ভার্সিটি যাওয়াই ছেড়ে দিলো। কারণ, জানার ২/৩ দিন আগ থেকেই সে লক্ষ্য করছিলো, ভার্সিটিতে কেউ কেউ, এমনকি ২/১ জন শিক্ষকও তার দিকে আড়চোখে তাকাচ্ছিলো। শুধু তাই নয়, অনেকে আড়ালে আবডালে তাকে নিয়ে ফিসফাস করছিলো। ক্রমেই ভার্সিটির সিনিয়র, জুনিয়র থেকে শুরু করে পিয়নদের কাছ পর্যন্ত খবরটি পৌঁছে গিয়েছিল।

খবরটি কি? খবরটি হচ্ছে মায়েশা (ছদ্ম নাম) তার ফেসবুক প্রোপাইলে যাচ্ছেতাই শেয়ার করে যাচ্ছে। এই যাচ্ছেতাইয়ের মধ্যে পর্ণ সিনেমার নায়িকাদের উলঙ্গ ছবি, একজন পুরুষ-নারীর শারীরিক সম্পর্কের ছবি ও ভিডিও, বাংলা চটি গল্প, ইত্যাদি ইত্যাদি। বুঝুন, অবস্থাটা!

এ রকম অবস্থায় পড়ে আমাদের দেশের অনেক মেয়েই মানসিক নির্যাতনের শিকার হয়ে থাকে। শুধু মেয়েরাই নয়, ছেলেরাও নানা রকম হয়রানির শিকার হয়।

আপনাকে যাতে এ রকম বিব্রতকর অবস্থায় পড়তে না হয় কিংবা এমন কোন পরিস্থিতির শিকার হতে না হয় যা আপনার মান-সন্মান ডুবিয়ে দেবে, তাই এখনই আপনার ফেসবুক আইডিতে টু-স্টেপ ভ্যারিফিকেশন সেট করে নিন আর আপনার অ্যাকাউন্টটিকে ১০০% সুরক্ষা দিন। অনেক সময় অ্যাকাউন্ট হ্যাক না হলেও অনেক ছবি নিয়ে নানা রকম খারাপ কাজে ব্যবহার করে। তাই, আপনার প্রোফাইল পিকচার চুরি হয়ে যাওয়া বা অনভাবে ব্যবহার করাও বন্ধ করুন। আর শতভাগ সুরক্ষার জন্যে টু-ফ্যাক্টর বা টু-ফ্যাক্টর অথেনটিফিকেশন সেট করে নিন।

টু-স্টেপ ভ্যারিফিকেশন বা অথেনটিফিকেশন মুলত সেকেন্ড লেয়ার সিকিউরিটি। এই সিকিউরিটি সেটিংস্ এর মাধ্যমে আপনি আপনার আইডিতে সম্পূর্ণ নিরাপত্তা যুক্ত করতে পারেন। এতে করে কেউ কোনদিন আপনার আইডি হ্যাক করতে পারবে না।

এক্ষেত্রে, টু-স্টেপ ভ্যারিফিকেশনে আপনার মোবাইল নাম্বারটি অ্যাড করে নিতে হবে। যে কেউ আপনার আইডি লগইন করতে গেলেই আপনার মোবাইল নাম্বারে ফেসবুক থেকে অটো জেনারেটেড একটা কোড নাম্বার আসবে। যেহেতু, কোড নাম্বারটি হ্যাকারের কাছে যাচ্ছে না এবং হ্যাকারের পক্ষে কোনভাবেই এই কোড নাম্বার জানা সম্ভব নয়, তাই সে কোনদিনই আপনার অ্যাকাউন্টে লগইন করতে পারবে না। কাজেই, আপনার অ্যাকাউন্ট শতভাগ সুরক্ষা পাবে।

এবার আসুন জেনে নেই কিভাবে আপনার অ্যাকাউন্টে টু-স্টেপ ভ্যারিফিকেশন সেট করবেন।

ফেসবুক টু-স্টেপ ভ্যারিফিকেশন সেট আপ প্রক্রিয়া

মাত্র কয়েকটি ধাপে আমরা শিখে নেবো কিভাবে ফেসবুক আইডিতে টু-স্টেপ ভ্যারিফিকেশন সেট করতে হয়।

প্রথম ধাপ: প্রথম ধাপে আপনার অ্যাকাউন্টে মোবাইল নাম্বার অ্যাড করে নিন। যদি আগেই অ্যাড করা থেকে থাকে, তবে আপনি এই ধাপটি বাদ দিয়ে দ্বিতীয় ধাপে চলে যান। মোবাইল নাম্বার অ্যাড করা না থাকলে, আসুন এখনই অ্যাড করে নেই। এজন্যে, আপনার আইডিতে লগইন করে সেটিংস্ এ যান।

সেটিংস্ এ গিয়ে দেখুন বামপাশে একটি মোবাইলের আইকন এবং তার সামনে Mobile শব্দটি লেখা রয়েছে যা লাল রঙের অ্যারো সাইন দিয়ে নিচের ছবিতে দেখানো হয়েছে।

Mobile শব্দটির উপর ক্লিক করুন এবং দেখুন ডানপাশে নিচের ছবির মতো মোবাইল সেটিংস্ পেজ আসবে।

এ পেজের নিচে দেখুন হাইলাইট করা Add a number লেখা একটি বাটন রয়েছে। এই বাটনে ক্লিক করুন এবং দেখুন নিচের ছবির মতো মোবাইল নাম্বার কনফার্ম করার জন্যে একটি পপ-আপ উইন্ডো ওপেন হবে।

উপরের ঘরে দেখতে পাচ্ছেন যে কান্ট্রি কোড দেয়া আছে। আপনার কাজ নাম্বারের ঘরে নাম্বার দিয়ে দেয়া। যেহেতু, কান্ট্রি কোডের সঙ্গে জিরো দেয়া আছে, আপনি তাই মোবাইল নাম্বার থেকে জিরো বাদ দিয়ে অর্থাৎ ওয়ান থেকে বাকী নাম্বারগুলো দিন। এরপর Continue লেখা নীল বাটনে ক্লিক করুন।

আর সঙ্গে সঙ্গে আপনার দেয়া মোবাইল নাম্বারে একটা কোড আসবে এবং নতুন একটি উইন্ডো ওপেন হবে।

এবার Enter Confirmation Code লেখা ঘরটিতে আপনার মোবাইলে আসা কোড নাম্বারটি দিয়ে Confirm লেখা বাটনটিতে ক্লিক করুন।

নাম্বার কনফার্ম হয়ে যাবে। এবার আপনার কাজ Save Settings লেখা নীল বাটনে ক্লিক করে সেভ করে নেয়া। এখন টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন সেট করবেন। এ জন্যে যে পেজে আছেন, সে পেজের বাম পাশে থাকা Security and Login এ ক্লিক করুন।

Security and Login এ ক্লিক করার পর ডান পাশে যে পেজটি ওপেন হবে সেটার নিচের দিকে এসে দেখুন লেখা আছে Use two-factor authentification আর তার বরাবর ডানে লেখা আছে Edit।

এই Edit লেখাটির উপর ক্লিক করুন। যে পেজটি দেখছেন, তার নিচে দেখুন লেখা আছে Get Started।

এই লেখাটির উপর ক্লিক করুন আর দেখুন যে আরেকটি পপআপ উইন্ডো খুলেছে যেখানে আপনার অ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ড চাইছে।

এটা আপনার সিকিউরিটির জন্যে। কারণ, হতে পারে যে অন্য কেউ আপনার পাসওয়ার্ড চেঞ্জ করে নিচ্ছে। যেহেতু, অন্য কেউ না, এটা আপনি নিজেই, সেহেতু আপনার অ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ড দিন আর Submit লেখা বাটনটিতে ক্লিক করুন। এরপর আরেকটি উইন্ডো ওপেন অ্যাপ সেখান থেকে Next লেখা বাটনটিতে ক্লিক করুন।

Next বাটনে ক্লিক করার সঙ্গে সঙ্গে আপনার দেয়া মোবাইল নাম্বারে ৬ সংখ্যার একটি কোড চলে যাবে আর আরেকটি পপআপ ওপেন হবে।

এখানকার ৬টি ঘরে ওই ৬ ডিজিটের কোড নাম্বারটি দিয়ে দিন। দেয়ার পর আর কিছু করতে হবে না, অটোমেটিক টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন বা টু-ফ্যাক্টর অথেনটিফিকেশন অন হয়ে গেছে দেখতে পাবেন।

এবার Finish লেখা বাটনে ক্লিক করে ফিনিশ করে দিন। আপনার অ্যাকাউন্ট এখন ১০০% নিরাপদ। কারণ, কেউ যখন অ্যাকাউন্ট লগইন করতে যাবে, তখনই আপনার মোবাইলে একটি অথেনটিফিকেশন কোড আসবে যা সে জানতে পারবে না আর আপনার অ্যাকাউন্টও লগইন করতে পারবে না। আপনি এখন সম্পূর্ণ নিরাপদ। কার্টেসি: জেসিকা জেসমিন।

আরও দেখুন:
টু স্টেপ ভেরিফিকেশন কি? কেন টু স্টেপ ভেরিফিকেশন ব্যবহার করবেন?
গুগল অ্যাকাউন্টে টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন চালু করবেন যেভাবে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ পোস্ট

দুই জেলায় অফিসার নিয়োগ দেবে সিটি ব্যাংক

দেশের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় বাণিজ্যিক ব্যাংক দি সিটি ব্যাংক লিমিটেড সম্প্রতি নতুন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। প্রতিষ্ঠানটিতে অফিসার (টেম্পোরারি)- কালেকশন...

এ সম্পর্কিত আরও