কার্ডধারীদের জন্য ইস্টার্ন ব্যাংকের ইনওয়ার্ড রেমিটেন্স সেবা

0

ইবিএল ভিসা কার্ডধারীদের জন্য ইনওয়ার্ড (অন্তর্মুখী) রেমিটেন্স সেবা চালু করেছে বেসরকারি খাতের ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেড (ইবিএল)। এর ফলে কার্ডধারীরা তাৎক্ষণিকভাবে বৈদেশিক রেমিটেন্সের অর্থ গ্রহণের সুযোগ পাবেন।

মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) এক জুম কনফারেন্সের মাধ্যমে নতুন এই সেবাটির উদ্বোধন করা হয়। সেবাটি গ্রহণ করে দেশের বাইরে কর্মরত ওয়েজ আর্নাররা নিরাপদে ও তাৎক্ষণিকভাবে নিজেদের পরিবারের সদস্য এবং আত্মীয়-স্বজনের কাছে অর্থ প্রেরণ করতে পারবেন।

বৈদেশিক রেসিটেন্স গ্রহণের জন্য এই মুহুর্তে ইবিএল গ্রাহকদের ‘ইবিএল ভিসা ডেবিট ট্রাভেল কোটা’ থাকতে হবে। খুব শীঘ্রই ব্যাংকের অন্যান্য কার্ড প্রোডাক্টেও এই সেবাটি অন্তর্ভুক্ত হবে।

একজন রেমিটেন্স প্রেরণকারী একটি কার্ড থেকে একবারে ২,৫০০ ডলার পাঠাতে পারবেন। প্রতি কার্ডে প্রতি মাসে অনুরূপ ৫টি এবং বছরে ৩০টি লেনদেন করা যাবে।

প্রাথমিকভাবে মালয়েশিয়া ও সিঙ্গাপুরে কর্মরত বাংলাদেশিরা এই সুযোগ পাবেন এবং ক্রমান্বয়ে অন্যান্য দেশে কর্মরতদের জন্যও এই সেবা উন্মুক্ত হবে।

উল্লেখিত সেবাটি প্রদানের জন্য ভিসা সম্প্রতি মালয়েশিয়ার মে ব্যাংক এবং সিঙ্গাপুরের এনআইউইএম- এর সঙ্গে অংশীদারিত্ব চুক্তি সম্পাদন করেছে। এই চুক্তি শুধুমাত্র ভিসা কার্ডের ক্ষেএেই নয় বরং অন্যান্য অথেনটিকেটেড ফান্ড সোর্সের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য হবে।

বাংলাদেশ ব্যাংক ফরেন এক্সচেঞ্জ পলিসি বিভাগের নির্বাহী পরিচালক মো. হুমায়ুন কবির বলেন, নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ হিসেবে বাংলাদেশ ব্যাংক দেশের অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে সক্রিয়ভাবে এবং বলতে গেলে ফ্যাসিলেটেটর হিসেব কাজ করছে। বৈশ্বিক মহামারিকালে অর্থনীতিকে কোভিড-১৯ পূর্বের অবস্থায় ফিরিয়ে আনার লক্ষ্যে আমরা অর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে সরকারের প্রণোদনা প্যাকেজগুলো নিয়ে বিরতিহীনভাবে কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছি। কানেকটিভিটি এবং ব্যাংকিং লেনদেনের ক্ষেত্রে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম এখন মুখ্য ভূমিকা পালন করছে। রেমিটেন্স প্রেরণ ও গ্রহণকারী উভয়ের জীবনকে আরও সহজ করে দিবে এই ইনওয়ার্ড রেমিটেন্স সেবা। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো ইনফর্মাল পেমেন্ট পদ্ধতি পরিহার করে মানুষ এখন ফর্মাল পেমেন্ট পদ্ধতি ব্যবহারে অনুপ্রাণিত হবে।

ভিসার হেড অব প্রডাক্টস (ভারত ও দক্ষিণ এশিয়া) অরভিন্দ রন্টা তার বক্তব্যে বলেন, ক্রস বর্ডার ইনওয়ার্ড রেমিটেন্স স্থানীয় অর্থনীতিকে সচল ও সঞ্চয়ে সহায়ক ভূমিকা পালন করে। বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ১০টি রেমিটেন্স গ্রহণকারী দেশগুলোর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে বাংলাদেশ, যার ১ কোটির অধিক নাগরিক বিদেশে বসবাস করছেন। ভিসা ডাইরেক্ট আমাদের গ্রাহকদেরকে ভোক্তাদের জন্য দ্রুত, নিরাপদ ও মূল্য সাশ্রয়ী রেমিটেন্স সমাধান অফারের সুযোগ করে দিচ্ছে। এর ফলে জন সাধারণ ফর্মাল ব্যাংকিং চ্যানেলের মাধ্যমে রেমিটেন্স প্রেরণে উৎসাহিত হচ্ছে। ঢাকায় নিজস্ব একটি অফিস খোলার সাম্প্রতিক ঘোষণার পাশাপাশি ভবিষ্যতে আমাদের লোকাল অফারগুলো আরো জোরালো করা এবং অধিক সংখ্যক করিডোর ও গ্রাহককে নিজেদের আওতায় নিয়ে আসার লক্ষ্য স্থির করেছি।

নতুন সেবাটি উদ্বোধন করে ইবিএল ব্যবস্থাপনা পরিচালনা ও প্রধান নির্বাহী আলী রেজা ইফতেখার জানান, ২০১৯ সালে বাংলাদেশে রেমিটেন্স এসেছে ১৮.৩২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার এবং এর মধ্যে ১.৬ বিলিয়ন ডলার এসেছে মালয়েশিয়া ও সিঙ্গাপুর থেকে। বাংলাদেশ সরকার এবং বাংলাদেশ ব্যাংক উভয়েই ডিজিটাল পেমেন্ট ও ফর্মাল চ্যানেলের মাধ্যমে ক্রস বর্ডার রেমিটেন্সকে জোরালোভাবে উৎসাহিত করছে। আমার দৃঢ় বিশ্বাস ইনওয়ার্ড রেমিটেন্স শুধু বিদেশে কর্মরত ওয়েজ আর্নারদের তাদের কাছের ও প্রিয়জনদের তাৎক্ষণিক ও নিরাপদভাবে রেমিটেন্স পাঠাতেই সহায়তা করবে না, একই সঙ্গে রেমিটেন্স পাঠানোর ক্ষেত্রে ফর্মাল চ্যানেল ব্যবহারে উৎসাহিত করবে।

অনুষ্ঠানের শুরুতে বাংলাদেশ ব্যাংকের ফরেন এক্সচেঞ্জ পলিসি ডিপার্টমেন্টের তানভীর আহমেদ বাংলাদেশে ইনওয়ার্ড রেমিটেন্সের পরিস্থিতির ওপর একটি প্রেজেন্টেশন প্রদান করেন এবং একই বিভাগের উপ-মহা ব্যবস্থাপক মো. হারুন আর রশিদ রেমিটেন্সের ইতিহাস নিয়ে আলোচনা করেন।

কার্ডধারীদের জন্য ভিসা ইনওয়ার্ড রেমিটেন্স সেবা কিভাবে কাজ করে তা নিয়ে বক্তব্য রাখেন ইবিএল রিটেইল ও এসএমই ব্যাংকিং প্রধান এম. খোরশেদ আনোয়ার।

অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে ভিসার সিনিয়র পরিচালক (বিজনেস ডেভেলপমেন্ট-দক্ষিণ এশিয়া) সৌম্য বসু ইস্টার্ন ব্যাংকের এম খোরশেদ আনোয়ারকে তাৎক্ষণিকভাবে একটি ইনওয়ার্ড রেমিটেন্স পাঠানোর মাধ্যমে পুরো প্রক্রিয়াটি প্রদর্শন করেন।

Leave a Reply