পিঠে অক্সিজেন সিলিন্ডার বাঁধা সেই ব্যাংক কর্মকর্তার করোনা শনাক্ত

0
BANKER WITH MOTHER
অক্সিজেন সিলিন্ডার পিঠে বেঁধে মোটরসাইকেলে মাকে নিয়ে ঝালকাঠির নলছিটি থেকে বরিশালের শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আসেন ব্যাংক কর্মকর্তা জিয়াউল হাসান। ১৭ এপ্রিল ২০২১। ছবি: সংগৃহীত

পিঠে অক্সিজেন সিলিন্ডার বেঁধে অসুস্থ মাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া ঝালকাঠির সেই ব্যাংক কর্মকর্তা জিয়াউল হাসানের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

গতকাল শনিবার দুপুরে নলছিটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষায় তার করোনা শনাক্ত হয়। জিয়াউল হাসান নিজেই দ্য ডেইলি স্টারকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘করোনা আক্রান্ত মায়ের সঙ্গে হাসপাতালে এবং বাড়িতে ছিলাম। এ কারণে আজ দুপুর ১২টার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে করোনা পরীক্ষা করাই। নমুনা দেওয়ার ১০ মিনিট পর তারা জানায় আমি করোনা পজিটিভ।’

তবে, শারীরিকভাবে জিয়াউল কোনো সমস্যা বোধ করছেন না এবং তিনি ভালো আছেন বলে জানান।

তিনি আরও জানান, আজ তার সঙ্গে ভাইসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যরাও করোনা পরীক্ষা করিয়েছে। কিন্তু, আর কারও করোনা শনাক্ত হয়নি।

গত ১৭ এপ্রিল পিঠের সঙ্গে অক্সিজেন সিলিন্ডার বেঁধে করোনা আক্রান্ত মাকে মোটরসাইকেলের পেছনে বসিয়ে ঝালকাঠির নলছটি থেকে বরিশালের শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান জিয়াউল হাসান। মোটরসাইকেলে মা-ছেলের সেই ছবিটি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে আলোচনার সৃষ্টি হয়।

এ নিয়ে গত ১৮ এপ্রিল ‘অক্সিজেন সিলিন্ডার পিঠে বেঁধে মাকে নিয়ে হাসপাতালে’ শিরোনামে দেশের বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

অক্সিজেন সিলিন্ডার পিঠে বেঁধে মাকে নিয়ে হাসপাতালে ব্যাংক কর্মকর্তা

ছয় দিন পর সুস্থ অবস্থায় মাকে নিয়ে বাড়িতে ফিরেছেন ঝালকাঠি কৃষি ব্যাংকের কর্মকর্তা জিয়াউল হাসান।

Leave a Reply