আয়কর রিটার্ন তৈরিতে প্রচলিত ১০টি ভুল, যা বেশিরভাগ করদাতাই করে থাকেন

0

প্রতি অর্থবছর শেষে যে আয়কর আপনাকে দিতে হচ্ছে বাংলাদেশে অনেকেই আছেন বেশ দক্ষতার সাথে সেটি সামাল দেন। কিন্তু বহু মানুষ আছেন যারা রীতিমতো হিমসিম খান। তথ্যের অভাবে ভুল করে থাকেন, নানা ঝামেলায় পরেন।

যারা নতুন আয়কর দিচ্ছেন তাদের ক্ষেত্রেই এটি বেশি হয়ে থাকে। আজ আমরা দেখবো ট্যাক্স রিটার্ন তৈরিতে প্রচলিত ১০টি ভুল, যা বেশিরভাগ করদাতাই করে থাকেন।

১) সম্পদ ও দায় বিবরণী মিলাতে না পেরে হাতে নগদ ও ব্যাংক জমা হ্রাস/বৃদ্ধি করে মিলিয়ে দেয়া।

২) নীট সম্পদ পরিবৃদ্ধি ও পারিবারিক ব্যয়ের যােগফলের সহিত সাের্স অব ফান্ড মিলাতে না পারা।

৩) জমি, ফ্লাট ইত্যাদি ক্রয় করা হলেও যে দামে তা ক্রয় করা হয়েছে সেই পরিমান অর্থ ফাইলে না থাকা।

৪) সম্পদ ক্রয় করা হয়েছে অথবা কোথাও বিনিয়ােগ হয়েছে কিন্তু ট্যাক্স রিটার্নে দেখাতে ভুলে যাওয়া।

৫) যে বছর সম্পদ ক্রয় করা হয়েছে সেই বছর ট্যাক্স ফাইলে না দেখিয়ে ২/১ বছর পরে তা দেখানাে।

৬) অনেক করদাতাই কোন বছর করযােগ্য আয় নেই ভেবে ট্যাক্স রিটার্ন জমা দেন না।

৭) ব্যক্তিগত ঋণ/দান গ্রহন/প্রদানের ক্ষেত্রে আয়কর আইনের নিয়ম না মেনে ইচ্ছেমত পরিমান অর্থ ঋণ/দান গ্রহন/প্রদান হিসাবে ট্যাক্স ফাইলে প্রদর্শন করা।

৮) বেতন খাতের করযােগ্য আয় নির্ণয়ের সময় কতটুকু আয় করমুক্ত হবে আর কতটুকু আয় করযােগ্য হবে তা নির্ধারণে ভুল করা।

৯) আয় এবং সম্পদ ক্রয় বা অর্জনের সমর্থনে যথাযথ দলিলাদি বা কাগজপত্র ট্যাক্স রিটার্ন এর সহিত দাখিল না করা।

১০) অদক্ষ ব্যক্তিকে দিয়ে ট্যাক্স রিটার্ন তৈরি করার ফলে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই মােট করযােগ্য আয় নির্ণয় ভুল হয় অথবা আয় গােপন হয়ে যায় অথবা রিবেট সুবিধা পুরােপুরি নিতে ব্যর্থ হন অথবা কর নির্ধারণে ভুল হয়ে অধিক পরিমান ট্যাক্স দিয়ে দেন।

কার্টেসি: ট্যাক্স ক্লিনিক।
আপনার ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন তৈরি ও জমাদান সহ সকল ধরনের সেবা পেতে যােগাযােগ করুন: ট্যাক্স ক্লিনিক।

Leave a Reply