নিউজ

শিশুবান্ধব ফিচারসমৃদ্ধ স্মার্টফোন আনছে ভোডাফোন

টিআইবিঃ বর্তমান যুগে প্রযুক্তির ব্যবহার একটি সর্বজনীন সংস্কৃতি। এখন কাউকেই আর প্রযুক্তির ব্যবহার থেকে বিরত রাখা সম্ভব নয়। বর্তমান প্রযুক্তি পণ্যের মধ্যে স্মার্টফোন সবচেয়ে বেশি আকর্ষণীয়। স্কুল পড়ুয়া শিশুদের স্মার্টফোন ব্যবহার নিয়ে উৎকণ্ঠা নেই এমন অভিভাবক খুঁজে পাওয়া ভার। বিষয়টি মাথায় রেখে ভোডাফোন চাইল্ড-সেফ ফিচারসমৃদ্ধ নতুন দুটি মডেলের স্মার্টফোন বাজারে আনছে। ভোডাফোন স্মার্ট এন নাইন ও ভোডাফোন স্মার্ট এন নাইন লাইট নামে ডিভাইস দুটিতে রয়েছে বিস্তৃত পরিসরের প্যারেন্টাল কন্ট্রোল সিস্টেম, যার ফলে শিশুদের ডিভাইস ও ইন্টারনেটের নিরাপদ ব্যবহার নিশ্চিত করা সম্ভব হবে।

টেকনো ইনফো বিডি‘র প্রিয় পাঠক: প্রযুক্তি, ব্যাংকিং ও চাকরির গুরুত্বপূর্ণ খবরের আপডেট পেতে আমাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ টেকনো ইনফো বিডি তে লাইক দিয়ে আমাদের সাথেই থাকুন।

স্মার্টফোনের সব অ্যাপ বা ইন্টারনেটের সব কনটেন্টই শিশুতোষ নয়। আবার ইন্টারনেট ব্যবহারের সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে সাইবার নিরাপত্তার মতো কিছু বিষয়, যেগুলোর গুরুত্ব শিশুরা বুঝতে পারার কথা নয়। এ কারণে শিশুদের স্মার্টফোন ও ইন্টারনেটের নিরাপদ ব্যবহার নিয়ে অভিভাবকদের মধ্যে এক ধরনের উৎকণ্ঠা কাজ করে।

ভোডাফোন মূলত এ উদ্বেগ দূর করতেই ডিভাইস দুটি বাজারে আনছে। কোম্পানির কনজিউমার ডিরেক্টর ক্যারোলিন লুয়ে বলেন, ‘বর্তমান যুগে শিশুদের ইন্টারনেটের নিরাপদ ব্যবহার নিশ্চিত করাটা অভিভাবকদের জন্য সবচেয়ে কঠিন কাজ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এ কথা ঠিক যে, বর্তমানে একক ফিচারসমৃদ্ধ প্যারেন্টাল কন্ট্রোল অ্যাপ অনেক রয়েছে। কিন্তু শিশুদের অনলাইন দুনিয়ায় পুরোপুরি নিরাপদ রাখার জন্য যথোপযুক্ত সলিউশন রয়েছে একেবারেই কম।’

তার মতে, এখন খুব অল্প বয়সেই শিশুদের সঙ্গে প্রযুক্তির সখ্য তৈরি হয়। তারা খুব সহজেই ইন্টারনেটের বিভিন্ন কনটেন্টে প্রবেশ করতে পারে। কিন্তু শিশুরা ইন্টারনেট বা মোবাইল অ্যাপে কী দেখছে অথবা তারা কতক্ষণ এগুলো ব্যবহার করছে, তা জানা ও নিয়ন্ত্রণ করাটা জরুরি। ক্যারোলিন জানান, ভোডাফোন স্মার্ট নাইন এন সিরিজের স্মার্টফোন দুটিতে অভিভাবকরা কিছু অ্যাপ শিশুদের ব্যবহারের জন্য নির্দিষ্ট করে দিতে পারবেন। এছাড়া ব্যবহারের সময়টাও বেঁধে দেয়া যাবে ডিভাইসগুলোয়।

ভোডাফোন স্মার্ট এন নাইন ও ভোডাফোন স্মার্ট এন নাইন লাইট এর বিভিন্ন ফিচার—

অ্যাপ্লিকেশন অ্যাকসেস কন্ট্রোল:
এর মাধ্যমে অভিভাবকরা আগে থেকে ইনস্টল করা কিছু অ্যাপে শিশুদের প্রবেশাধিকার সীমিত রাখতে পারবেন।

ডিভাইস অ্যাকসেস কন্ট্রোল:
এ ফিচারটির মাধ্যমে অভিভাবকরা দিনের নির্দিষ্ট একটি সময় ডিভাইসে প্রবেশাধিকার সম্পূর্ণরূপে বন্ধ রাখতে পারবেন। অবশ্য এ সময় কলিং সিস্টেম স্বাভাবিক থাকবে।

ফোর্স রিং:
ফিচারটির কারণে ফোন সাইলেন্ট মোডে থাকলেও নির্দিষ্ট কিছু কন্টাক্ট নাম্বার থেকে কল এলে ফুল ভলিউমে রিংটোন বাজবে।

শেয়ার মাই জার্নি:
এর মাধ্যমে শিশুরা একা কোনো স্থানে ভ্রমণের সময় তাদের অবস্থান অভিভাবক ও পরিবারের অন্য সদস্যদের সঙ্গে শেয়ার করতে পারবে। এক্ষেত্রে গুগল ম্যাপসের লোকেশন ফিচারটি ব্যবহার হবে।

ইমার্জেন্সি মোড:
ভোডাফোনের স্মার্টফোন দুটিতে ইমার্জেন্সি ডিসট্রেস মেসেজিং ব্যবস্থা রয়েছে। যার ফলে জরুরি প্রয়োজনের সময় এসওএস মেসেজের মতো খুদে বার্তা পাঠানো যাবে।
সূত্র: নিউজিল্যান্ড ফিউচার ফাইভ

Leave a Reply

Back to top button