প্রজন্মের মোবাইল নেটওয়ার্ক বা ৫জির বাণিজ্যিক ব্যবহার ২০১৯ সালের মধ্যে শুরু হবে এবং এ সময়ের মধ্যে ৫জি ফোন মূলধারার মোবাইল ডিভাইস হিসেবে ব্যবহার হবে।

এক সাক্ষাৎকারে কোয়ালকমের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) স্টিভ মোলেনকফ এমনটাই দাবি করেন।

কোয়ালকম সিইও বলেন, গ্রাহক পর্যায় ও ব্যবসায়িক চাহিদা বৃদ্ধির কারণে ফাইভজি নেটওয়ার্ক ও ডিভাইস ব্যবহার শুরুর জন্য ২০২০ সাল নাগাদ যে সময়সীমা দেয়া হয়েছিল, তা আরো দ্রুততর করতে চাপ সৃষ্টি হচ্ছে। আগামী বছরের মধ্যেই ফাইভজি সংবলিত ডিভাইস দেখতে পারবেন।

এক বছর আগে এ বিষয় নিয়ে প্রশ্ন করলে আমি চলতি দশকের শেষ সময়কার কথাই বলতাম। তিনি বলেন, আগামী বছরের মধ্যে ফাইভজি নেটওয়ার্ক উন্মোচন এবং মূলধারার বাজার হিসেবে শীর্ষে থাকবে দক্ষিণ কোরিয়া, জাপান ও যুক্তরাষ্ট্র। এ প্রতিযোগিতায় চীনও অতি দ্রুত যোগদান করবে।

স্টিভ মোলেনকফ বলেন, আমি মনে করি ফাইভজির উন্নয়ন এবং আগাম ব্যবহারের ক্ষেত্রে তিনটি দেশই এগিয়ে রয়েছে। ফাইভজি নেটওয়ার্কের উন্নয়নে চীনও কাউকে অনুসরণ করতে চায় না বরং অন্যদের মতো এগিয়ে যেতে চায়।

সুত্রঃ ডিপ্রতিদিন

Leave a Reply