টেকনো ইনফোঃ এইচএমডি গ্লোবালের হাত ধরে ফের বাজারে এসেছে Nokia। Nokia’র চিরচেনা জাভা কিংবা সিমব্রিয়ান অপারেটিং সিস্টেম ছেড়ে ফেলে Nokia এখন চলছে Android’এ।

কিন্তু Nokia’র আগের সেই জৌলুস নেই। নেই সেই পুরনো বাজারও। কিন্তু তারপরও থেমে নেই সংস্থাটি। হারানো বাজার ফিরিয়ে নিয়ে আসতে নানা উদ্যোগ নিচ্ছে সংস্থাটি। আর এ জন্যই Nokia এখন অত্যাধুনিক ফিচার সম্পন্ন ফোনের কনসেপ্ট তৈরি করছে। এমনই একটি কনসেপ্ট হলো nokia safari edge।

সম্প্রতি এই ফোনটির ছবি ও তথ্য বিভিন্ন টেক ওয়েবসাইটে বেরোচ্ছে। প্রকাশিত তথ্য মতে, Nokia safari edge ফোনটিতে শক্তিশালী ব্যাটারি ব্যবহার করা হবে। এতে থাকবে ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ারের ব্যাটারি। ফলে দীর্ঘক্ষণ ফোনটি সচল থাকবে।

এর আগে নোকিয়া বাজারে ছাড়ে মধ্যম বাজেটের হ্যান্ডসেট Nokia 2। এতে ছিল ৪১০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ারের ব্যাটারি। আর nokia safari edge বাজারে আসলে এটিই হবে Nokia সবচেয়ে শক্তিশালী ব্যাটারির ফোন।

Nokia safari edge শুধু ব্যাটারির উপর গুরুত্ব দেওয়া হয়নি। এর কনফিগারেশনও দুর্দান্ত। এর ডিসপ্লে হবে ৫.৮ ইঞ্চির। ফুল এইচডি ডিসপ্লের রেজুলেশন ১০৮০x১৯২০ পিক্সেল। ফোনটি চলবে অ্যানড্রয়েডের সর্বাধুনিক ভার্সন ৮.০ অরিওতে। এতে থাকবে কোয়ালকমের দ্রুত গতির প্রসেসর স্ন্যাপড্রাগন ৮৪৫। ৬ জিবি র‌্যামের এই ফোনটি দুইটি বিল্টইন মেমোরি ভার্সনে পাওয়া যাবে। একটি ৬৪ জিবির অন্যটি ১২৮ জিবির।

ছবির জন্য ফোনটিতে ২৪ মেগাপিক্সেলের কার্ল জেইস প্রাইমারি শুটার এবং ১৩ মেগাপিক্সেলের সেলফি শুটার ব্যবহৃত হচ্ছে।

ব্যাকআপের জন্য ফোনটিতে ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি সংযোজন করা হবে। ফলে ফোনটিতে দীর্ধক্ষণ চার্জ থাকবে।

২০১৮ সালের মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে নোকিয়া তাদের নতুন এই ফ্লাগশিপ ফোনটির আত্মপ্রকাশ করা হবে বলে জানা গিয়েছে। এর দাম ৯৫৮ ডলারের মত হতে পারে।

Leave a Reply