টেকনো ইনফোঃ সম্প্রতি স্যামসাং ভারতের বাজারে তাদের নতুন স্মার্টফোন Samsung Galaxy S8+ নিয়ে এসেছে। এটিই কোম্পানির প্রথম নন-ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন যার ডিসপ্লের অ্যাস্পেক্ট রেশিও ১৮:৫:৯ যা ফোনটিকে আরও স্পেশাল বানিয়েছে। আজ আমরা আপনাদের এই ফোনটির সেরা ৫টি ফিচার্সের কথা জানবো।

১। ১৮:৫:৯ ডিসপ্লের অ্যাস্পেক্ট রেশিওঃ

Samsung Galaxy S8+ কোম্পানির প্রথম নন-ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন যার অ্যাস্পেক্ট রেশিও ১৮:৫:৯। এটি ৬-ইঞ্চির সুপার AMOLED ডিসপ্লে যুক্ত, যার রেজিলিউশান ২২২০ x ১০৮০ পিক্সাল।  স্মার্টফোনটি স্যামসাং গিয়ার VR এর সাপোর্ট করে।

২। ৬ জিবি র‍্যাম ও ২৫৬ জিবি পর্যন্ত এক্সপেন্ডেবেল স্টোরেজঃ

Samsung Galaxy S8+ ফোনটিতে কোম্পানি ৬ জিবি র‍্যাম দিয়েছে। ফোনটি ৬ জিবি র‍্যাম থাকার ফলে মাল্টিটাস্কিং অনেক সহজ। ভারতে খুব কম স্মার্টফোনেই ৬ জিবি বা ৮ জিবি র‍্যাম আছে। আর এর সঙ্গে বেশিরভাগ স্মার্টফোনে ১২৮ জিবির এক্সপেন্ডেবেল স্টোরেজ থাকলেও  এই ফোনটিতে ২৫৬ জিবি পর্যন্ত এক্সপেন্ডেবেল স্টোরেজ দেওয়া হয়েছে।

৩। ডুয়াল ফ্রন্ট ক্যামেরা সেটআপঃ

বাজারে ডুয়াল ফ্রন্ট ক্যামেরা সেটআপ যুক্ত ফোন খুব কম।স্যামসাং তাদের Galaxy S8+ ফোনে এই ফিচারটি দেওয়ায় ফোনটিতে সেলফি তোলার অনুভুতিও আলাদা হবে। এই ফোনের সেলফি ক্যামেরা দিয়ে বোখে এফেক্টেও ছবি তোলা যেতে পারে। Galaxy S8+ ফোনটিতে ফিল্টার ও এফেক্টার দেওয়া হয়েছে। ফোনটিতে ১৬ মেগাপিক্সেল +৮ মেগাপিক্সেলের ডুয়াল ফ্রন্ট ফেসিং ক্যামেরা সেটআপ দেওয়া হয়েছে। দুটি ক্যামেরাতেই f/1.9 অ্যাপার্চার লেন্স আছে। ফোনে ১৬ মেগাপিক্সেলের f/1.7 অ্যাপার্চার লেন্স রেয়ার অংশে দেওয়া হয়েছে।

৪। ওয়াটার এবং ডাস্ট-রেজিস্টেন্সঃ

Samsung Galaxy S8+ ফোনটি একটি IP68 সার্টিফায়েড ডিভাইস, যা এই ফোনটিকে ওয়াটা ও ডাস্ট-রেজিস্টেন্স বানিয়েছে। এর ফলে ফোনটি বৃষ্টির সময়ও নির্ভয়ে ব্যবহার করা যাবে।

৫। অলওয়েজ অন ডিসপ্লে(AOD):

Samsung Galaxy S8+ 2018 ফোনটিতে সবসময় অন থাকে এমন ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে। ফলে টাইম দেখার জন্য স্ক্রিন অন করতে হবেনা। আর এই ধরনের ডিসপ্লে থাকার ফলে ফোন অফ থাকলেও দরকারি খবর যেমন ডেট, সময়, নোটিফিকেশান এমনকি ব্যাটারিও সবসময় দেখা যাবে।

Leave a Reply