টেকনো ইনফোঃ আসসালামু আলাইকুম। বন্ধুরা কেমন আছেন। আশা করি অনেক ভাল আছেন। আজ আপনাদের জন্য নিয়ে আসলাম চমৎকার একটি apps এর রিভিউ। যার মাধ্যমে আপনার লেখালিখির অভ‍্যাসে আসতে পারে আমূল পরিবর্তন। আর কথা না বাড়িয়ে এবার মূল প্রসঙ্গে আসা যাক।

কিভাবে বাংলায় ভয়েস টাইপিং করবেন?

টাইপ করতে ইচ্ছে করছে না? কিংবা হাতে খুব একটা সময় নেই। এমন মুহূর্তে গুগলের স্পিচ-টু-টেক্সট সুবিধাটি বেশ কাজের। তবে এত দিন ধরে এই সুবিধায় বাংলা ভাষা যুক্ত ছিল না।

গুগল ১৪ আগস্ট নতুন ৩০টি ভাষা যোগ করেছে স্পিচ-টু-টেক্সটে। এর মধ্যে রয়েছে বাংলা ভাষাও। তাই এখন থেকে গুগলের এ সুবিধাটি ব্যবহার করে বাংলায় উচ্চারণ করে টাইপ করা যাবে। পাশাপাশি উচ্চারণ করেও গুগল সার্চ ইঞ্জিনে কোনো কিছু কিছু খোঁজা যাবে। গুগল এটিকে বলছে টাইপ কম, কথা বেশি।

গুগল কর্তৃপক্ষ থেকে একটি ব্লগ পোস্টে বলা হয়, এসব ভাষা যুক্ত করতে স্থানীয় ভাষাভাষীদের কথার নমুনা সংগ্রহ করা হয়। আর পুরো প্রক্রিয়াটি মানে শব্দ শোনে তা টাইপ বা খোঁজার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয় মেশিন লার্নিং পদ্ধতিতে। গুগল তাদের মেশিন লার্নিং পদ্ধতিকে আরও উন্নত করেছে।

বাংলার পাশাপাশি নতুন যোগ করা ভাষার মধ্যে উর্দু, নেপালি, তেলেগু, মারাঠি, তামিলসহ বিভিন্ন প্রাচীন ভাষা রয়েছে। নতুন ১৯টি ভাষা যুক্ত হওয়ায় গুগলের ভয়েস সার্চ সুবিধাটি বিশ্বের মোট ১২০টিরও বেশি ভাষাভাষীর মানুষ ব‍্যবহার করতে পারবেন।

ক। জিবোর্ডের সুবিধাসমূহঃ

১। Glide Typing: এর সাহায্যে আপনার দ্রুত টাইপ করতে পারবেন।

২। Voice typing: ভয়েসের মাধ্যমে টাইপ করতে পারবেন।

৩। Google Search and share: কিবোর্ডটি মাধ্যমে আপনি গুগল কোন বিষয়ে সার্চ দিয়ে সেটি শেয়ার করতে পারবেন।

৪। Emoji Search: ইমোজি সার্চ দিতে পারবেন।

৫। Search and share GIFs: গিফস এবং শেয়ার করতে পারবেন

৬। Multilingual typing: কিবোর্ডটি সাহায্যে আপনি সহজেই ভাষা পরিবর্তন করতে পারবেন।

৭। Google Translate: গুগল ট্রান্সলেট সুবিধা পাবেন কিবোর্ডটিতে।

৮। Hundreds of language varieties: বাংলা ছাড়াও এতে রয়েছে আরও প্রায় 120 টি ভাষা তাই সহজেই আপনার পছন্দের ভাষাতে টাইপ করতে পারবেন।

খ। কিভাবে জিবোর্ড চালু করবেনঃ

১। কি-বোর্ডে ভয়েস টাইপিং চালু করতে প্লে-স্টোর থেকে ‘জিবোর্ড’ অ্যাপটি প্রথমে ডাউনলোড করে নিতে হবে।

২। এরপর অ্যান্ড্রয়েড সেটিংসে ল্যাঙ্গুয়েজ অ্যান্ড ইনপুট অপশনে গিয়ে কারেন্ট কি-বোর্ড হিসেবে জিবোর্ড নির্বাচন করতে হবে।

৩। এবার জিবোর্ডে গিয়ে ভাষা হিসেবে বাংলা নির্বাচন করুন।

৪। পুনরায় ল্যাঙ্গুয়েজ অ্যান্ড ইনপুট অপশনে ফিরে এসে গুগল ভয়েস টাইপিংয়ে প্রবেশ করুন।

৫। তারপর সেখানে ইংরেজি অপশন বন্ধ করে দিয়ে বাংলা ভাষা চালু করে নিন। সেটিংসের কাজ শেষ।

এখন মেসেজ বা ফেসবুকের টাইপ মুডে গিয়ে স্পেচবার চেপে ধরে গুগল ভয়েস টাইপিং অপশন নিন। এখন আপনি বাংলায় কথা বললে সেটা পর্দায় বাংলায় টাইপ হতে থাকবে।

গ। অ‍্যাপসটি ডাউনলোড করুনঃ

(এখানে)

ঘ। ভিডিও দেখুুনঃ

Leave a Reply